ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি ইতালির ভিসেন্সায় সিলেট ডায়নামিক অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত

কুলাউড়ায় কারামুক্ত বিএনপি নেতা শাহীন চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন

ছয়ফুল আলম সাইফুল, মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ
  • আপডেটের সময় : ১০:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৯
  • / ১৪০৯ টাইম ভিউ

ছয়ফুল আলম সাইফুল, মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ কুলাউড়া থানায় ঐক্যফ্রন্টের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত পুলিশ এ্যাসল্ট মামলায় মৌলভীবাজার জেলা কারাগার থেকে সদ্য জামিনে মুক্ত কুলাউড়া সদর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক, বেলায়েত হোসেন চৌধুরী শাহীন (৫৫) আর নেই। (ইন্নালিল্লাহি…. রাজিউন)। ১২ ফেব্র“য়ারী মঙ্গলবার সকাল ৯টায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।


মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, তিন কন্যা সন্তান, চার ভাই মধ্যে প্রথম কন্যার জামাতা সিলেট আল-আরাফ ইসলামী ব্যাংক সিলেট লালদীঘির পার শাখার এক্সিকিউটিভ অফিসার হিসাবে কর্মরত সাইফ উদ্দিন আহামদ জুনেদসহ  অসংখ্য আত্মীয়স্বজন  গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় মিনারমহল জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরাস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়। তাঁর মৃত্যুতে কুলাউড়ার রাজনৈতিক অঙ্গণে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
জানা যায়, নির্বাচনকালীন সময়ে উপজেলার রাউৎগাঁও ইউনিয়নে পুলিশ এ্যাসল্ট মামলায় বিএনপি নেতা শাহীনকে পুলিশ ২৫ ডিসেম্বর সদর ইউনিয়নের লক্ষীপুর গ্রাম থেকে আটক করে মৌলভীবাজার জেল হাজতে প্রেরণ করে।

দীর্ঘ ১ মাস কারাভোগের পর ২৮ জানুয়ারী শাহীন মৌলভীবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালত থেকে জামিন পেয়ে ২৯ জানুয়ারী মৌলভীবাজার জেলা কারাগার থেকে মুক্তিলাভ করেন। মুক্তি পেয়ে ওইদিন শাহীন দুপুরে তার মিনারমহল গ্রামের বাড়ীতে পৌছে বিকেলে ষ্ট্রোক করেন। তাকে চিকিৎসার জন্য সিলেট একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় তার অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হলে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৫ দিন পর মঙ্গলবার সকালে মৃত্যুবরণ করেন।


শোক প্রকাশ : বেলায়েত হোসেন চৌধুরী শাহীন এর অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও তাঁর শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে শোক বিবৃতি প্রদান করেছেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী,হাজীপুর সোসাইটি কুলাউড়ার সভাপতি মেজর অবঃ নুরুল মন্নান চৌধুরী বিএনপি নেতা এডভোকেট আবেদ রাজা, যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা শরিফুজ্জামান চৌধুরী তপন, কুলাউড়া বিএনপি নেতা ও সাবেক মেয়র কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদ, জেলা বিএনপি সদস্য বদরুজ্জামান সজল, বিএনপি নেতা রেদওয়ান খান, এম এ মজিদ, মুজিবুল আলম সুহেল, ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল জামাল, কমর উদ্দিন কমরু, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ইছহাক চৌধুরী ইমরান, যুক্তরাজ্যস্থ কুইন্সপার্ক বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক, কুলাউড়া ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন ইউকে’র সাধারণ সম্পাদক, ইউরোপিয়ান প্রবাসী বাংলাদেশী এসোসিয়েশনের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও কুলাউড়া থানা ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম খান, উপজেলা যুবদল নেতা আবু সুফিয়ান, পৌর কাউন্সিলর ও জেলা যুবদলের সহ সভাপতি হারুনুর রশীদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সভাপতি জুবের খান, সারোয়ার আলম বেলাল, কুলাউড়া উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি এম. ফয়েজ উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক এম. গিয়াস উদ্দিন মোল্লা, কুলাউড়া ক্যাবল নেটওয়ার্ক এসোসিয়েশনের সভাপতি ছয়ফুল আলম সাাইফুল প্রমুখ।

 

মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় মিনারমহল জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরাস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়।

পোস্ট শেয়ার করুন

কুলাউড়ায় কারামুক্ত বিএনপি নেতা শাহীন চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন

আপডেটের সময় : ১০:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

ছয়ফুল আলম সাইফুল, মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ কুলাউড়া থানায় ঐক্যফ্রন্টের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত পুলিশ এ্যাসল্ট মামলায় মৌলভীবাজার জেলা কারাগার থেকে সদ্য জামিনে মুক্ত কুলাউড়া সদর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক, বেলায়েত হোসেন চৌধুরী শাহীন (৫৫) আর নেই। (ইন্নালিল্লাহি…. রাজিউন)। ১২ ফেব্র“য়ারী মঙ্গলবার সকাল ৯টায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।


মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, তিন কন্যা সন্তান, চার ভাই মধ্যে প্রথম কন্যার জামাতা সিলেট আল-আরাফ ইসলামী ব্যাংক সিলেট লালদীঘির পার শাখার এক্সিকিউটিভ অফিসার হিসাবে কর্মরত সাইফ উদ্দিন আহামদ জুনেদসহ  অসংখ্য আত্মীয়স্বজন  গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় মিনারমহল জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরাস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়। তাঁর মৃত্যুতে কুলাউড়ার রাজনৈতিক অঙ্গণে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
জানা যায়, নির্বাচনকালীন সময়ে উপজেলার রাউৎগাঁও ইউনিয়নে পুলিশ এ্যাসল্ট মামলায় বিএনপি নেতা শাহীনকে পুলিশ ২৫ ডিসেম্বর সদর ইউনিয়নের লক্ষীপুর গ্রাম থেকে আটক করে মৌলভীবাজার জেল হাজতে প্রেরণ করে।

দীর্ঘ ১ মাস কারাভোগের পর ২৮ জানুয়ারী শাহীন মৌলভীবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালত থেকে জামিন পেয়ে ২৯ জানুয়ারী মৌলভীবাজার জেলা কারাগার থেকে মুক্তিলাভ করেন। মুক্তি পেয়ে ওইদিন শাহীন দুপুরে তার মিনারমহল গ্রামের বাড়ীতে পৌছে বিকেলে ষ্ট্রোক করেন। তাকে চিকিৎসার জন্য সিলেট একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় তার অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হলে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৫ দিন পর মঙ্গলবার সকালে মৃত্যুবরণ করেন।


শোক প্রকাশ : বেলায়েত হোসেন চৌধুরী শাহীন এর অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও তাঁর শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে শোক বিবৃতি প্রদান করেছেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী,হাজীপুর সোসাইটি কুলাউড়ার সভাপতি মেজর অবঃ নুরুল মন্নান চৌধুরী বিএনপি নেতা এডভোকেট আবেদ রাজা, যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা শরিফুজ্জামান চৌধুরী তপন, কুলাউড়া বিএনপি নেতা ও সাবেক মেয়র কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদ, জেলা বিএনপি সদস্য বদরুজ্জামান সজল, বিএনপি নেতা রেদওয়ান খান, এম এ মজিদ, মুজিবুল আলম সুহেল, ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল জামাল, কমর উদ্দিন কমরু, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ইছহাক চৌধুরী ইমরান, যুক্তরাজ্যস্থ কুইন্সপার্ক বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক, কুলাউড়া ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন ইউকে’র সাধারণ সম্পাদক, ইউরোপিয়ান প্রবাসী বাংলাদেশী এসোসিয়েশনের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও কুলাউড়া থানা ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম খান, উপজেলা যুবদল নেতা আবু সুফিয়ান, পৌর কাউন্সিলর ও জেলা যুবদলের সহ সভাপতি হারুনুর রশীদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সভাপতি জুবের খান, সারোয়ার আলম বেলাল, কুলাউড়া উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি এম. ফয়েজ উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক এম. গিয়াস উদ্দিন মোল্লা, কুলাউড়া ক্যাবল নেটওয়ার্ক এসোসিয়েশনের সভাপতি ছয়ফুল আলম সাাইফুল প্রমুখ।

 

মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় মিনারমহল জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরাস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়।