ঢাকা , বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পূর্ব লন্ডনে বড়লেখার সোয়েব আহমেদের সমর্থনে মতবিনিময় সভা ইতালির ভেনিসে গ্রিন সিলেট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন এর জরুরি সভা অনুষ্ঠিত ইতালির ভেনিসে এনটিভির ইউরোপের ডিরেক্টর সাবরিনা হোসাইন কে সংবর্ধনা দিয়েছে ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাব পর্তুগালে বেজা আওয়ামীলীগের কর্মি সভা পর্তুগাল এ ফ্রেন্ডশিপ ক্রিকেট ক্লাবের জার্সি উন্মোচন লিসবনে আত্মপ্রকাশ হয় সামাজিক সংগঠন “গোলাপগঞ্জ কমিউনিটি কেয়ারর্স পর্তুগাল “ উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গা পূজা

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ১১:২৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৫ অক্টোবর ২০১৯
  • / ৪৩১ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গা পূজার একেবারে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি চলছে পুরোদমে। মা দুর্গাকে সাজাতে রাত দিন কাজ করছেন প্রতিমা তৈরির কারিগররা। এখন চলছে রঙের কাজ।এছাড়া নির্বিঘ্নে উৎসব সম্পন্ন করতে মন্দির ভিত্তিক নিরাপত্তা ব্যবস্থার পাশাপাশি নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তোলার প্রস্তুতি নিয়েছে প্রশাসন।

এ উৎসবকে আকর্ষণীয় করতে কুলাউড়া উপজেলার মণ্ডপে মণ্ডপে চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ। দীর্ঘ ৪-৫ মাসের পরিশ্রমে গড়া প্রতিমা তৈরির শেষ পর্যায়ে এখন দিন-রাত মিলে চলছে রঙের প্রলেপ ও অঙ্গসজ্জার কাজ। দেবীর মর্তে আগমনের আগেই শেষ করতে হবে এ কাজ। ইতোমধ্যে মহালয়ার মাধ্যমে দেবীর মর্তের যাত্রা শুরু হয়ে গেছে। তাই কাজের চাপে দম ফেলার ফুসরত নেই কারিগরদের। কারিগররা বলেন, রঙের কাজ আপাতত শেষ। এখন চোখের কাজ করছি। এখন আমাদের প্রচুর কাজের চাপ। আমরা রাত ১-২ টা পর্যন্ত কাজ করছি। ঠাকুরকে গয়নাগাটি, চুল এগুলো পড়ানো শেষ হলেই কাজ শেষ।
কুলাউড়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শ্রী অরবিন্দু ঘোষ এবং সাধারণ সম্পাদক সুমন মিত্র বলেন, কুলাউড়া উপজেলায় সর্বজনীন ১৯৩টি ও পারিবারিকভাবে ২৪টিতে পূজা হবে। তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও আকর্ষণীয় এবং সারাদেশের মধ্যে অন্যতম কাদিপুর শিববাড়ি। সেখানে পূজার পুরোটা সময়ে প্রতিদিন হাজারো মানুষের ঢল নামে। বিদেশীরাও আসেন শিববাড়িতে। আমরা আশা করি প্রতিবারের নেয়ায় আবারও উৎসবমুখর পরিবেশে সুন্দরভাবে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা মায়ের পূজা করবে। কুলাউড়ায় সবকটি মন্দিরেই সবধরণের মানুষকে নিয়ে নিরাপত্তা বলয় তৈরি করা হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি প্রতিবারের মতো এবারেও বাংলাদেশে নির্বিঘ্নে শারদীয় দুর্গোৎসব সম্পন্ন হবে ।

শিববাড়ির পূলক সোম বলেন এ বছর কুলাউড়ার ২১৭টি মন্দির ও মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। এবার দেবী দুর্গা তার ভক্তদের মাঝে আসবেন ঘোড়ায় চড়ে, ফিরবেনও ঘোড়ায়। আগামী মঙ্গলবার বিজয়াদশমীতে দেবী বিসর্জনের মধ্য দিয়ে এবারের দুর্গোৎসব শেষ হবে।

পোস্ট শেয়ার করুন

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গা পূজা

আপডেটের সময় : ১১:২৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৫ অক্টোবর ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গা পূজার একেবারে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি চলছে পুরোদমে। মা দুর্গাকে সাজাতে রাত দিন কাজ করছেন প্রতিমা তৈরির কারিগররা। এখন চলছে রঙের কাজ।এছাড়া নির্বিঘ্নে উৎসব সম্পন্ন করতে মন্দির ভিত্তিক নিরাপত্তা ব্যবস্থার পাশাপাশি নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তোলার প্রস্তুতি নিয়েছে প্রশাসন।

এ উৎসবকে আকর্ষণীয় করতে কুলাউড়া উপজেলার মণ্ডপে মণ্ডপে চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ। দীর্ঘ ৪-৫ মাসের পরিশ্রমে গড়া প্রতিমা তৈরির শেষ পর্যায়ে এখন দিন-রাত মিলে চলছে রঙের প্রলেপ ও অঙ্গসজ্জার কাজ। দেবীর মর্তে আগমনের আগেই শেষ করতে হবে এ কাজ। ইতোমধ্যে মহালয়ার মাধ্যমে দেবীর মর্তের যাত্রা শুরু হয়ে গেছে। তাই কাজের চাপে দম ফেলার ফুসরত নেই কারিগরদের। কারিগররা বলেন, রঙের কাজ আপাতত শেষ। এখন চোখের কাজ করছি। এখন আমাদের প্রচুর কাজের চাপ। আমরা রাত ১-২ টা পর্যন্ত কাজ করছি। ঠাকুরকে গয়নাগাটি, চুল এগুলো পড়ানো শেষ হলেই কাজ শেষ।
কুলাউড়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শ্রী অরবিন্দু ঘোষ এবং সাধারণ সম্পাদক সুমন মিত্র বলেন, কুলাউড়া উপজেলায় সর্বজনীন ১৯৩টি ও পারিবারিকভাবে ২৪টিতে পূজা হবে। তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও আকর্ষণীয় এবং সারাদেশের মধ্যে অন্যতম কাদিপুর শিববাড়ি। সেখানে পূজার পুরোটা সময়ে প্রতিদিন হাজারো মানুষের ঢল নামে। বিদেশীরাও আসেন শিববাড়িতে। আমরা আশা করি প্রতিবারের নেয়ায় আবারও উৎসবমুখর পরিবেশে সুন্দরভাবে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা মায়ের পূজা করবে। কুলাউড়ায় সবকটি মন্দিরেই সবধরণের মানুষকে নিয়ে নিরাপত্তা বলয় তৈরি করা হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি প্রতিবারের মতো এবারেও বাংলাদেশে নির্বিঘ্নে শারদীয় দুর্গোৎসব সম্পন্ন হবে ।

শিববাড়ির পূলক সোম বলেন এ বছর কুলাউড়ার ২১৭টি মন্দির ও মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। এবার দেবী দুর্গা তার ভক্তদের মাঝে আসবেন ঘোড়ায় চড়ে, ফিরবেনও ঘোড়ায়। আগামী মঙ্গলবার বিজয়াদশমীতে দেবী বিসর্জনের মধ্য দিয়ে এবারের দুর্গোৎসব শেষ হবে।