ঢাকা , বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পূর্ব লন্ডনে বড়লেখার সোয়েব আহমেদের সমর্থনে মতবিনিময় সভা ইতালির ভেনিসে গ্রিন সিলেট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন এর জরুরি সভা অনুষ্ঠিত ইতালির ভেনিসে এনটিভির ইউরোপের ডিরেক্টর সাবরিনা হোসাইন কে সংবর্ধনা দিয়েছে ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাব পর্তুগালে বেজা আওয়ামীলীগের কর্মি সভা পর্তুগাল এ ফ্রেন্ডশিপ ক্রিকেট ক্লাবের জার্সি উন্মোচন লিসবনে আত্মপ্রকাশ হয় সামাজিক সংগঠন “গোলাপগঞ্জ কমিউনিটি কেয়ারর্স পর্তুগাল “ উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা

ফিজি দ্বীপে ইলিয়ানা

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৪:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ জুন ২০১৭
  • / ১৩৪৬ টাইম ভিউ

ইলিয়ানা ডি ক্রুজ। প্রচণ্ড কাজের পর ছোট্ট ব্রেক নিয়ে উড়ে গেলেন ফিজি দ্বীপে। সেখানে বয়ফ্রেন্ড অ্যান্ড্রু নিবোনের সঙ্গে খানিক নিরিবিলি সময় কাটাবেন এ নায়িকা।তবে ভেকেশনটা পুরোটাই আলসেমি করে কাটাচ্ছেন না ইলিয়ানা। নানা ধরনের সি-স্পোর্ট শিখছেন তিনি। ইনস্টাগ্রামে সেই সব ছবিও পোস্ট করছেন।

প্যাডেল বোর্ডিং শিখে সঙ্গে সঙ্গে তা পোস্ট করেছেন। তিনি লিখেছেন, প্যাডেলিং স্কিলটা পারফেক্ট করতে চাই। এমন সুযোগ তো রোজ আসে না।ফিজি দ্বীপের সোয়া-ই-লাউ গুহাতেও খানিক সময় কাটিয়েছেন ইলিয়ানা। সেখানকার ম্যাজিস্টিক মারভেল খোঁজার চেষ্টা করছেন। বাকি সময়টা তার কাটছে প্রকৃতির শোভা দেখে।’বরফি’ ও ‘ফাটা পোস্টার নিকলা হিরো’ ছবি দুটি বলিউডে ব্যাপক পরিচিতি এনে দেয় ইলিয়ানাকে। মুম্বাইয়ের মেয়ে হলেও ২০০৬ সালে তামিল ও তেলেগু ছবি দিয়েই ইলিয়ানার অভিনয়যাত্রা শুরু হয়। ‘পোকিরি’, ‘জলসা’, ‘কিক’, ‘জুলায়ি’র মতো সুপারহিট ছবিগুলো তাকে সেখানকার শীর্ষ অভিনেত্রীরূপে প্রতিষ্ঠিত করেছে। ২০০৬ সালে তেলেগু ছবি ‘দেবদাসু’-তে অভিনয়ের জন্য বছরের সবচেয়ে সম্ভাবনাময় অভিনেত্রীর পুরস্কার পান তিনি।

পোস্ট শেয়ার করুন

ফিজি দ্বীপে ইলিয়ানা

আপডেটের সময় : ০৪:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ জুন ২০১৭

ইলিয়ানা ডি ক্রুজ। প্রচণ্ড কাজের পর ছোট্ট ব্রেক নিয়ে উড়ে গেলেন ফিজি দ্বীপে। সেখানে বয়ফ্রেন্ড অ্যান্ড্রু নিবোনের সঙ্গে খানিক নিরিবিলি সময় কাটাবেন এ নায়িকা।তবে ভেকেশনটা পুরোটাই আলসেমি করে কাটাচ্ছেন না ইলিয়ানা। নানা ধরনের সি-স্পোর্ট শিখছেন তিনি। ইনস্টাগ্রামে সেই সব ছবিও পোস্ট করছেন।

প্যাডেল বোর্ডিং শিখে সঙ্গে সঙ্গে তা পোস্ট করেছেন। তিনি লিখেছেন, প্যাডেলিং স্কিলটা পারফেক্ট করতে চাই। এমন সুযোগ তো রোজ আসে না।ফিজি দ্বীপের সোয়া-ই-লাউ গুহাতেও খানিক সময় কাটিয়েছেন ইলিয়ানা। সেখানকার ম্যাজিস্টিক মারভেল খোঁজার চেষ্টা করছেন। বাকি সময়টা তার কাটছে প্রকৃতির শোভা দেখে।’বরফি’ ও ‘ফাটা পোস্টার নিকলা হিরো’ ছবি দুটি বলিউডে ব্যাপক পরিচিতি এনে দেয় ইলিয়ানাকে। মুম্বাইয়ের মেয়ে হলেও ২০০৬ সালে তামিল ও তেলেগু ছবি দিয়েই ইলিয়ানার অভিনয়যাত্রা শুরু হয়। ‘পোকিরি’, ‘জলসা’, ‘কিক’, ‘জুলায়ি’র মতো সুপারহিট ছবিগুলো তাকে সেখানকার শীর্ষ অভিনেত্রীরূপে প্রতিষ্ঠিত করেছে। ২০০৬ সালে তেলেগু ছবি ‘দেবদাসু’-তে অভিনয়ের জন্য বছরের সবচেয়ে সম্ভাবনাময় অভিনেত্রীর পুরস্কার পান তিনি।