ঢাকা , রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পথচারীদের দৃষ্টিতে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ভাষা সৈনিক বদরুজ্জামান পর্ষদ’র মানবতার দেয়াল

ছয়ফুল আলম সাইফুলঃঃ
  • আপডেটের সময় : ১১:৩০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুন ২০১৯
  • / ৯১৭ টাইম ভিউ

খ ম জুলফিকার, মৌলভীবাজার থেকে:: বর্তমানে বেশ আলোচিত ‘মানবতার দেয়াল’ নামে একটি উদ্যোগ। সামান্য প্রয়োজন মেটাতে ফেসবুকের মাধ্যমে বাংলাদেশে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে মানবতার দেয়াল। যেখানে একজন তার অপ্রয়োজনীয় জিনিস রেখে যাচ্ছেন, আর কারো দরকার হলে সে জিনিসটি বিনামূল্যে কেউ নিয়ে যেতে পারছে। সারাদেশের ন্যয় মৌলভীবাজার সদরের মিরপুর ভাষাসৈনিক বদরুজ্জামান পর্ষদ এর পক্ষ থেকে প্রায় তিন/চার মাস আগে তৈরী করা মানবতার দেয়াল। সাধারণ পথচারীদের দৃষ্টিতে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

মৌলভীবাজার সদরের মিরপুর গ্রামের (হুসাইনিয়া মাদ্রাসা, মসজিদ, ঈদগাঁহ, মাজার) সংলগ্ন এর ফটকে গেলেই দেখতে পাওয়া যাবে এমন চিত্র।

ভাষাসৈনিক বদরুজ্জামান পর্ষদ এ মানবতার দেয়াল তৈরীর উদ্যোগটিকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সচেতন মহল।
বিশেষ উদ্যোগে প্রায় ৩/৪ মাস পূর্বে তৈরী করা হয় এই দেয়ালটি। ইতোমধ্যে স্থানীয় এলাকাবাসী এবং সাধারণ পথচারীদের দৃষ্টিতে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে এই মানবতার দেয়াল। অনেকেই উৎসাহী হয়ে নিজেদের অপ্রয়োজনীয় বা অব্যবহৃত কাপড় গুলো সেখানে রেখে যাচ্ছেন। আবার প্রয়োজন বোধে অসহায় দু:স্থ মানুষগুলো সেগুলো নিয়ে যাচ্ছেন। এতে করে অনেক দু:স্থদের ঈদের প্রয়োজনটা মিটেছে।
এ বিষয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সেলিম আহমদ বলেন, ‘১টি ওয়ালে দেখেছিলাম মানবতার দেয়াল নামে। সেটা দেখে আমরা অনুপ্রাণিত হয়েছি যে আমাদেরও এমন কিছু করা উচিত’।
ভাষাসৈনিক বদরুজ্জামান পষদ মানবতার দেয়াল এটি একটি ভলেন্টিয়ারী সার্ভিস বলা যেতে পারে। একটি উদ্যোগের মাধ্যমে অনেক মানুষের উপকার হতে পারে। যার যেটা প্রয়োজন নেই সে সেটা রেখে যেতে পারে আবার যার প্রয়োজন সে অনায়েশে নিয়ে যেতে পারে। আপাতাতো বৃষ্টির সময় ওগুলো তুলে রাখা হয়। পরবর্তিতে উপরে টিনের ছাওনি করা হবে বলে জানান পর্ষদের সেক্রেটার খিজির মুহাম্মদ জুলফিকার।

পোস্ট শেয়ার করুন

পথচারীদের দৃষ্টিতে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ভাষা সৈনিক বদরুজ্জামান পর্ষদ’র মানবতার দেয়াল

আপডেটের সময় : ১১:৩০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুন ২০১৯

খ ম জুলফিকার, মৌলভীবাজার থেকে:: বর্তমানে বেশ আলোচিত ‘মানবতার দেয়াল’ নামে একটি উদ্যোগ। সামান্য প্রয়োজন মেটাতে ফেসবুকের মাধ্যমে বাংলাদেশে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে মানবতার দেয়াল। যেখানে একজন তার অপ্রয়োজনীয় জিনিস রেখে যাচ্ছেন, আর কারো দরকার হলে সে জিনিসটি বিনামূল্যে কেউ নিয়ে যেতে পারছে। সারাদেশের ন্যয় মৌলভীবাজার সদরের মিরপুর ভাষাসৈনিক বদরুজ্জামান পর্ষদ এর পক্ষ থেকে প্রায় তিন/চার মাস আগে তৈরী করা মানবতার দেয়াল। সাধারণ পথচারীদের দৃষ্টিতে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

মৌলভীবাজার সদরের মিরপুর গ্রামের (হুসাইনিয়া মাদ্রাসা, মসজিদ, ঈদগাঁহ, মাজার) সংলগ্ন এর ফটকে গেলেই দেখতে পাওয়া যাবে এমন চিত্র।

ভাষাসৈনিক বদরুজ্জামান পর্ষদ এ মানবতার দেয়াল তৈরীর উদ্যোগটিকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সচেতন মহল।
বিশেষ উদ্যোগে প্রায় ৩/৪ মাস পূর্বে তৈরী করা হয় এই দেয়ালটি। ইতোমধ্যে স্থানীয় এলাকাবাসী এবং সাধারণ পথচারীদের দৃষ্টিতে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে এই মানবতার দেয়াল। অনেকেই উৎসাহী হয়ে নিজেদের অপ্রয়োজনীয় বা অব্যবহৃত কাপড় গুলো সেখানে রেখে যাচ্ছেন। আবার প্রয়োজন বোধে অসহায় দু:স্থ মানুষগুলো সেগুলো নিয়ে যাচ্ছেন। এতে করে অনেক দু:স্থদের ঈদের প্রয়োজনটা মিটেছে।
এ বিষয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সেলিম আহমদ বলেন, ‘১টি ওয়ালে দেখেছিলাম মানবতার দেয়াল নামে। সেটা দেখে আমরা অনুপ্রাণিত হয়েছি যে আমাদেরও এমন কিছু করা উচিত’।
ভাষাসৈনিক বদরুজ্জামান পষদ মানবতার দেয়াল এটি একটি ভলেন্টিয়ারী সার্ভিস বলা যেতে পারে। একটি উদ্যোগের মাধ্যমে অনেক মানুষের উপকার হতে পারে। যার যেটা প্রয়োজন নেই সে সেটা রেখে যেতে পারে আবার যার প্রয়োজন সে অনায়েশে নিয়ে যেতে পারে। আপাতাতো বৃষ্টির সময় ওগুলো তুলে রাখা হয়। পরবর্তিতে উপরে টিনের ছাওনি করা হবে বলে জানান পর্ষদের সেক্রেটার খিজির মুহাম্মদ জুলফিকার।