ঢাকা , শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে…

নিজের মায়ের নামে ‘পাগলির সন্তানের’ নাম রাখলেন ওসি

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক:
  • আপডেটের সময় : ০৯:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ জানুয়ারী ২০১৯
  • / ১০৪৩ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: অজ্ঞাত পাগলির কোলজুড়ে আসা নবজাতকের নাম নিজের মায়ের নামে ‘ফাতেমা রহমান’ রেখে শিশুটিকে মায়ের মর্যাদা দিলেন পটুয়াখালী সদর থানা পুলিশের ওসি মোস্তাফিজুর রহমান।

পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার পর রোববার শিশুটিকে আনুষ্ঠানিকভাবে পটুয়াখালী সমাজসেবা দফতরের কাছে হস্তান্তরের সময় তার এই নাম রাখেন ওসি।

১৪ জানুয়ারি সদর উপজেলার কমলাপুর এলাকায় প্রসব বেদনায় কাতরানো অজ্ঞাত এক মানসিক ভারসাম্যহীন নারীকে দ্রুত পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন ওসি মোস্তাফিজুর রহমান।

ওই দিনই ওই নারী একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়ে উধাও হয়ে যায়। সেই সময় থেকে ওসি মোস্তাফিজুর রহমান শিশুটির দেখাশোনা করে আসছেন।

ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, একাধিক স্থানে খোঁজ করেও শিশুটির মাকে পাওয়া যায়নি। ১৪ দিন চিকিৎসা ও লালন-পালন শেষে রোববার হাসপাতাল থেকে শিশুটিকে সমাজসেবা দফতরের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ সময় আবেগাপ্লুত হয়ে কেঁদে ফেলেন ওসি।

তিনি বলেন, হস্তান্তরের সময় মা হারা এই নবজাতকের পরিচয় নিয়ে জটিলতা দেখা দিলে আমি আমার মৃত মায়ের নামে শিশুটির নাম রাখি। শিশুটির জন্য পটুয়াখালী জেলা প্রশাসন, সমাজসেবা এবং মহিলা বিষয় অধিদফতরসহ অনেকেই হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। শিশুটি দত্তক নিতেও ইতোমধ্যে অনেকে ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

এ বিষয়ে পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরী বলেন, আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে যেকোনো ব্যক্তি শিশুটিকে দত্তক নিতে পারবেন।

পটুয়াখালী সমাজসেবা দফতরের উপ-পরিচালক এসএম শাহাজাদা বলেন, শিশুটিকে বরিশালের শিশু হোম কেয়ারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী শিশুটি বরিশালের আগৈলঝড়া শিশু হোম কেয়ারে থাকবে।

পোস্ট শেয়ার করুন

নিজের মায়ের নামে ‘পাগলির সন্তানের’ নাম রাখলেন ওসি

আপডেটের সময় : ০৯:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ জানুয়ারী ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: অজ্ঞাত পাগলির কোলজুড়ে আসা নবজাতকের নাম নিজের মায়ের নামে ‘ফাতেমা রহমান’ রেখে শিশুটিকে মায়ের মর্যাদা দিলেন পটুয়াখালী সদর থানা পুলিশের ওসি মোস্তাফিজুর রহমান।

পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার পর রোববার শিশুটিকে আনুষ্ঠানিকভাবে পটুয়াখালী সমাজসেবা দফতরের কাছে হস্তান্তরের সময় তার এই নাম রাখেন ওসি।

১৪ জানুয়ারি সদর উপজেলার কমলাপুর এলাকায় প্রসব বেদনায় কাতরানো অজ্ঞাত এক মানসিক ভারসাম্যহীন নারীকে দ্রুত পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন ওসি মোস্তাফিজুর রহমান।

ওই দিনই ওই নারী একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়ে উধাও হয়ে যায়। সেই সময় থেকে ওসি মোস্তাফিজুর রহমান শিশুটির দেখাশোনা করে আসছেন।

ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, একাধিক স্থানে খোঁজ করেও শিশুটির মাকে পাওয়া যায়নি। ১৪ দিন চিকিৎসা ও লালন-পালন শেষে রোববার হাসপাতাল থেকে শিশুটিকে সমাজসেবা দফতরের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ সময় আবেগাপ্লুত হয়ে কেঁদে ফেলেন ওসি।

তিনি বলেন, হস্তান্তরের সময় মা হারা এই নবজাতকের পরিচয় নিয়ে জটিলতা দেখা দিলে আমি আমার মৃত মায়ের নামে শিশুটির নাম রাখি। শিশুটির জন্য পটুয়াখালী জেলা প্রশাসন, সমাজসেবা এবং মহিলা বিষয় অধিদফতরসহ অনেকেই হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। শিশুটি দত্তক নিতেও ইতোমধ্যে অনেকে ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

এ বিষয়ে পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরী বলেন, আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে যেকোনো ব্যক্তি শিশুটিকে দত্তক নিতে পারবেন।

পটুয়াখালী সমাজসেবা দফতরের উপ-পরিচালক এসএম শাহাজাদা বলেন, শিশুটিকে বরিশালের শিশু হোম কেয়ারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী শিশুটি বরিশালের আগৈলঝড়া শিশু হোম কেয়ারে থাকবে।