ঢাকা , শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
লিসবনে আত্মপ্রকাশ হয় সামাজিক সংগঠন “গোলাপগঞ্জ কমিউনিটি কেয়ারর্স পর্তুগাল “ উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল

জুড়ীর ফুলতলা ইউপি নির্বাচনে দলীয় প্রতীক নিয়ে দুই প্রার্থীর লড়াই

দেশদিগন্ত ডেক্স
  • আপডেটের সময় : ০৫:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭
  • / ১১৩১ টাইম ভিউ

জুড়ী উপজেলার ৭নং ফুলতলা ইউনিয়নের নির্বাচনের তফশীল ঘোষণা করা হয়েছে। ঘোষিত তফশীল অনুযায়ী আগামী ২৮ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তফশীল ঘোষনার পর থেকেই আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সমগ্র ইউনিয়ন জুড়ে বইছে নির্বাচনী হাওয়া। দলীয় প্রতীক নৌকা পেতে দু’জন হেভিয়েট প্রার্থী শক্ত অবস্থানে থাকায় ইউনিয়ন জুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

কে পাচ্ছেন দলীয় প্রতিক নৌকা এ নিয়ে ভোটারসহ রাজনৈতিক নেতা কর্মীদের মধ্যে চলছে চুলছেড়া বিশ্লেষণ। দলীয় প্রতিক নৌকা পেতে দু’জন প্রার্থীর কেউ কাউকে ছাড় দিতে নারাজ। এদিকে স্থানীয় ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দকে নিয়ে জাতীয় সংসদের হুইপ আলহাজ্ব শাহাব উদ্দিন এমপি গত ১৭ নভেম্বর এক সমঝোতা বৈঠকে বসেন। বৈঠকে আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে চেয়ারম্যান পদে একাধিক প্রার্থী থাকায় জেলা ও উপজেলা নেতৃবৃন্দ তাদের সকলকে সমঝোতার প্রস্তাব দিয়ে বক্তব্য দেন। ওই বৈঠকে অন্যান্য প্রার্থীরা সমঝোতা প্রস্তাব মেনে নিয়ে তাদের প্রার্থীতা ঘোষণা প্রত্যাহার করে নিলেও হেভিওয়েট দুই প্রার্থী সমঝোতায় পৌঁছতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত বিষয়টি কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের উপর ছেড়ে দেয়া হয়।

এখন দেখার বিষয় কেন্দ্র থেকে কি সিদ্ধান্ত আসে। এ নিয়ে ভোটারদের মাঝেও চলছে নানা রকম গুঞ্জন। আসন্ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীক পেতে জোর তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন ফুলতলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক (বর্তমান চেয়ারম্যান) মোঃ ফয়াজ আলী এবং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক সাবেক (৪ বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান) মোঃ মাসুক আহমদ।

হেভিয়েট দু’প্রার্থীর লড়াইয়ের ঘোষণায় স্থায়ীয় পর্যায়ের দলীয় নেতা কর্মীরাও বিভ্রান্তির মধ্যে রয়েছেন। স্থানীয় নেতৃবৃন্দের দাবী যদি তৃণমূলের জরিপ নিয়ে দলীয় প্রতীক বরাদ্দ করা হয় তবে প্রতীকের সম্মান থাকবে। ফুলতলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শ্রী কাঞ্চন চক্রবর্তী, যুবলীগ সভাপতি আতিকুর রহমান সুহেল, এলবিন টিলা চা বাগান পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি সুনিল বুনার্জী, সাধারণ সম্পাদক কালীচরণ মুন্ডা, ফুলতলা চা বাগান পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি বাবু চাষা, সাধারণ সম্পাদক সামারু বুনার্জী, রাজকী চা বাগান পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি লক্ষিন্দ্র রিকমনসহ অনেকে জানান, আমরা কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের দিকে চেয়ে আছি, দল যাকে মনোনয়ন দিবে আমরা তার পক্ষে কাজ করব।#

পোস্ট শেয়ার করুন

জুড়ীর ফুলতলা ইউপি নির্বাচনে দলীয় প্রতীক নিয়ে দুই প্রার্থীর লড়াই

আপডেটের সময় : ০৫:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭

জুড়ী উপজেলার ৭নং ফুলতলা ইউনিয়নের নির্বাচনের তফশীল ঘোষণা করা হয়েছে। ঘোষিত তফশীল অনুযায়ী আগামী ২৮ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তফশীল ঘোষনার পর থেকেই আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সমগ্র ইউনিয়ন জুড়ে বইছে নির্বাচনী হাওয়া। দলীয় প্রতীক নৌকা পেতে দু’জন হেভিয়েট প্রার্থী শক্ত অবস্থানে থাকায় ইউনিয়ন জুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

কে পাচ্ছেন দলীয় প্রতিক নৌকা এ নিয়ে ভোটারসহ রাজনৈতিক নেতা কর্মীদের মধ্যে চলছে চুলছেড়া বিশ্লেষণ। দলীয় প্রতিক নৌকা পেতে দু’জন প্রার্থীর কেউ কাউকে ছাড় দিতে নারাজ। এদিকে স্থানীয় ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দকে নিয়ে জাতীয় সংসদের হুইপ আলহাজ্ব শাহাব উদ্দিন এমপি গত ১৭ নভেম্বর এক সমঝোতা বৈঠকে বসেন। বৈঠকে আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে চেয়ারম্যান পদে একাধিক প্রার্থী থাকায় জেলা ও উপজেলা নেতৃবৃন্দ তাদের সকলকে সমঝোতার প্রস্তাব দিয়ে বক্তব্য দেন। ওই বৈঠকে অন্যান্য প্রার্থীরা সমঝোতা প্রস্তাব মেনে নিয়ে তাদের প্রার্থীতা ঘোষণা প্রত্যাহার করে নিলেও হেভিওয়েট দুই প্রার্থী সমঝোতায় পৌঁছতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত বিষয়টি কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের উপর ছেড়ে দেয়া হয়।

এখন দেখার বিষয় কেন্দ্র থেকে কি সিদ্ধান্ত আসে। এ নিয়ে ভোটারদের মাঝেও চলছে নানা রকম গুঞ্জন। আসন্ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীক পেতে জোর তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন ফুলতলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক (বর্তমান চেয়ারম্যান) মোঃ ফয়াজ আলী এবং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক সাবেক (৪ বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান) মোঃ মাসুক আহমদ।

হেভিয়েট দু’প্রার্থীর লড়াইয়ের ঘোষণায় স্থায়ীয় পর্যায়ের দলীয় নেতা কর্মীরাও বিভ্রান্তির মধ্যে রয়েছেন। স্থানীয় নেতৃবৃন্দের দাবী যদি তৃণমূলের জরিপ নিয়ে দলীয় প্রতীক বরাদ্দ করা হয় তবে প্রতীকের সম্মান থাকবে। ফুলতলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শ্রী কাঞ্চন চক্রবর্তী, যুবলীগ সভাপতি আতিকুর রহমান সুহেল, এলবিন টিলা চা বাগান পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি সুনিল বুনার্জী, সাধারণ সম্পাদক কালীচরণ মুন্ডা, ফুলতলা চা বাগান পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি বাবু চাষা, সাধারণ সম্পাদক সামারু বুনার্জী, রাজকী চা বাগান পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি লক্ষিন্দ্র রিকমনসহ অনেকে জানান, আমরা কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের দিকে চেয়ে আছি, দল যাকে মনোনয়ন দিবে আমরা তার পক্ষে কাজ করব।#