ঢাকা , শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে… এই অভ্যাসগুলোর চর্চা নিয়মিত করা উচিৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য থাকা জরুরি কেনো ? পুনাক এর উদ্যোগে দুস্হ ও অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করা হয়েছে কুলাউড়ার টিলাগাঁও এ সরকারি গাছ বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক লটারি বাইক জিতলো মা’ সে কারণে কপাল পুড়লো মেয়ের ফজরের নামাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুকুর দলের আক্রমনে প্রান গেলো ইজাজুলের সাবেক সাংসদ সেলিমা আহমাদ মেরীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামিলীগের মতবিনিময় সভা

কুলাউড়ার কর্মধায় মামলা করায় একটি নিরীহ পরিবারকে সমাজচ্যূত করে রেখেছে প্রভাবশালীরা !

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৮:০১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২০
  • / ১৯৮১ টাইম ভিউ

কুলাউড়া উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নের পূর্ব ফটিকগুলি গ্রামে প্রভাবশালীদের কাছ থেকে জায়গা দখল মুক্ত করতে আদালতে মামলা দায়ের করায় একটি নিরীহ পরিবারকে গ্রামের পঞ্চায়েত থেকে সমাজচ্যূত করে রেখেছে একটি স্থানীয় প্রভাবশালী মহল। এছাড়াও মামলা তুলে নেওয়ার জন্য ওই পরিবারকে নানান ভাবে হুমকি ধামকি দিচ্ছেনন তারা।
মামলা ও বাদীর অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, কর্মধা ইউনিয়নের পূর্ব ফটিকগুলি গ্রামের মৃত নিয়ামত আলীর পুত্র হাসান আলীর মালিকানাধীন ৩৩ শতক কৃষি জায়গা বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (স্কুলঘর) দেখিয়ে একই এলাকার প্রভাবশালী মাস্টার সুরুজ আলী ও হারিছ আলী গংরা ভোগ দখিলের চেষ্টা চালান। এ ঘটানায় তাদের বিরুদ্বে মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ৫নং আদালতে গত মাসের ১ জানুয়ারী এড, হেলাল আহমদের মাধ্যমে একটি ফৌজদারি মামলা নং (৪)দায়ের করেন হাসান আলী। যদিও কুলাউড়া সহকারী শিক্ষা অফিসার মামুনুর রহমান জানিয়েছেন পূর্ব ফটিকগুলি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এ নামে কোনো স্কুল সেখানে নেই। এদিকে মামলা দায়েরের পর থেকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য প্রায় সময় নানা হুমকি দিচ্ছেন আসামী সুরুজ ও হারিছ গংরা। এক পর্যায়ে হিংসার ভষিভূত হয়ে তারা কৌশলে হাসান আলীর পরিবারকে গ্রামের পঞ্চায়েত থেকে নানা অজুহাত দেখিয়ে সমাজচ্যূত করে দেয়, এমন কি কিছু দিন আগে হাসান আলীর মায়ের মিলাদ মাহফিল (শিন্নী) ও করতে দেয়নি বলে হাসান আলীর পরিবার অভিযোগ করেন। তাদের এমন আচরণে প্রভাবশালীদের বিরুদ্বে প্রতিকার চেয়ে আবারো মৌলভীবাজার আদালতে (১০৭) ধারায় গত ১৪ ফেব্রুয়ারি আরেকটি মামলা (নং ৩৬) দায়ের করেছেন ওই ভুক্তভোগী। এ ব্যাপারে বিবাদী রশিদ আলী বলেন, হাসান আলীর অভিযোগ গুলো সত্য নয়, তারা স্বেচ্ছায় গ্রামের পঞ্চায়েত থেকে বের হয়ে গেছে। তারা উল্টো মামলা দিয়ে আমাদেরকে হয়রানী করছে।
এ ব্যাপারে পার্শ্ববর্তী নলডরী গ্রামের সরদার নানু মিয়া ও ফজল মিয়া আব্দুল আলী জানান,হাছন আলী এবং তার ছোট ভাই জহুর আলীকে তাদের গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে সঠিক । তারা অসহায় হয়ে আমাদের নলডরী গ্রামের পঞ্চায়েতের সাথে যোগদিতে চেয়েছিলো কিন্তু তাদের সাথে যাদের মামলা নিয়ে বিরোধ চলছে তারা আমাদের পঞ্চায়েতে না ঢুকানোর জন্য নিষেধ দিচ্ছেন।এবং তার মায়ের মৃত্যুর সিন্নি অনুষ্ঠানেও তারা বাধা সৃষ্টি করেছে বলে শুনেছি।এছাড়াও আমরা মামলার সাক্ষী থাকায় নানা ভাবে হুমকি দিচ্ছে তারা।

 

পোস্ট শেয়ার করুন

কুলাউড়ার কর্মধায় মামলা করায় একটি নিরীহ পরিবারকে সমাজচ্যূত করে রেখেছে প্রভাবশালীরা !

আপডেটের সময় : ০৮:০১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২০

কুলাউড়া উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নের পূর্ব ফটিকগুলি গ্রামে প্রভাবশালীদের কাছ থেকে জায়গা দখল মুক্ত করতে আদালতে মামলা দায়ের করায় একটি নিরীহ পরিবারকে গ্রামের পঞ্চায়েত থেকে সমাজচ্যূত করে রেখেছে একটি স্থানীয় প্রভাবশালী মহল। এছাড়াও মামলা তুলে নেওয়ার জন্য ওই পরিবারকে নানান ভাবে হুমকি ধামকি দিচ্ছেনন তারা।
মামলা ও বাদীর অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, কর্মধা ইউনিয়নের পূর্ব ফটিকগুলি গ্রামের মৃত নিয়ামত আলীর পুত্র হাসান আলীর মালিকানাধীন ৩৩ শতক কৃষি জায়গা বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (স্কুলঘর) দেখিয়ে একই এলাকার প্রভাবশালী মাস্টার সুরুজ আলী ও হারিছ আলী গংরা ভোগ দখিলের চেষ্টা চালান। এ ঘটানায় তাদের বিরুদ্বে মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ৫নং আদালতে গত মাসের ১ জানুয়ারী এড, হেলাল আহমদের মাধ্যমে একটি ফৌজদারি মামলা নং (৪)দায়ের করেন হাসান আলী। যদিও কুলাউড়া সহকারী শিক্ষা অফিসার মামুনুর রহমান জানিয়েছেন পূর্ব ফটিকগুলি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এ নামে কোনো স্কুল সেখানে নেই। এদিকে মামলা দায়েরের পর থেকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য প্রায় সময় নানা হুমকি দিচ্ছেন আসামী সুরুজ ও হারিছ গংরা। এক পর্যায়ে হিংসার ভষিভূত হয়ে তারা কৌশলে হাসান আলীর পরিবারকে গ্রামের পঞ্চায়েত থেকে নানা অজুহাত দেখিয়ে সমাজচ্যূত করে দেয়, এমন কি কিছু দিন আগে হাসান আলীর মায়ের মিলাদ মাহফিল (শিন্নী) ও করতে দেয়নি বলে হাসান আলীর পরিবার অভিযোগ করেন। তাদের এমন আচরণে প্রভাবশালীদের বিরুদ্বে প্রতিকার চেয়ে আবারো মৌলভীবাজার আদালতে (১০৭) ধারায় গত ১৪ ফেব্রুয়ারি আরেকটি মামলা (নং ৩৬) দায়ের করেছেন ওই ভুক্তভোগী। এ ব্যাপারে বিবাদী রশিদ আলী বলেন, হাসান আলীর অভিযোগ গুলো সত্য নয়, তারা স্বেচ্ছায় গ্রামের পঞ্চায়েত থেকে বের হয়ে গেছে। তারা উল্টো মামলা দিয়ে আমাদেরকে হয়রানী করছে।
এ ব্যাপারে পার্শ্ববর্তী নলডরী গ্রামের সরদার নানু মিয়া ও ফজল মিয়া আব্দুল আলী জানান,হাছন আলী এবং তার ছোট ভাই জহুর আলীকে তাদের গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে সঠিক । তারা অসহায় হয়ে আমাদের নলডরী গ্রামের পঞ্চায়েতের সাথে যোগদিতে চেয়েছিলো কিন্তু তাদের সাথে যাদের মামলা নিয়ে বিরোধ চলছে তারা আমাদের পঞ্চায়েতে না ঢুকানোর জন্য নিষেধ দিচ্ছেন।এবং তার মায়ের মৃত্যুর সিন্নি অনুষ্ঠানেও তারা বাধা সৃষ্টি করেছে বলে শুনেছি।এছাড়াও আমরা মামলার সাক্ষী থাকায় নানা ভাবে হুমকি দিচ্ছে তারা।