ঢাকা , সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে…

কচুয়া উপজেলার ৬নং ইউনিয়নে উন্নয়নের নামে ভোগান্তী শাহী ইমরান শিকদার

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ০৬:৩৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৯
  • / ১১৬৯ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ  এটি হচ্ছে তেতৈয়া ইউনিয়ন কাউন্সিল থেকে দারচর হয়ে উজানী যাওয়ার রাস্তা । আগে এই রাস্তা দিয়ে ঢাকা থেকে মাধাইয়া, নবাবপুর ও উজানী হয়ে প্রাইভেট কার আসতে পারতো কিন্ত উন্নয়ণ হওয়ায় এখন আর গাড়ী আসা সম্ভব না । কারন রাস্তার উপর এই কালভার্টটি নির্মান করে দুই পাশের সংযোগ সড়ক ঠিকমতো ভরাট না করায় রাস্তাটি সরু হয়ে যান চলাচলের অনপোযোগী হয়ে গেছে । বলতে গেলে রাস্তাটি এখন রীতিমতো অকেজো হয়ে গেছে । এখন আর গাড়ী তো দুরের কথা মানুষের চলাচলই দায় হয়ে গেছে । একটা রিক্সাও যেতে পারেনা । অভিযোগ উঠেছে কালভার্টের নামে এখানে নাকি প্রায় ৫০ লাখ টাকা লোপাট করা হয়েছে । এলাকাবসীর দাবী সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে উর্ধতন কতৃপক্ষ যেন অবিলম্বে দুর্নীতিবাজ ঠিকাদারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করে রাস্তাটিকে যথাযথ সংস্কারের ব্যবস্থা করেন । যাতে আগের মতো স্বাভাবিক যান চলাচলের উপযোগী হয় ।

পোস্ট শেয়ার করুন

কচুয়া উপজেলার ৬নং ইউনিয়নে উন্নয়নের নামে ভোগান্তী শাহী ইমরান শিকদার

আপডেটের সময় : ০৬:৩৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ  এটি হচ্ছে তেতৈয়া ইউনিয়ন কাউন্সিল থেকে দারচর হয়ে উজানী যাওয়ার রাস্তা । আগে এই রাস্তা দিয়ে ঢাকা থেকে মাধাইয়া, নবাবপুর ও উজানী হয়ে প্রাইভেট কার আসতে পারতো কিন্ত উন্নয়ণ হওয়ায় এখন আর গাড়ী আসা সম্ভব না । কারন রাস্তার উপর এই কালভার্টটি নির্মান করে দুই পাশের সংযোগ সড়ক ঠিকমতো ভরাট না করায় রাস্তাটি সরু হয়ে যান চলাচলের অনপোযোগী হয়ে গেছে । বলতে গেলে রাস্তাটি এখন রীতিমতো অকেজো হয়ে গেছে । এখন আর গাড়ী তো দুরের কথা মানুষের চলাচলই দায় হয়ে গেছে । একটা রিক্সাও যেতে পারেনা । অভিযোগ উঠেছে কালভার্টের নামে এখানে নাকি প্রায় ৫০ লাখ টাকা লোপাট করা হয়েছে । এলাকাবসীর দাবী সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে উর্ধতন কতৃপক্ষ যেন অবিলম্বে দুর্নীতিবাজ ঠিকাদারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করে রাস্তাটিকে যথাযথ সংস্কারের ব্যবস্থা করেন । যাতে আগের মতো স্বাভাবিক যান চলাচলের উপযোগী হয় ।