ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পোপের বাংলাদেশ সফর, নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক :
  • আপডেটের সময় : ১২:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ নভেম্বর ২০১৭
  • / ৪৮৭ টাইম ভিউ

পোপের বাংলাদেশ সফর, নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে

পোপ ফ্রান্সিস বাংলাদেশে আগমন উপলক্ষে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। জানিয়েছে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।ডিএমপি’র সদর দপ্তরে রোববার  নিরাপত্তা, আইনশৃঙ্খলা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্তে এক সমন্বয় সভায় তিনি এ কথা জানান।

পুলিশ কমিশনার বলেন, পোপ ফ্রান্সিস সম্মানিত ব্যক্তি। জাতীয় স্বার্থে তাকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেয়া হবে। এজন্য সফরের সব ভেন্যু, হোটেল ও বিমানবন্দরে থাকবে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এছাড়া স্ট্যান্ডবাই হিসেবে প্রস্তুত থাকবে সোয়াট ও বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের সদস্যরা।তিনি আরো বলেন, বিদেশি অতিথিদের জন্য নির্ধারিত হোটেল, সম্মেলন স্থলসহ প্রত্যেকটি ভেন্যু সুইপিংসহ সিসি ক্যামেরা দিয়ে মনিটরিং করা হবে। আবাসনস্থল ও যাতায়াত রাস্তা নিরাপত্তা ব্যবস্থা, রুফটপ ডিউটি, মোবাইল ডিউটি মোতায়েন থাকবে।সমন্বয় সভায় পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধি ও সরকারি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরাসহ বাংলাদেশে পোপের সফর উপলক্ষে গঠিত নিরাপত্তা ও স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক কমিটির আহ্বায়ক নির্মল রোজারিও এবং খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। পোপ ফ্রান্সিস আগামী ৩০ নভেম্বর তিনদিনের সফরে বাংলাদেশে আসছেন। আনুষ্ঠানিকতা শেষে আগামী ২ ডিসেম্বর তিনি ফিরে যাবেন। সূত্র: বাসস

পোস্ট শেয়ার করুন

পোপের বাংলাদেশ সফর, নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে

আপডেটের সময় : ১২:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ নভেম্বর ২০১৭

পোপ ফ্রান্সিস বাংলাদেশে আগমন উপলক্ষে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। জানিয়েছে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।ডিএমপি’র সদর দপ্তরে রোববার  নিরাপত্তা, আইনশৃঙ্খলা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্তে এক সমন্বয় সভায় তিনি এ কথা জানান।

পুলিশ কমিশনার বলেন, পোপ ফ্রান্সিস সম্মানিত ব্যক্তি। জাতীয় স্বার্থে তাকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেয়া হবে। এজন্য সফরের সব ভেন্যু, হোটেল ও বিমানবন্দরে থাকবে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এছাড়া স্ট্যান্ডবাই হিসেবে প্রস্তুত থাকবে সোয়াট ও বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের সদস্যরা।তিনি আরো বলেন, বিদেশি অতিথিদের জন্য নির্ধারিত হোটেল, সম্মেলন স্থলসহ প্রত্যেকটি ভেন্যু সুইপিংসহ সিসি ক্যামেরা দিয়ে মনিটরিং করা হবে। আবাসনস্থল ও যাতায়াত রাস্তা নিরাপত্তা ব্যবস্থা, রুফটপ ডিউটি, মোবাইল ডিউটি মোতায়েন থাকবে।সমন্বয় সভায় পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধি ও সরকারি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরাসহ বাংলাদেশে পোপের সফর উপলক্ষে গঠিত নিরাপত্তা ও স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক কমিটির আহ্বায়ক নির্মল রোজারিও এবং খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। পোপ ফ্রান্সিস আগামী ৩০ নভেম্বর তিনদিনের সফরে বাংলাদেশে আসছেন। আনুষ্ঠানিকতা শেষে আগামী ২ ডিসেম্বর তিনি ফিরে যাবেন। সূত্র: বাসস