আপডেট

x


৮০ ও ২০২০ দশকের সংমিশ্রনে কুলাউড়ায় আত্মপ্রকাশ করলো জুবেদ চৌধুরী ক্রীড়া ও ফুটবল একাডেমি

শুক্রবার, ১৬ অক্টোবর ২০২০ | ৯:১৩ অপরাহ্ণ | 152 বার

৮০ ও ২০২০ দশকের সংমিশ্রনে কুলাউড়ায় আত্মপ্রকাশ করলো জুবেদ চৌধুরী ক্রীড়া ও ফুটবল একাডেমি

৮০ দশক ও ২০২০ দশকের সংমিশ্রনে কুলাউড়ায় আত্মপ্রকাশ করলো জুবেদ চৌধুরী ক্রীড়া ও ফুটবল একাডেমি

সবলতাই মানুষের জন্ম মুহুর্তের অঙ্গীকার । খেলা-ধুলার মধ্যেই মানুষ খুঁজে পায় জীবন বিকাশের উম্মুক্ত বিশালতা ।
ক্রীড়াজগতে নতুন প্রতিভা সৃষ্টির লক্ষে কুলাউড়া উপজেলায় ফুটবল ট্টেনিং একাডেমির আত্মপ্রকাশ ঘটেছে।
এ উপলক্ষে কুলাউড়া শহরে বুধবার ( ১৪ অক্টোবর ) বিকালে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।
কুলাউড়ার ক্রীড়াঙ্গনের মানোন্নয়ন ও নতুন প্রজন্ম থেকে প্রতিভাবান খেলোয়াড় সৃষ্টির লক্ষ্যে নতুন পুরাতন ক্রীড়াসংগঠক এবং ক্রীড়া ব্যাক্তিত্বদের সমন্বয়ে আত্মপ্রকাশ হয়েছে ‘জুবেদ চৌধুরী ক্রীড়া ও ফুটবল একাডেমী।বুধবার সন্ধ্যায় পৌরশহরের কিচেন ক্লাব রেস্টুরেন্টে একাডেমীর আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
এমাদুল মান্নান চৌধুরী (তাহরাম) এর অক্লান্ত প্রচষ্টায় কুলাউড়ার সাবেক খেলোয়ার ও ক্রীড়াবিদ দের সাথে যোগাযোগ করে সবার মতামতের বিত্তিতে,উপজেলার প্রবীণ ও নতুন প্রজন্মের ক্রীড়া সংগঠকদের উপস্থিতে একাডেমীর আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মপ্রকাশ ও একাডেমি পরিচালনায় বিভিন্ন পর্যায়ের কমিটি ঘোষণা করেন প্রবীণ ক্রীড়া সংগঠক মো. ফয়জুর রহমান ছুরুক।
ফুটবলার মো. আব্দুছ ছালাম ও কাবুল পালের যৌথ সঞ্চালনায় এসময় একাডেমীর সদস্য ডা. অরুনাভ দে, আবুল খয়ের ফয়ছল, শফিক মিয়া আফিয়ান, স্বপন দেব রতন, আব্দুল মতিন, মো. ছুরুক, মো. জামান আহমেদ, বাবরুল ইসলাম বাবলু, অনন্ত বিশ্বাস, শওকত হোসেন, নাছিরুল হক, হামিদুর রহমান চৌধুরী মুরাদ, এনায়েত জিল্লুল কবির বদরুল, মুসা আহমদ সুয়েট, রিয়াজ আহমদ সিপন, সাহেদুল ইসলাম শাহিন, ইঞ্জিনিয়ার মিজানুর রহমান ও খন্দকার সাইফুর রহমান আফজলের উপস্থিতিতে একাডেমির পরিচালনা, উপদেষ্টা, পৃষ্ঠপোষক ও মাঠ প্রশিক্ষণ কমিটি ঘোষণা করা হয়।



অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এম শাকিল রশীদ চৌধুরী, আজিজুল ইসলাম, মো. নাজমুল ইসলাম, তাজুল ইসলাম, এস আলম সুমন, আলাউদ্দিন কবির, নাজমুল বারী সোহেল, শাকির আহমদ, সুমন আহমদ, ইউসুফ আহমদ ইমন ও এস আর চৌধুরী অনি। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সংগঠক নুরুল ইসলাম ইমন, আবুল কাশেম সমছু।
জুবেদ চৌধুরী ক্রীড়া ও ফুটবল একাডেমী পরিচালনার জন্য এমাদুল মান্নান চৌধুরী (তাহরাম), মোঃ মুহিবুর রহমান বুলবুল, মেজর (অবঃ) নুরুল মান্নান চৌধুরী তারাজ, মাসুদুর রহমান শ্যামল ও খন্দকার সাইফুর রহমান আফজলকে পরিচালক করে আরো ১২জন সদস্য নিয়ে পরিচালনা এবং কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা করা হয়। এই কমিটির সদস্যবৃন্দ হলেন ডা. অরুনাভ দে, স্বপন দেব রতন, আলী আকবর, মো. আব্দুস ছালাম, কাবুল পাল, মো. সুরুক, শফিক মিয়া আফিয়ান, ইঞ্জিনিয়ার মিজানুর রহমান, আহসানুজ্জামান রাসেল, রাশেদুল ইসলাম রুবেল, জুয়েনা খানম পপি।

এছাড়াও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সাবেক অতিরিক্ত সচিব এম আব্দুর রউফ, লে কর্ণেল (অব.) শফি আহমেদ, লে কর্ণেল (অব.) আবুল খায়ের নাজিমুল ইসলাম, বাংলাদেশ স্পোর্টস জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মোস্তফা মামুন, যুক্তরাজ্য প্রবাসী কেফায়েত হোসন খান, আবুল খয়ের ফয়ছল আব্দুল হাই মন্টু, সামছুল আরিফিন চৌধুরী, ফয়জুর রহমান সুরুক, গিয়াস উদ্দিন মান্না ও মতিউর রহমান মতিনকে সদস্য করে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্টা কমিটি ঘোষণা করা হয়।
মাঠ পর্যায়ে একাডেমীর প্রশিক্ষণ কার্য পরিচালনার জন্য এনায়েত জিল্লুর কবির বদরুল, মুসা আহমদ সুয়েট, হামিদুর রহমান চৌধুরী মুরাদ, অনন্ত বিশ্বাস, সাহেদুল ইসলাম শাহিন, তাজুল ইসলাম সাইকুল, ফখরুল আমিন চৌধুরী মিছলু, সুহেল আহমদ, জামাল উদ্দিন, শওকত হোসেন, আমির খছরু, রিয়াজ আহমদ সিপন, বাবরুল ইসলাম বাবরু, জাকির হোসেনকে সদস্য করে মাঠ ও প্রশিক্ষন কমিটি গঠন করা হয়।

একাডেমীর কার্যক্রমকে গতিশীল ও তরান্বিত করতে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ ইউরোপ এবং মধ্যপ্রাচ্যে বসবাসরত প্রবাসীদের সমন্বয়ে ৫০ সদস্য বিশিষ্ট একাডেমীর পৃষ্ঠপোষক কমিটি গঠন করা হয়। পৃষ্ঠপোষক কমিটির সদস্যবৃন্দরা হলেন, যুক্তরাজ্য প্রবাসী জমশেদ খাঁন মিট, এ কে আহমদ জুয়েল, লিয়াকত আলী, সামছুদ্দিন জামাল, বাপ্পী খাঁন, নাসের চৌধুরী, হাসান খাঁ^ন রিপন, মহিতুর রহমান চৌধুরী রিপন, ইমরান শফি, রুকন চৌধুরী, আশ্হাব মো. চৌধুরী, যুক্তারষ্ট্র প্রবাসী এনামুল ইসলাম এনাম, সিরাজ উদ্দিন আহমদ সোহাগ, আরিফ আহমেদ আবসার, রাশেদুল মান্নান চৌধুরী, শাহেদ চৌধুরী, জামাল উদ্দিন আহমেদ লিটন, ময়নুর রহমান সুয়েব, কয়ছর রশীদ, সাইদুল হক লিটু, মো. মিসবাউর রহমান এনাম, আশরাফুজ্জামান, সুমন রহমান, ফজলে আবিদ খান রাব্বি, জাবেদ আহমেদ, ইতালী প্রবাসী নাজমুল হোসেন, মনসুর রানা মিতুল(কুয়েত প্রবাসী),ফ্রান্স প্রবাসী শাহজাহান উদ্দিন ও লুৎফুর রহমান বাবু, রাজু মজুমদার (দোবাই র্প্রবাসী),আফজালুর রহমান নান্নু কাতার প্রবাসী ),খালেদ আহমেদ (কাতার প্রবাসী)পর্তুগাল প্রবাসী সৈয়দ তানভীর মোজাম্মেল শোভন, পোল্যান্ড প্রবাসী খন্দকার রেজাউর রহমান খালেদ, স্পেন প্রবাসী বকুল খাঁ^ন, জার্মান প্রবাসী খলিলুর রহমান খলিল, কানাডা প্রবাসী মুহিব খাঁন ও রাহুল চৌধুরী, সৌদি আরব প্রবাসী মো. ইউনুস, সংযুক্ত আরব আমিরাত (দুবাই) প্রবাসী রাজু মজুমদার, মনসুর রানা, কাতার প্রবাসী মির্জা সাঈদ, আফজালুর রহমান নান্নু, খালেদ আহমেদ ও রাহিদ আহমেদ।

প্রতিষ্টাতা এমদাদুল মান্নান চৌধুরী দেশদিগন্ত কে বলেন আমি খেলাপ্রিয় ছিলাম শিশুকাল থেকেই নবীন চন্দ্র মাটে খেলে বড় হয়েছি. তারপর ক্যাডেট কলেজ জীবনে ক্রীড়াঙ্গনে ছিলাম নেতৃত্বে।
বলা হয়ে থাকে স্বাস্হ্যই সম্পদ,আর সুস্হ শরীরই মানুষকে দান করতে পারে দুর্দম তেজস্বিতা ও উদম্য উদ্দীপনা,জীবনে স্বাস্হ্যকর অপরিহার্যতার কথা বিবেচনা করে মানুষ সুস্হ শরীরের জন্য যুগ যুগ ধরে খেলা ধুলায় অনুশীলন করে আসছে । কুলাউড়ার ক্রীড়াঙ্গন কে জাগ্রত করতে সবাই কে নিয়ে আমার এই উদ্দ্যোগ ।
মহান মুক্তিযুদ্ধের সময়ে মৌলভীবাজারের মুক্তিযোদ্ধাদের সমন্বয়ক ও সংগঠক এবং তৎকালীন বর্ষীয়ান রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব প্রয়াত জুবেদ চৌধুরীর নামে ‘জুবেদ চৌধুরী ক্রীড়া ও ফুটবল একাডেমী’ গঠন করা হয়েছে। কুলাউড়ার ক্রীড়াঙ্গন নিয়ে ছিলো আমার অনেক দিনের স্বপ্ন আপনারা সবাই তা পূরণ করলেন।
দার্শনিক ষ্টিও ওজনিয়াক বলেছেনে>
“আপনি যা করছেন যদি ভালোবাসেন এবং ওই কাজের সফলতার জন্য সব কিছু করতে ইচ্ছুক থাকেন, তাহলে তা হাতের নাগালে পৌছাবেই “ ।
আমার বিশ্বাস সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে তা এগিয়ে নিয়ে যাবে ।

৮০ দশক ও ২০২০ দশকের সংমিশ্রনে কুলাউড়ায় আত্মপ্রকাশ করলো জুবেদ চৌধুরী ক্রীড়া ও ফুটবল একাডেমি

সবলতাই মানুষের জন্ম মুহুর্তের অঙ্গীকার । খেলা-ধুলার মধ্যেই মানুষ খুঁজে পায় জীবন বিকাশের উম্মুক্ত বিশালতা ।
ক্রীড়াজগতে নতুন প্রতিভা সৃষ্টির লক্ষে কুলাউড়া উপজেলায় ফুটবল ট্টেনিং একাডেমির আত্মপ্রকাশ ঘটেছে।
এ উপলক্ষে কুলাউড়া শহরে বুধবার ( ১৪ অক্টোবর ) বিকালে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।
কুলাউড়ার ক্রীড়াঙ্গনের মানোন্নয়ন ও নতুন প্রজন্ম থেকে প্রতিভাবান খেলোয়াড় সৃষ্টির লক্ষ্যে নতুন পুরাতন ক্রীড়াসংগঠক এবং ক্রীড়া ব্যাক্তিত্বদের সমন্বয়ে আত্মপ্রকাশ হয়েছে ‘জুবেদ চৌধুরী ক্রীড়া ও ফুটবল একাডেমী।বুধবার সন্ধ্যায় পৌরশহরের কিচেন ক্লাব রেস্টুরেন্টে একাডেমীর আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
এমাদুল মান্নান চৌধুরী (তাহরাম) এর অক্লান্ত প্রচষ্টায় কুলাউড়ার সাবেক খেলোয়ার ও ক্রীড়াবিদ দের সাথে যোগাযোগ করে সবার মতামতের বিত্তিতে,উপজেলার প্রবীণ ও নতুন প্রজন্মের ক্রীড়া সংগঠকদের উপস্থিতে একাডেমীর আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মপ্রকাশ ও একাডেমি পরিচালনায় বিভিন্ন পর্যায়ের কমিটি ঘোষণা করেন প্রবীণ ক্রীড়া সংগঠক মো. ফয়জুর রহমান ছুরুক।
ফুটবলার মো. আব্দুছ ছালাম ও কাবুল পালের যৌথ সঞ্চালনায় এসময় একাডেমীর সদস্য ডা. অরুনাভ দে, আবুল খয়ের ফয়ছল, শফিক মিয়া আফিয়ান, স্বপন দেব রতন, আব্দুল মতিন, মো. ছুরুক, মো. জামান আহমেদ, বাবরুল ইসলাম বাবলু, অনন্ত বিশ্বাস, শওকত হোসেন, নাছিরুল হক, হামিদুর রহমান চৌধুরী মুরাদ, এনায়েত জিল্লুল কবির বদরুল, মুসা আহমদ সুয়েট, রিয়াজ আহমদ সিপন, সাহেদুল ইসলাম শাহিন, ইঞ্জিনিয়ার মিজানুর রহমান ও খন্দকার সাইফুর রহমান আফজলের উপস্থিতিতে একাডেমির পরিচালনা, উপদেষ্টা, পৃষ্ঠপোষক ও মাঠ প্রশিক্ষণ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এম শাকিল রশীদ চৌধুরী, আজিজুল ইসলাম, মো. নাজমুল ইসলাম, তাজুল ইসলাম, এস আলম সুমন, আলাউদ্দিন কবির, নাজমুল বারী সোহেল, শাকির আহমদ, সুমন আহমদ, ইউসুফ আহমদ ইমন ও এস আর চৌধুরী অনি। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সংগঠক নুরুল ইসলাম ইমন, আবুল কাশেম সমছু।
জুবেদ চৌধুরী ক্রীড়া ও ফুটবল একাডেমী পরিচালনার জন্য এমাদুল মান্নান চৌধুরী (তাহরাম), মোঃ মুহিবুর রহমান বুলবুল, মেজর (অবঃ) নুরুল মান্নান চৌধুরী তারাজ, মাসুদুর রহমান শ্যামল ও খন্দকার সাইফুর রহমান আফজলকে পরিচালক করে আরো ১২জন সদস্য নিয়ে পরিচালনা এবং কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা করা হয়। এই কমিটির সদস্যবৃন্দ হলেন ডা. অরুনাভ দে, স্বপন দেব রতন, আলী আকবর, মো. আব্দুস ছালাম, কাবুল পাল, মো. সুরুক, শফিক মিয়া আফিয়ান, ইঞ্জিনিয়ার মিজানুর রহমান, আহসানুজ্জামান রাসেল, রাশেদুল ইসলাম রুবেল, জুয়েনা খানম পপি।

এছাড়াও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সাবেক অতিরিক্ত সচিব এম আব্দুর রউফ, লে কর্ণেল (অব.) শফি আহমেদ, লে কর্ণেল (অব.) আবুল খায়ের নাজিমুল ইসলাম, বাংলাদেশ স্পোর্টস জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মোস্তফা মামুন, যুক্তরাজ্য প্রবাসী কেফায়েত হোসন খান, আবুল খয়ের ফয়ছল আব্দুল হাই মন্টু, সামছুল আরিফিন চৌধুরী, ফয়জুর রহমান সুরুক, গিয়াস উদ্দিন মান্না ও মতিউর রহমান মতিনকে সদস্য করে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্টা কমিটি ঘোষণা করা হয়।
মাঠ পর্যায়ে একাডেমীর প্রশিক্ষণ কার্য পরিচালনার জন্য এনায়েত জিল্লুর কবির বদরুল, মুসা আহমদ সুয়েট, হামিদুর রহমান চৌধুরী মুরাদ, অনন্ত বিশ্বাস, সাহেদুল ইসলাম শাহিন, তাজুল ইসলাম সাইকুল, ফখরুল আমিন চৌধুরী মিছলু, সুহেল আহমদ, জামাল উদ্দিন, শওকত হোসেন, আমির খছরু, রিয়াজ আহমদ সিপন, বাবরুল ইসলাম বাবরু, জাকির হোসেনকে সদস্য করে মাঠ ও প্রশিক্ষন কমিটি গঠন করা হয়।

একাডেমীর কার্যক্রমকে গতিশীল ও তরান্বিত করতে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ ইউরোপ এবং মধ্যপ্রাচ্যে বসবাসরত প্রবাসীদের সমন্বয়ে ৫০ সদস্য বিশিষ্ট একাডেমীর পৃষ্ঠপোষক কমিটি গঠন করা হয়। পৃষ্ঠপোষক কমিটির সদস্যবৃন্দরা হলেন, যুক্তরাজ্য প্রবাসী জমশেদ খাঁন মিট, এ কে আহমদ জুয়েল, লিয়াকত আলী, সামছুদ্দিন জামাল, বাপ্পী খাঁন, নাসের চৌধুরী, হাসান খাঁ^ন রিপন, মহিতুর রহমান চৌধুরী রিপন, ইমরান শফি, রুকন চৌধুরী, আশ্হাব মো. চৌধুরী, যুক্তারষ্ট্র প্রবাসী এনামুল ইসলাম এনাম, সিরাজ উদ্দিন আহমদ সোহাগ, আরিফ আহমেদ আবসার, রাশেদুল মান্নান চৌধুরী, শাহেদ চৌধুরী, জামাল উদ্দিন আহমেদ লিটন, ময়নুর রহমান সুয়েব, কয়ছর রশীদ, সাইদুল হক লিটু, মো. মিসবাউর রহমান এনাম, আশরাফুজ্জামান, সুমন রহমান, ফজলে আবিদ খান রাব্বি, জাবেদ আহমেদ, ইতালী প্রবাসী নাজমুল হোসেন, মনসুর রানা মিতুল(কুয়েত প্রবাসী),ফ্রান্স প্রবাসী শাহজাহান উদ্দিন ও লুৎফুর রহমান বাবু, রাজু মজুমদার (দোবাই র্প্রবাসী),আফজালুর রহমান নান্নু কাতার প্রবাসী ),খালেদ আহমেদ (কাতার প্রবাসী)পর্তুগাল প্রবাসী সৈয়দ তানভীর মোজাম্মেল শোভন, পোল্যান্ড প্রবাসী খন্দকার রেজাউর রহমান খালেদ, স্পেন প্রবাসী বকুল খাঁ^ন, জার্মান প্রবাসী খলিলুর রহমান খলিল, কানাডা প্রবাসী মুহিব খাঁন ও রাহুল চৌধুরী, সৌদি আরব প্রবাসী মো. ইউনুস, সংযুক্ত আরব আমিরাত (দুবাই) প্রবাসী রাজু মজুমদার, মনসুর রানা, কাতার প্রবাসী মির্জা সাঈদ, আফজালুর রহমান নান্নু, খালেদ আহমেদ ও রাহিদ আহমেদ।

প্রতিষ্টাতা এমদাদুল মান্নান চৌধুরী দেশদিগন্ত কে বলেন আমি খেলাপ্রিয় ছিলাম শিশুকাল থেকেই নবীন চন্দ্র মাটে খেলে বড় হয়েছি. তারপর ক্যাডেট কলেজ জীবনে ক্রীড়াঙ্গনে ছিলাম নেতৃত্বে।
বলা হয়ে থাকে স্বাস্হ্যই সম্পদ,আর সুস্হ শরীরই মানুষকে দান করতে পারে দুর্দম তেজস্বিতা ও উদম্য উদ্দীপনা,জীবনে স্বাস্হ্যকর অপরিহার্যতার কথা বিবেচনা করে মানুষ সুস্হ শরীরের জন্য যুগ যুগ ধরে খেলা ধুলায় অনুশীলন করে আসছে । কুলাউড়ার ক্রীড়াঙ্গন কে জাগ্রত করতে সবাই কে নিয়ে আমার এই উদ্দ্যোগ ।
মহান মুক্তিযুদ্ধের সময়ে মৌলভীবাজারের মুক্তিযোদ্ধাদের সমন্বয়ক ও সংগঠক এবং তৎকালীন বর্ষীয়ান রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব প্রয়াত জুবেদ চৌধুরীর নামে ‘জুবেদ চৌধুরী ক্রীড়া ও ফুটবল একাডেমী’ গঠন করা হয়েছে। কুলাউড়ার ক্রীড়াঙ্গন নিয়ে ছিলো আমার অনেক দিনের স্বপ্ন আপনারা সবাই তা পূরণ করলেন।
দার্শনিক ষ্টিও ওজনিয়াক বলেছেনে>
“আপনি যা করছেন যদি ভালোবাসেন এবং ওই কাজের সফলতার জন্য সব কিছু করতে ইচ্ছুক থাকেন, তাহলে তা হাতেম নাগালে পৌছাবেই “ ।
আমার বিশ্বাস সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে তা এগিয়ে নিয়ে যাবে ।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments


কানিহাটি প্লেয়ারস এসোসিয়েশন এর পুর্নাঙ্গ কমিটি গঠন

deshdiganto.com © 2019 কপিরাইট এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত

design and development by : http://webnewsdesign.com