ঢাকা , শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে… এই অভ্যাসগুলোর চর্চা নিয়মিত করা উচিৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য থাকা জরুরি কেনো ? পুনাক এর উদ্যোগে দুস্হ ও অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করা হয়েছে কুলাউড়ার টিলাগাঁও এ সরকারি গাছ বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক লটারি বাইক জিতলো মা’ সে কারণে কপাল পুড়লো মেয়ের ফজরের নামাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুকুর দলের আক্রমনে প্রান গেলো ইজাজুলের সাবেক সাংসদ সেলিমা আহমাদ মেরীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামিলীগের মতবিনিময় সভা

১১ বছরেই সব রেকর্ড ভাঙলেন

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৯:৪০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০১৯
  • / ৬৫৫ টাইম ভিউ

স্কাই ব্রাউন। যুক্তরাজ্যের সবচেয়ে কমবয়সী অলিম্পিয়ানের খাতায় নাম লেখাতে যাচ্ছেন ১১ বছর বয়সী এই স্কেটবোর্ডার। আসছে টোকিও অলিম্পিকে বিশ্বের সেরা নারী স্কেটবোর্ডার হিসেবে তুলে ধরতে চান নিজের প্রতিভাকে।

এরই মধ্যে ইউরোপ, এশিয়া, দক্ষিণ আমেরিকায় স্কেটিং-য়ে নৈপুন্য দেখিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন স্কাই। তার এমন কিছু স্কেটিং দক্ষতা আছে যা এর আগে কোন নারী স্কেটবোর্ডার কখনো করে দেখাতে পারেননি। দেখে আসবো স্কাই ব্রাউনের স্কেটিং এর কিছু মুহূর্ত।

১১ বছর বয়সী স্কেটবোর্ডার স্কাই ব্রাউন বলেন, এক্স গেমসে আমি ফ্রন্টসাইড ৫৪০ করেছি। যা এর আগে কোন মেয়েই করে দেখাতে পারেনি। সত্যি কথা বলতে আমি এটা চেয়েছি যে, স্কেটিং-এ এমন কিছু করবো যেনো সবাই মনে রাখে।

তিনি বলেন, টোকিও অলিম্পিকে যাওয়ার বিষয়ে আমার বাবা-মা প্রথমে সন্দিহান ছিলেন। কারণ তারা চায়নি আমি এত অল্প বয়সে এত চাপ নেই।

কিন্তু স্কেটবোর্ডিং এর বস লুসি অ্যাডাম আমাকে আশ্বস্ত করে বললেন, আমার এখান থেকে বের হওয়া উচিৎ। অলিম্পিকে যাওয়া উচিৎ। এরপরেই সিদ্ধান্ত নিলাম, আমি নিশ্চই যাবো। আমার পরিবারের জন্য হলেও, অলিম্পিকে ভালো কিছু করে দেখাতে চাই আমি।

পোস্ট শেয়ার করুন

১১ বছরেই সব রেকর্ড ভাঙলেন

আপডেটের সময় : ০৯:৪০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০১৯

স্কাই ব্রাউন। যুক্তরাজ্যের সবচেয়ে কমবয়সী অলিম্পিয়ানের খাতায় নাম লেখাতে যাচ্ছেন ১১ বছর বয়সী এই স্কেটবোর্ডার। আসছে টোকিও অলিম্পিকে বিশ্বের সেরা নারী স্কেটবোর্ডার হিসেবে তুলে ধরতে চান নিজের প্রতিভাকে।

এরই মধ্যে ইউরোপ, এশিয়া, দক্ষিণ আমেরিকায় স্কেটিং-য়ে নৈপুন্য দেখিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন স্কাই। তার এমন কিছু স্কেটিং দক্ষতা আছে যা এর আগে কোন নারী স্কেটবোর্ডার কখনো করে দেখাতে পারেননি। দেখে আসবো স্কাই ব্রাউনের স্কেটিং এর কিছু মুহূর্ত।

১১ বছর বয়সী স্কেটবোর্ডার স্কাই ব্রাউন বলেন, এক্স গেমসে আমি ফ্রন্টসাইড ৫৪০ করেছি। যা এর আগে কোন মেয়েই করে দেখাতে পারেনি। সত্যি কথা বলতে আমি এটা চেয়েছি যে, স্কেটিং-এ এমন কিছু করবো যেনো সবাই মনে রাখে।

তিনি বলেন, টোকিও অলিম্পিকে যাওয়ার বিষয়ে আমার বাবা-মা প্রথমে সন্দিহান ছিলেন। কারণ তারা চায়নি আমি এত অল্প বয়সে এত চাপ নেই।

কিন্তু স্কেটবোর্ডিং এর বস লুসি অ্যাডাম আমাকে আশ্বস্ত করে বললেন, আমার এখান থেকে বের হওয়া উচিৎ। অলিম্পিকে যাওয়া উচিৎ। এরপরেই সিদ্ধান্ত নিলাম, আমি নিশ্চই যাবো। আমার পরিবারের জন্য হলেও, অলিম্পিকে ভালো কিছু করে দেখাতে চাই আমি।