ঢাকা , রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হাসপাতাল থেকে সংবাদ সম্মেলনে গয়েশ্বর

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক:
  • আপডেটের সময় : ০৯:০৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮
  • / ১১৯৫ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: রক্তমাখা পাঞ্জাবি পরেই বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে গেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। সেখানে আগে থেকেই ঐক্যফ্রন্টের বৈঠক চলছিল।মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে রক্তমাখা পাঞ্জাবি গায়ে জড়িয়েই গুলশান কার্যালয়ে আসেন ঢাকা-৩ আসনে বিএনপির এই প্রার্থী। কার্যালয়ে পৌঁছালে দেখা যায়, তার মাথার কয়েকটি স্থানে ব্যান্ডেজ রয়েছে। এসময় গয়েশ্বরকে অনেকটা নিস্তব্ধ দেখা যায়। পরে দলীয় নেতাকর্মীরা তাকে কার্যালয়ের দ্বিতীয়য় তলায় নিয়ে যান। এর আগে বিকেলে ঢাকা-৩ আসনে বিএনপির প্রার্থী ও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের প্রচারণায় হামলা চালানোর অভিযোগ ওঠে। এ বিষয়ে স্থানীয় নেতা অ্যাডভোকেট কাউসার আহমেদ বলেন, চুনকটিয়া এলাকায় প্রচারণা শেষে নেতাকর্মীদের নিয়ে কদমতলী যাচ্ছিলেন গয়েশ্বর। পথে পরিচর্যা হাসপাতালের সামনে পৌঁছালে পেছন থেকে তাদের ওপর হামলা করা হয়। এতে গয়েশ্বর রায়সহ ২০-২৫ জন আহত হন। তখন রক্তাক্ত অবস্থায় একটি দোকানে অনেক সময় অবরুদ্ধ ছিলেন গয়েশ্বর। পরে সাংবাদিকরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে হামলাকারীরা চলে যায়। হামলায় আহত গয়েশ্বরকে চিকিৎসার জন্য কাকরাইলের ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের ব্যক্তিগত সহকারী মো. শাহিন বলেন, আওয়ামী লীগের লোকজন স্যারের মাথায় আঘাত করেছে। স্যার গুরুতর আহত হয়েছেন

পোস্ট শেয়ার করুন

হাসপাতাল থেকে সংবাদ সম্মেলনে গয়েশ্বর

আপডেটের সময় : ০৯:০৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: রক্তমাখা পাঞ্জাবি পরেই বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে গেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। সেখানে আগে থেকেই ঐক্যফ্রন্টের বৈঠক চলছিল।মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে রক্তমাখা পাঞ্জাবি গায়ে জড়িয়েই গুলশান কার্যালয়ে আসেন ঢাকা-৩ আসনে বিএনপির এই প্রার্থী। কার্যালয়ে পৌঁছালে দেখা যায়, তার মাথার কয়েকটি স্থানে ব্যান্ডেজ রয়েছে। এসময় গয়েশ্বরকে অনেকটা নিস্তব্ধ দেখা যায়। পরে দলীয় নেতাকর্মীরা তাকে কার্যালয়ের দ্বিতীয়য় তলায় নিয়ে যান। এর আগে বিকেলে ঢাকা-৩ আসনে বিএনপির প্রার্থী ও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের প্রচারণায় হামলা চালানোর অভিযোগ ওঠে। এ বিষয়ে স্থানীয় নেতা অ্যাডভোকেট কাউসার আহমেদ বলেন, চুনকটিয়া এলাকায় প্রচারণা শেষে নেতাকর্মীদের নিয়ে কদমতলী যাচ্ছিলেন গয়েশ্বর। পথে পরিচর্যা হাসপাতালের সামনে পৌঁছালে পেছন থেকে তাদের ওপর হামলা করা হয়। এতে গয়েশ্বর রায়সহ ২০-২৫ জন আহত হন। তখন রক্তাক্ত অবস্থায় একটি দোকানে অনেক সময় অবরুদ্ধ ছিলেন গয়েশ্বর। পরে সাংবাদিকরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে হামলাকারীরা চলে যায়। হামলায় আহত গয়েশ্বরকে চিকিৎসার জন্য কাকরাইলের ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের ব্যক্তিগত সহকারী মো. শাহিন বলেন, আওয়ামী লীগের লোকজন স্যারের মাথায় আঘাত করেছে। স্যার গুরুতর আহত হয়েছেন