ঢাকা , রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হালদার মা মাছ ধরে বিক্রি, শিকারীকে দণ্ড

দেশ দিগন্ত ডেক্স:
  • আপডেটের সময় : ০৪:০৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুন ২০২০
  • / ৫৫৮ টাইম ভিউ

চট্টগ্রামের হাটহাজারীর হালদা নদী অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে শিকার করা ১১ কেজি ওজনের একটি মা মাছ উদ্ধার করেছে উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় মাছ শিকারের দায়ে মোহাম্মদ ইউনুচ সোহেল নামে একজনকে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

শনিবার দুপুরে উপজেলার ছিপাতলী ইউপির মোয়াজ্জেম খান বাড়ির টেক এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়। এতে নেতৃত্ব দেন ইউএনও রুহুল আমিন।

ইউএনও রুহুল আমিন বলেন, হালদায় কয়েক সপ্তাহ ধরে তেমন জাল দেখা না যাওয়ায় সন্দেহ হচ্ছিলো। তবে তারা এখন কৌশল পাল্টে জালের পরিবর্তে বড়শি দিয়ে মাছ ধরছেন বলে খবর পেয়ে মোয়াজ্জেম খান বাড়ির টেক এলাকার হালদার পাড়ে অভিযান চালানো হয়। এ সময় আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে বড়শি ফেলে পালিয়ে যান তারা।

তিনি আরো বলেন, আমরা যাওয়ার আগেই ১১ কেজি ওজনের একটি মা মাছ ছয় হাজার টাকায় তারা বিক্রি করেছেন বলে স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারি। এরপর তাৎক্ষণিক ক্রেতার খোঁজ নিয়ে মাছটি উদ্ধার করি। আসামি সোহেলকে ধরে ১২ হাজার টাকা জরিমানার পাশাপাশি মুচলেকা নিয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যানের জিম্মায় দেয়া হয়েছে। মাছটি হালদা রিসার্চ ল্যাবে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।#

পোস্ট শেয়ার করুন

হালদার মা মাছ ধরে বিক্রি, শিকারীকে দণ্ড

আপডেটের সময় : ০৪:০৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুন ২০২০

চট্টগ্রামের হাটহাজারীর হালদা নদী অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে শিকার করা ১১ কেজি ওজনের একটি মা মাছ উদ্ধার করেছে উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় মাছ শিকারের দায়ে মোহাম্মদ ইউনুচ সোহেল নামে একজনকে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

শনিবার দুপুরে উপজেলার ছিপাতলী ইউপির মোয়াজ্জেম খান বাড়ির টেক এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়। এতে নেতৃত্ব দেন ইউএনও রুহুল আমিন।

ইউএনও রুহুল আমিন বলেন, হালদায় কয়েক সপ্তাহ ধরে তেমন জাল দেখা না যাওয়ায় সন্দেহ হচ্ছিলো। তবে তারা এখন কৌশল পাল্টে জালের পরিবর্তে বড়শি দিয়ে মাছ ধরছেন বলে খবর পেয়ে মোয়াজ্জেম খান বাড়ির টেক এলাকার হালদার পাড়ে অভিযান চালানো হয়। এ সময় আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে বড়শি ফেলে পালিয়ে যান তারা।

তিনি আরো বলেন, আমরা যাওয়ার আগেই ১১ কেজি ওজনের একটি মা মাছ ছয় হাজার টাকায় তারা বিক্রি করেছেন বলে স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারি। এরপর তাৎক্ষণিক ক্রেতার খোঁজ নিয়ে মাছটি উদ্ধার করি। আসামি সোহেলকে ধরে ১২ হাজার টাকা জরিমানার পাশাপাশি মুচলেকা নিয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যানের জিম্মায় দেয়া হয়েছে। মাছটি হালদা রিসার্চ ল্যাবে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।#