ঢাকা , রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
পর্তুগাল এ ফ্রেন্ডশিপ ক্রিকেট ক্লাবের জার্সি উন্মোচন লিসবনে আত্মপ্রকাশ হয় সামাজিক সংগঠন “গোলাপগঞ্জ কমিউনিটি কেয়ারর্স পর্তুগাল “ উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা

হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে সাবেক চেয়ারম্যান মাহমুদ আলীর জানাযা ও দাপন সম্পন্ন

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৬:০৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৩১৫ টাইম ভিউ

বিশিষ্ট সালিশী ব্যক্তিত্ব কুলাউড়া উপজেলার ১০ নং হাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্রায় দির্ঘ ৪০ বছরের জনপ্রতিনিধি সাবেক জননন্দিত চেয়ারম্যান মাহমুদ আলী’র জানাযার নামাজ হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে আজ রোববার (২৪ ডিসেম্বর ) দুপুরে উনার নিজ গ্রাম পাবই এ অনুষ্ঠিত হয়।

মরহুমের ছোট সন্তান সোহাইল ইবনে মাহমুদ এ জানাযার নামাজ সঞ্চালনা করেন। এ সময় হাজার হাজার মানুষের মধ্যে উল্লেখ যোগ্য সাবেক সংসদ সদস্য এম এম শাহিন ,সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আ স ম কামরুল ইসলাম ,সদ্য পদত্যাগকারী উপজেলা চেয়ারম্যান শফি আহমেদ সলমান,কুলাউড়া পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর জয়নাল আবেদিন বাচ্চু,কুলাউড়া ব্যাবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি বদরুজামান  সজল, পতন উষার ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান ওলি আহমেদ খান, হাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদ এর সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস চৌধুরী, সাবেক চেয়ারম্যান মবশ্বির আলী, হাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান ওদুদ বক্স, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্চু ।
ইউনিয়ন পরিষদ এর সাবেক সদস্য মাঈন উদ্দিন.হাজীপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক আহবায়ক খোরশেদ আলী চৌধুরী,,হাজীপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ফারুক আহমেদ পান্না  সহ ইউনিয়ন পরিষদ এর সদস্যবৃন্ধ সহ  বিভিন্ন রাজনৈতিক-স্বেচ্ছাসেবক ও সামাজিক সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে কয়েক হাজার মানুষ জানাজায় সমবেত হন।

জানাজা শেষে মরহুমের মরদেহ পাবই এ পারিবারিক কবরস্থানে দাপন সম্পন্ন করা হয়।

প্রসঙ্গত, বুধবার (২৩ ডিসেম্বর ) সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

তার মৃত্যুতে ১০ নং হাজীপুর প্রবাসী পরিষদ ও হাজীপুর এর সামাজিক সংগঠন “ইউনাইটেড হাজিপুর” পক্ষ থেকে শোক বার্তা প্রেরণ করা হয়।
এবং বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন থেকে শোক প্রকাশ করা হয়। এছাড়াও তার মৃত্যুতে শ্রদ্ধা জানান পাইক পাড়া এম এ আহাদ কলেজের প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ, হাজীপুরের সামাজিক সংগঠন “ইউনাইটেড হাজিপুর” প্রধান উপদেষ্টা ইমাদুল মান্নান চৌধুরী তাহরাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খণ্ডকালীন শিক্ষক নুরুল মান্নান চৌধুরী তারাজ, আওয়ামী লীগ নেতা ইউ এস এ প্রবাসী আহমেদুর রহমান নোমান, ইউনাইটেড হাজীপুর এর সিনিয়র উপদেষ্টা নিজামুর রহমান টিপু ও হাজীপুর সমাজ কল্যাণ পরিষদের সদ্য সাবেক সভাপতি গাজী জাবের আহমেদ ও হাজীপুর এসোসিয়েশন অব ইউ কে এর সভাপতি আব্দুল করিম উবায়েদ  প্রমুখ।
মরহুম এর দুই সন্তান তাজুল ইসলাম পায়েল ও সালমান ইবনে মাহমুদ বলেন
আমার বাবা হাজীপুর ইউনিয়নের সাবেক সফল চেয়ারম্যান মোঃ মাহমুদ আলী অসুস্হ হয়ে ঢাকার বাংলাদেশ স্পেশালাইসড হাসপাতালে আই সি ইউ’তে চিকিৎসারত অবস্থায় মৃত্যবরন করেন। জীবনের ৪৮টি বছর হাজীপুরবাসীর সেবায় উৎসর্গ করা আমার বাবার জন্য বাবার প্রাণের হাজীপুরবাসী সহ সবার কাছে খাছ দোয়ার আরজ করছি।
সুদীর্ঘ সামাজিক ও রাজনৈতিক পথচলায় আমার বাবা আমাদের জানা মতে কোন দিনও কারো ক্ষতির কারণ হননি, মানুষ হিসাবে অবচেতন মনে কেউ কোন কষ্ট পেয়ে থাকলে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখে মেহেরবানী করে আপনাদের দোয়ায় রাখবেন প্লিজ।

পোস্ট শেয়ার করুন

হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে সাবেক চেয়ারম্যান মাহমুদ আলীর জানাযা ও দাপন সম্পন্ন

আপডেটের সময় : ০৬:০৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ ডিসেম্বর ২০২৩

বিশিষ্ট সালিশী ব্যক্তিত্ব কুলাউড়া উপজেলার ১০ নং হাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্রায় দির্ঘ ৪০ বছরের জনপ্রতিনিধি সাবেক জননন্দিত চেয়ারম্যান মাহমুদ আলী’র জানাযার নামাজ হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে আজ রোববার (২৪ ডিসেম্বর ) দুপুরে উনার নিজ গ্রাম পাবই এ অনুষ্ঠিত হয়।

মরহুমের ছোট সন্তান সোহাইল ইবনে মাহমুদ এ জানাযার নামাজ সঞ্চালনা করেন। এ সময় হাজার হাজার মানুষের মধ্যে উল্লেখ যোগ্য সাবেক সংসদ সদস্য এম এম শাহিন ,সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আ স ম কামরুল ইসলাম ,সদ্য পদত্যাগকারী উপজেলা চেয়ারম্যান শফি আহমেদ সলমান,কুলাউড়া পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর জয়নাল আবেদিন বাচ্চু,কুলাউড়া ব্যাবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি বদরুজামান  সজল, পতন উষার ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান ওলি আহমেদ খান, হাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদ এর সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস চৌধুরী, সাবেক চেয়ারম্যান মবশ্বির আলী, হাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান ওদুদ বক্স, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্চু ।
ইউনিয়ন পরিষদ এর সাবেক সদস্য মাঈন উদ্দিন.হাজীপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক আহবায়ক খোরশেদ আলী চৌধুরী,,হাজীপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ফারুক আহমেদ পান্না  সহ ইউনিয়ন পরিষদ এর সদস্যবৃন্ধ সহ  বিভিন্ন রাজনৈতিক-স্বেচ্ছাসেবক ও সামাজিক সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে কয়েক হাজার মানুষ জানাজায় সমবেত হন।

জানাজা শেষে মরহুমের মরদেহ পাবই এ পারিবারিক কবরস্থানে দাপন সম্পন্ন করা হয়।

প্রসঙ্গত, বুধবার (২৩ ডিসেম্বর ) সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

তার মৃত্যুতে ১০ নং হাজীপুর প্রবাসী পরিষদ ও হাজীপুর এর সামাজিক সংগঠন “ইউনাইটেড হাজিপুর” পক্ষ থেকে শোক বার্তা প্রেরণ করা হয়।
এবং বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন থেকে শোক প্রকাশ করা হয়। এছাড়াও তার মৃত্যুতে শ্রদ্ধা জানান পাইক পাড়া এম এ আহাদ কলেজের প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ, হাজীপুরের সামাজিক সংগঠন “ইউনাইটেড হাজিপুর” প্রধান উপদেষ্টা ইমাদুল মান্নান চৌধুরী তাহরাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খণ্ডকালীন শিক্ষক নুরুল মান্নান চৌধুরী তারাজ, আওয়ামী লীগ নেতা ইউ এস এ প্রবাসী আহমেদুর রহমান নোমান, ইউনাইটেড হাজীপুর এর সিনিয়র উপদেষ্টা নিজামুর রহমান টিপু ও হাজীপুর সমাজ কল্যাণ পরিষদের সদ্য সাবেক সভাপতি গাজী জাবের আহমেদ ও হাজীপুর এসোসিয়েশন অব ইউ কে এর সভাপতি আব্দুল করিম উবায়েদ  প্রমুখ।
মরহুম এর দুই সন্তান তাজুল ইসলাম পায়েল ও সালমান ইবনে মাহমুদ বলেন
আমার বাবা হাজীপুর ইউনিয়নের সাবেক সফল চেয়ারম্যান মোঃ মাহমুদ আলী অসুস্হ হয়ে ঢাকার বাংলাদেশ স্পেশালাইসড হাসপাতালে আই সি ইউ’তে চিকিৎসারত অবস্থায় মৃত্যবরন করেন। জীবনের ৪৮টি বছর হাজীপুরবাসীর সেবায় উৎসর্গ করা আমার বাবার জন্য বাবার প্রাণের হাজীপুরবাসী সহ সবার কাছে খাছ দোয়ার আরজ করছি।
সুদীর্ঘ সামাজিক ও রাজনৈতিক পথচলায় আমার বাবা আমাদের জানা মতে কোন দিনও কারো ক্ষতির কারণ হননি, মানুষ হিসাবে অবচেতন মনে কেউ কোন কষ্ট পেয়ে থাকলে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখে মেহেরবানী করে আপনাদের দোয়ায় রাখবেন প্লিজ।