ঢাকা , সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে…

হঠাৎ বদলে যাওয়া জিম্বাবুয়ে

অনলাইন ডেস্ক :
  • আপডেটের সময় : ১২:৫০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুলাই ২০১৭
  • / ১১৬১ টাইম ভিউ

শ্রীলংকায় যখন পা রেখেছিল জিম্বাবুয়ে দল- রীতিমত বিধ্বস্ত তারা। আইসিসির ওয়ানডে র‌্যাকিংয়ে অবস্থান ১১ নম্বরে, কয়েকদিন আগেই সিরিজ হেরেছে স্কটল্যান্ডের কাছে। এর আগে বছরের শুরুতে সিরিজ হেরেছে তখনো টেস্ট স্ট্যাটাস না পাওয়া আফগানিস্তানের কাছে। শ্রীলংকা সফরে তাই তাদের কাছ থেকে খুব বেশি আশা ছিলো না কারোই।
কিন্তু সেই দলটিই আজ সোমবার হাম্বানটোটায় সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে স্বাগতিকদের পরাস্ত করে লিখলো ইতিহাস। ২০০৯ সালের পর দেশের বাইরে প্রথম সিরিজ জয় এটি। আর ২০০১ সালের পর অর্থাৎ বিগত ১৬ বছরে কোন টেস্ট খেলুড়ে দলের বিরুদ্ধে দেশের বাইরে প্রথম সিরিজ জয়। সে বছর বাংলাদেশের মাটিতে স্বাগতিকদের হারিয়েছিলো হিথ স্ট্রিক, এন্ডি ফ্লাওয়ারদের পূর্ণশক্তির জিম্বাবুয়ে।
শুধু আজকের ম্যাচ নয় পুরো সিরিজ জুড়েই দুর্দান্ত খেলেছে গ্রায়েম ক্রেমারের দল। প্রথম ম্যাচে শ্রীলংকার ৩১৬ রান টপকে জিতেছে, তৃতীয় ম্যাচে আগে ব্যাট করে ৩১০ রান করেও হেরে গেছে। চতুর্থ ম্যাচে শ্রীলংকার ৩০০ তাড়া করে জিতেছে বৃষ্টি আইনে। মোট কথা সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচের স্কোর বাদ দিলে(১৫৫) পুরো সিরিজেই দুর্দান্ত খেলেছে হিথ স্ট্রিকের শীষ্যরা। অবশ্য দলের ব্যাটিংয়ে এই কোচ ল্যান্স ক্লুজনার এই সাফল্যে বিশেষ কৃতিত্বের দাবিদার। তার অধীনে আবার শক্তিশালী একটি ব্যাটিং লাইন আপের সম্ভাবনা গড়ে উঠেছে দলটিতে। এই সিরিজে যা সবচেয়ে বেশি ভুগিয়েছে শ্রীলংকান বোলারদের।

পোস্ট শেয়ার করুন

হঠাৎ বদলে যাওয়া জিম্বাবুয়ে

আপডেটের সময় : ১২:৫০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুলাই ২০১৭

শ্রীলংকায় যখন পা রেখেছিল জিম্বাবুয়ে দল- রীতিমত বিধ্বস্ত তারা। আইসিসির ওয়ানডে র‌্যাকিংয়ে অবস্থান ১১ নম্বরে, কয়েকদিন আগেই সিরিজ হেরেছে স্কটল্যান্ডের কাছে। এর আগে বছরের শুরুতে সিরিজ হেরেছে তখনো টেস্ট স্ট্যাটাস না পাওয়া আফগানিস্তানের কাছে। শ্রীলংকা সফরে তাই তাদের কাছ থেকে খুব বেশি আশা ছিলো না কারোই।
কিন্তু সেই দলটিই আজ সোমবার হাম্বানটোটায় সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে স্বাগতিকদের পরাস্ত করে লিখলো ইতিহাস। ২০০৯ সালের পর দেশের বাইরে প্রথম সিরিজ জয় এটি। আর ২০০১ সালের পর অর্থাৎ বিগত ১৬ বছরে কোন টেস্ট খেলুড়ে দলের বিরুদ্ধে দেশের বাইরে প্রথম সিরিজ জয়। সে বছর বাংলাদেশের মাটিতে স্বাগতিকদের হারিয়েছিলো হিথ স্ট্রিক, এন্ডি ফ্লাওয়ারদের পূর্ণশক্তির জিম্বাবুয়ে।
শুধু আজকের ম্যাচ নয় পুরো সিরিজ জুড়েই দুর্দান্ত খেলেছে গ্রায়েম ক্রেমারের দল। প্রথম ম্যাচে শ্রীলংকার ৩১৬ রান টপকে জিতেছে, তৃতীয় ম্যাচে আগে ব্যাট করে ৩১০ রান করেও হেরে গেছে। চতুর্থ ম্যাচে শ্রীলংকার ৩০০ তাড়া করে জিতেছে বৃষ্টি আইনে। মোট কথা সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচের স্কোর বাদ দিলে(১৫৫) পুরো সিরিজেই দুর্দান্ত খেলেছে হিথ স্ট্রিকের শীষ্যরা। অবশ্য দলের ব্যাটিংয়ে এই কোচ ল্যান্স ক্লুজনার এই সাফল্যে বিশেষ কৃতিত্বের দাবিদার। তার অধীনে আবার শক্তিশালী একটি ব্যাটিং লাইন আপের সম্ভাবনা গড়ে উঠেছে দলটিতে। এই সিরিজে যা সবচেয়ে বেশি ভুগিয়েছে শ্রীলংকান বোলারদের।