ঢাকা , শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে… এই অভ্যাসগুলোর চর্চা নিয়মিত করা উচিৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য থাকা জরুরি কেনো ? পুনাক এর উদ্যোগে দুস্হ ও অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করা হয়েছে কুলাউড়ার টিলাগাঁও এ সরকারি গাছ বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক লটারি বাইক জিতলো মা’ সে কারণে কপাল পুড়লো মেয়ের ফজরের নামাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুকুর দলের আক্রমনে প্রান গেলো ইজাজুলের সাবেক সাংসদ সেলিমা আহমাদ মেরীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামিলীগের মতবিনিময় সভা

সুদানে টানা বৃষ্টিতে ভয়াবহ বন্যা, নিহত ৬৫

দেশ দিগন্ত আন্তজার্তিক ডেক্স:
  • আপডেটের সময় : ০৭:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ অগাস্ট ২০২০
  • / ২৯৯ টাইম ভিউ

সুদানে টানা কয়েকদিনের ভারী বৃষ্টিপাতে ভয়াবহ বন্যার সৃষ্টি হয়েছে। এতে কমপক্ষে ৬৫ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এছাড়া বন্যায় প্রায় ১৪ হাজার ঘরবাড়ি ভেসে গেছে।

এক বিবৃতিতে জানা যায়, বন্যায় ভেসে যাওয়া ছাড়াও আরো প্রায় ৩০ হাজার চার শতাধিকেরও বেশি ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া প্রায় ৭০০ গবাদি পশু মারা গেছে।

সুদান নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, বন্যার কারণে পূর্বাঞ্চলীয় গাদারিফ প্রদেশের ২টি স্বর্ণখনিতে প্রায় দুই হাজার শ্রমিক আটকা পড়েছে। নীল নদের অববাহিকায় অবস্থিত সুদানে প্রতিবছর জুন মাস থেকেই বর্ষাকাল শুরু হয়। অক্টোবর মাস পর্যন্ত স্থায়ী হয় এটি।

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে রাজধানী অঞ্চল খার্তুম, ব্লু নীল এবং রিভার নীল স্টেট। এছাড়া গেজিরা, গাদারিফ, ওয়েস্ট খার্তুম এবং সাউথ দারফুর অঞ্চলেও বন্যা হয়েছে।

সুদানে জাতিসংঘের মানবিক সহায়তা সমন্বয়কারী  জানিয়েছে, এই বন্যার কারণে সুদানের কমপক্ষে ১৪টি স্কুল ধসে পড়েছে। এছাড়া দূষিত অথবা অকার্যকর হয়ে পড়েছে দেশটির এক হাজার ছয় শতাধিকেরও বেশি বিশুদ্ধ পানির উৎস।#

পোস্ট শেয়ার করুন

সুদানে টানা বৃষ্টিতে ভয়াবহ বন্যা, নিহত ৬৫

আপডেটের সময় : ০৭:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ অগাস্ট ২০২০

সুদানে টানা কয়েকদিনের ভারী বৃষ্টিপাতে ভয়াবহ বন্যার সৃষ্টি হয়েছে। এতে কমপক্ষে ৬৫ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এছাড়া বন্যায় প্রায় ১৪ হাজার ঘরবাড়ি ভেসে গেছে।

এক বিবৃতিতে জানা যায়, বন্যায় ভেসে যাওয়া ছাড়াও আরো প্রায় ৩০ হাজার চার শতাধিকেরও বেশি ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া প্রায় ৭০০ গবাদি পশু মারা গেছে।

সুদান নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, বন্যার কারণে পূর্বাঞ্চলীয় গাদারিফ প্রদেশের ২টি স্বর্ণখনিতে প্রায় দুই হাজার শ্রমিক আটকা পড়েছে। নীল নদের অববাহিকায় অবস্থিত সুদানে প্রতিবছর জুন মাস থেকেই বর্ষাকাল শুরু হয়। অক্টোবর মাস পর্যন্ত স্থায়ী হয় এটি।

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে রাজধানী অঞ্চল খার্তুম, ব্লু নীল এবং রিভার নীল স্টেট। এছাড়া গেজিরা, গাদারিফ, ওয়েস্ট খার্তুম এবং সাউথ দারফুর অঞ্চলেও বন্যা হয়েছে।

সুদানে জাতিসংঘের মানবিক সহায়তা সমন্বয়কারী  জানিয়েছে, এই বন্যার কারণে সুদানের কমপক্ষে ১৪টি স্কুল ধসে পড়েছে। এছাড়া দূষিত অথবা অকার্যকর হয়ে পড়েছে দেশটির এক হাজার ছয় শতাধিকেরও বেশি বিশুদ্ধ পানির উৎস।#