ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি ইতালির ভিসেন্সায় সিলেট ডায়নামিক অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত

সিসিকের ৭৮৯ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

সিনিয়র রিপোর্টার :
  • আপডেটের সময় : ০৪:০৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ অগাস্ট ২০১৯
  • / ২৯০ টাইম ভিউ

সিনিয়র রিপোর্টার :: সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) ৭৮৯ কোটি ৩৮ লক্ষ ৪৭ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। রোববার নগরীর দরগা গেটের একটি অভিজাত হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে সিসিকের ২০১৯-২০ অর্থ বছরের এই বাজেট ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত বাজেটে আয়ের সমপরিমাণ ব্যয়ও ধরা হয়েছে। বাজেট ঘোষণা করেন সিসিকের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। বাজেট বক্তৃতায় তিনি বলেন, পরিকল্পিত নগরায়ন ও নাগরিকদের অধিকতর সুবিধা ও সেবা প্রদান নিশ্চিতকরণে এবার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্টে নিহত তাঁর পরিবারের সদস্যদের রূহের মাগফেরাত কামনা এবং তাঁদের স্মৃতিতে সিসিকের পক্ষ থেকে গভীর শ্রদ্ধা ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। বাজেটের উল্লেখযোগ্য আয়ের খাতগুলো হলো- হোল্ডিং ট্যাক্স ৪৪ কোটি ০৮ লাখ ৮০ হাজার টাকা, স্থাবর সম্পত্তি হস্তান্তরের উপর কর ৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা, ইমারত নির্মাণ ও পুননির্মাণের উপর কর ২ কোটি টাকা, পেশা ব্যবসার উপর কর ৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা, বিজ্ঞাপনের উপর কর ১ কোটি ২০ লাখ টাকা, পানির সংযোগ লাইনের মাসিক চার্জ বাবদ ৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা, পানির লাইনের সংযোগ ও পুনঃসংযোগের ফি এক কোটি টাকা, নলকূপ স্থাপন অনুমোদন ও নবায়ন ফি ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা প্রভৃতি। বাজেটে উল্লেখযোগ্য ব্যয়ে খাতের মধ্যে রাজস্ব খাতে ৬৭ কোটি ৪৩ লাখ টাকা, রাজস্ব খাতে অবকাঠামো উন্নয়ন বাবদ ৫২ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা, সরকারী উন্নয়ন কর্মসূচী (এডিপি) খাতে ২০ কোটি টাকা, সরকারী মঞ্জুরী খাতে ১০ কোটি টাকা, অবকাঠামো নির্মান শীর্ষক প্রকল্পে ২০০ কোটি টাকা, নগরীর ১১ টি ছড়া সংরক্ষণ ও আরসিসি রিটেইনিং ওয়াল নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পে ৩৪ কোটি টাকা, ভারতীয় অর্থায়নে অবকাঠামো নির্মাণ প্রকল্প খাতে ১০ কোটি টাকা, দক্ষিণ সুরমা জমি অধিগ্রহণ ও ট্রাক টার্মিনাল নির্মাণ প্রকল্পে ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা, দক্ষিণ সুরমা শেখ হাসিনা শিশু পার্কে রাইড স্থাপন প্রকল্পে ১০ কোটি টাকা, সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন উন্নয়ন ও অন্যন্য কাজে জমি অধিগ্রহণ বাবাদ ৭৪ কোটি টাকা, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা স্যানিটারি ল্যান্ড ফিল্ড নির্মাণ প্রকল্প বাবদ ৫০ কোটি টাকা, আইসিটি ভবন নির্মাণ, ধোপাদিঘীতে বহুতল বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণ ৭৪ কোটি টাকা প্রভৃতি। সিসিকের কর নির্ধারক চন্দন দাশের সঞ্চালনায় দুপুর ১২টায় অনুষ্ঠিত বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানের শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন সিটি কর্পোরেশন কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা সামছুল ইসলাম আল হাদী। গীতা পাঠ শ্রী জ্যোতিষ চক্রবর্তী। বাইবেল ডেবিট মনু দাস। ত্রিপিটক শ্রী আনন্দ বৌদ্ধ। বাজেট পেশকালে মেয়র আরিফ সিলেটের প্রয়াত বিশিষ্টজনদের স্মরণ করেন। বাজেট পেশ অনুষ্ঠানে সিলেটে কর্মরত বিভিন্ন স্থানীয় ও জাতীয় গণমাধ্যমের সাংবাদিকবৃন্দ, বিভিন্ন ওয়ার্ডের পুরুষ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত আসনের নারী কাউন্সিলরবৃন্দ, সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত আছেন।

পোস্ট শেয়ার করুন

সিসিকের ৭৮৯ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

আপডেটের সময় : ০৪:০৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ অগাস্ট ২০১৯

সিনিয়র রিপোর্টার :: সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) ৭৮৯ কোটি ৩৮ লক্ষ ৪৭ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। রোববার নগরীর দরগা গেটের একটি অভিজাত হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে সিসিকের ২০১৯-২০ অর্থ বছরের এই বাজেট ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত বাজেটে আয়ের সমপরিমাণ ব্যয়ও ধরা হয়েছে। বাজেট ঘোষণা করেন সিসিকের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। বাজেট বক্তৃতায় তিনি বলেন, পরিকল্পিত নগরায়ন ও নাগরিকদের অধিকতর সুবিধা ও সেবা প্রদান নিশ্চিতকরণে এবার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্টে নিহত তাঁর পরিবারের সদস্যদের রূহের মাগফেরাত কামনা এবং তাঁদের স্মৃতিতে সিসিকের পক্ষ থেকে গভীর শ্রদ্ধা ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। বাজেটের উল্লেখযোগ্য আয়ের খাতগুলো হলো- হোল্ডিং ট্যাক্স ৪৪ কোটি ০৮ লাখ ৮০ হাজার টাকা, স্থাবর সম্পত্তি হস্তান্তরের উপর কর ৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা, ইমারত নির্মাণ ও পুননির্মাণের উপর কর ২ কোটি টাকা, পেশা ব্যবসার উপর কর ৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা, বিজ্ঞাপনের উপর কর ১ কোটি ২০ লাখ টাকা, পানির সংযোগ লাইনের মাসিক চার্জ বাবদ ৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা, পানির লাইনের সংযোগ ও পুনঃসংযোগের ফি এক কোটি টাকা, নলকূপ স্থাপন অনুমোদন ও নবায়ন ফি ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা প্রভৃতি। বাজেটে উল্লেখযোগ্য ব্যয়ে খাতের মধ্যে রাজস্ব খাতে ৬৭ কোটি ৪৩ লাখ টাকা, রাজস্ব খাতে অবকাঠামো উন্নয়ন বাবদ ৫২ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা, সরকারী উন্নয়ন কর্মসূচী (এডিপি) খাতে ২০ কোটি টাকা, সরকারী মঞ্জুরী খাতে ১০ কোটি টাকা, অবকাঠামো নির্মান শীর্ষক প্রকল্পে ২০০ কোটি টাকা, নগরীর ১১ টি ছড়া সংরক্ষণ ও আরসিসি রিটেইনিং ওয়াল নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পে ৩৪ কোটি টাকা, ভারতীয় অর্থায়নে অবকাঠামো নির্মাণ প্রকল্প খাতে ১০ কোটি টাকা, দক্ষিণ সুরমা জমি অধিগ্রহণ ও ট্রাক টার্মিনাল নির্মাণ প্রকল্পে ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা, দক্ষিণ সুরমা শেখ হাসিনা শিশু পার্কে রাইড স্থাপন প্রকল্পে ১০ কোটি টাকা, সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন উন্নয়ন ও অন্যন্য কাজে জমি অধিগ্রহণ বাবাদ ৭৪ কোটি টাকা, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা স্যানিটারি ল্যান্ড ফিল্ড নির্মাণ প্রকল্প বাবদ ৫০ কোটি টাকা, আইসিটি ভবন নির্মাণ, ধোপাদিঘীতে বহুতল বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণ ৭৪ কোটি টাকা প্রভৃতি। সিসিকের কর নির্ধারক চন্দন দাশের সঞ্চালনায় দুপুর ১২টায় অনুষ্ঠিত বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানের শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন সিটি কর্পোরেশন কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা সামছুল ইসলাম আল হাদী। গীতা পাঠ শ্রী জ্যোতিষ চক্রবর্তী। বাইবেল ডেবিট মনু দাস। ত্রিপিটক শ্রী আনন্দ বৌদ্ধ। বাজেট পেশকালে মেয়র আরিফ সিলেটের প্রয়াত বিশিষ্টজনদের স্মরণ করেন। বাজেট পেশ অনুষ্ঠানে সিলেটে কর্মরত বিভিন্ন স্থানীয় ও জাতীয় গণমাধ্যমের সাংবাদিকবৃন্দ, বিভিন্ন ওয়ার্ডের পুরুষ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত আসনের নারী কাউন্সিলরবৃন্দ, সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত আছেন।