ঢাকা , শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিলেটে ক্যারাম খেলায় মারামারি, আওয়ামী লীগ নেতার গুলি

দেশ দিগন্ত সিলেট ডেক্স:
  • আপডেটের সময় : ০৪:০৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ অগাস্ট ২০২০
  • / ৩৩৫ টাইম ভিউ

সিলেট নগরীর ফাজিলচিস্ত এলাকায় পূর্ব বিরোধ ও ক্যারাম খেলা নিয়ে  গুলি ছোঁড়ার ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে কোতোয়ালি ও বিমানবন্দর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। তবে এসময় পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি। শুক্রবার বিকালে এ ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, ফাজিলচিস্ত এলাকার একটি কলোনীতে ক্যারাম খেলার নিয়ে বিরোধ দেখা দেয়। সেই বিরোধের জেরে ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সায়েক খান তার ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে প্রতিপক্ষকে গুলি করলে উত্তেজনা দেখা দেয়।

সিলেট সিটি করপোরেশনের ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আফতাব হোসেন খান জানান, অপরাধ নিয়ন্ত্রণ করতে এলাকার যুব সমাজ বাঁধা দিয়েছিল। সেজন্য সায়েক খান তার আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে প্রতিপক্ষকে গুলি করেন। এরপর উত্তেজনা দেখা দিলে আমি ঘটনাস্থলে আসি। যারা আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করছে তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য।

এ ব্যাপারে অ্যাডভোকেট সিবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেন, ক্যারাম খেলা নিয়ে বিরোধ দেখা দেয়। এরপর সায়েক খান গুলি করেন এলাকার একটি রাস্তায়। তবে আমার বাসায় কেউ গুলি করেনি বলে তিনি জানান।

সিলেট মহানগর পুলিশের বিমাবন্দর থানার ওসি শাহাদৎ হোসেন জানান, ফাজিলচিস্ত এলাকার একটি কলোনীতে ক্যারাম খেলাকে কেন্দ্র করে দুটি পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এসময় একটি পক্ষ গুলি ছোঁড়েছে বলে শুনেছি। তবে বিষয়টি মীমাংসা হয়ে গেছে।

সিলেট কোতোয়ালি থানার ওসি তদন্ত জানান, কলোনীর ক্যারাম খেলাকে কেন্দ্র করে দুটি পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে সায়েক নামের একজন ব্যক্তি তার এয়ারগান দিয়ে রাউন্ড গুলি করেন। বিষয়টি পুলিশ খতিয়ে দেখছে।#

পোস্ট শেয়ার করুন

সিলেটে ক্যারাম খেলায় মারামারি, আওয়ামী লীগ নেতার গুলি

আপডেটের সময় : ০৪:০৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ অগাস্ট ২০২০

সিলেট নগরীর ফাজিলচিস্ত এলাকায় পূর্ব বিরোধ ও ক্যারাম খেলা নিয়ে  গুলি ছোঁড়ার ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে কোতোয়ালি ও বিমানবন্দর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। তবে এসময় পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি। শুক্রবার বিকালে এ ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, ফাজিলচিস্ত এলাকার একটি কলোনীতে ক্যারাম খেলার নিয়ে বিরোধ দেখা দেয়। সেই বিরোধের জেরে ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সায়েক খান তার ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে প্রতিপক্ষকে গুলি করলে উত্তেজনা দেখা দেয়।

সিলেট সিটি করপোরেশনের ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আফতাব হোসেন খান জানান, অপরাধ নিয়ন্ত্রণ করতে এলাকার যুব সমাজ বাঁধা দিয়েছিল। সেজন্য সায়েক খান তার আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে প্রতিপক্ষকে গুলি করেন। এরপর উত্তেজনা দেখা দিলে আমি ঘটনাস্থলে আসি। যারা আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করছে তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য।

এ ব্যাপারে অ্যাডভোকেট সিবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেন, ক্যারাম খেলা নিয়ে বিরোধ দেখা দেয়। এরপর সায়েক খান গুলি করেন এলাকার একটি রাস্তায়। তবে আমার বাসায় কেউ গুলি করেনি বলে তিনি জানান।

সিলেট মহানগর পুলিশের বিমাবন্দর থানার ওসি শাহাদৎ হোসেন জানান, ফাজিলচিস্ত এলাকার একটি কলোনীতে ক্যারাম খেলাকে কেন্দ্র করে দুটি পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এসময় একটি পক্ষ গুলি ছোঁড়েছে বলে শুনেছি। তবে বিষয়টি মীমাংসা হয়ে গেছে।

সিলেট কোতোয়ালি থানার ওসি তদন্ত জানান, কলোনীর ক্যারাম খেলাকে কেন্দ্র করে দুটি পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে সায়েক নামের একজন ব্যক্তি তার এয়ারগান দিয়ে রাউন্ড গুলি করেন। বিষয়টি পুলিশ খতিয়ে দেখছে।#