ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি ইতালির ভিসেন্সায় সিলেট ডায়নামিক অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত

সভাপতি মাহফুজ, সাধারন সম্পাদক এনাম ও সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তফা -কুয়েত বিএনপির কাউন্সিল সম্পন্ন

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০১:৩৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ জানুয়ারী ২০২১
  • / ৩৯৮ টাইম ভিউ

দীর্ঘ ১৮ বছরের প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়ে কুয়েত বিএনপির কাউন্সিল বর্ণাঢ্য আয়োজনে উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।
এতে কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ ভোটে কুয়েত বিএনপির সভাপতি মাহফুজুর রহমান মাহফুজ ও আবুল হাসেম এনাম সাধারণ সম্পাদক এবং শেখ মোস্তফা কামাল সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।

শুক্রবার (১ লা জানুয়ারী ) দুপুর থেকে আবদালী রিসোর্ট সেন্টারে অনুষ্ঠিত এই কাউন্সিলে কুয়েত আহবায়ক কমিটির ৪৭ জন সদস্য ও ৬ প্রদেশের মোট ৩৬ জন কাউন্সিলর গোপন ব্যালটের মাধ্যমে তাঁদের পছন্দের প্রার্থীকে বিজয়ীকে করেন।

কুয়েত বিএনপির সদস্য সচিব আলহাজ্জ শওকত আলী কে প্রধান করে আল আমিন চৌধুরী স্বপন, আশফাকুল হক নিয়ে তিন সদস্য বিশিস্ট কাউন্সিল পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়েছিলো ।

কুয়েত বিএনপির আহবায়ক নুরুল ইসলাম ( মাষ্টার) ভোট দানের মাধ্যমে কাউন্সিল  অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয় ।

কাউন্সিলে সভাপতি পদে মাহফুজুর রহমান ৪২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক সহ সভাপতি মাঈন উদ্দিন মইন পেয়েছেন ৩৪ ভোট।

সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা সৃষ্টি করে আবুল হাসেম এনাম পেয়েছেন ৪৩ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কুয়েত বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক পেয়েছেন ৩৩ ভোট।
সিনিয়র সহ সভাপতি পদে আব্দুল কাদের মোল্লাহ পেয়েছেন ৪৩ ভোট ।
নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাসাসের সদস্য সচিব শফিকুল ইসলাম পেয়েছেন ৩৩ ভোট ।

সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক পদে আজিজ উদ্দিন মিন্টু পেয়েছেন ৪৪ ভোট । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পেয়েছেন ৩২ ভোট ।

সাংগঠনিক পদে শেখ মোস্তফা কামাল পেয়েছেন ৪৩ ভোট, তার প্রতিদ্বন্দ্বী আব্দুল কাদের পেয়েছেন ৩৪ ভোট।
৪৩ ভোট পেয়ে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হোন।

কাউন্সিল শেষে ১০ জন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের এজেন্টদের উপস্থিত সবার সামনে ভোট গণনা করেন নির্বাচন কমিশনরা।
পরে কাউন্সিল পরিচালনা কমিটির প্রধান আলহাজ্জ শওকত আলী নির্বাচিতদের নাম ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে বিজয়ী ও বিজিত সবাই একসঙ্গে কাজ করতে হবে। তাই বিজয়ীরা বিজোয়ল্লাসে মাতোয়ারা না হয়ে বিজিতদের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আগামীর আন্দোলনকে ত্বরান্বিত করতে হবে।

পোস্ট শেয়ার করুন

সভাপতি মাহফুজ, সাধারন সম্পাদক এনাম ও সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তফা -কুয়েত বিএনপির কাউন্সিল সম্পন্ন

আপডেটের সময় : ০১:৩৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ জানুয়ারী ২০২১

দীর্ঘ ১৮ বছরের প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়ে কুয়েত বিএনপির কাউন্সিল বর্ণাঢ্য আয়োজনে উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।
এতে কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ ভোটে কুয়েত বিএনপির সভাপতি মাহফুজুর রহমান মাহফুজ ও আবুল হাসেম এনাম সাধারণ সম্পাদক এবং শেখ মোস্তফা কামাল সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।

শুক্রবার (১ লা জানুয়ারী ) দুপুর থেকে আবদালী রিসোর্ট সেন্টারে অনুষ্ঠিত এই কাউন্সিলে কুয়েত আহবায়ক কমিটির ৪৭ জন সদস্য ও ৬ প্রদেশের মোট ৩৬ জন কাউন্সিলর গোপন ব্যালটের মাধ্যমে তাঁদের পছন্দের প্রার্থীকে বিজয়ীকে করেন।

কুয়েত বিএনপির সদস্য সচিব আলহাজ্জ শওকত আলী কে প্রধান করে আল আমিন চৌধুরী স্বপন, আশফাকুল হক নিয়ে তিন সদস্য বিশিস্ট কাউন্সিল পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়েছিলো ।

কুয়েত বিএনপির আহবায়ক নুরুল ইসলাম ( মাষ্টার) ভোট দানের মাধ্যমে কাউন্সিল  অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয় ।

কাউন্সিলে সভাপতি পদে মাহফুজুর রহমান ৪২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক সহ সভাপতি মাঈন উদ্দিন মইন পেয়েছেন ৩৪ ভোট।

সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা সৃষ্টি করে আবুল হাসেম এনাম পেয়েছেন ৪৩ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কুয়েত বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক পেয়েছেন ৩৩ ভোট।
সিনিয়র সহ সভাপতি পদে আব্দুল কাদের মোল্লাহ পেয়েছেন ৪৩ ভোট ।
নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাসাসের সদস্য সচিব শফিকুল ইসলাম পেয়েছেন ৩৩ ভোট ।

সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক পদে আজিজ উদ্দিন মিন্টু পেয়েছেন ৪৪ ভোট । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পেয়েছেন ৩২ ভোট ।

সাংগঠনিক পদে শেখ মোস্তফা কামাল পেয়েছেন ৪৩ ভোট, তার প্রতিদ্বন্দ্বী আব্দুল কাদের পেয়েছেন ৩৪ ভোট।
৪৩ ভোট পেয়ে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হোন।

কাউন্সিল শেষে ১০ জন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের এজেন্টদের উপস্থিত সবার সামনে ভোট গণনা করেন নির্বাচন কমিশনরা।
পরে কাউন্সিল পরিচালনা কমিটির প্রধান আলহাজ্জ শওকত আলী নির্বাচিতদের নাম ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে বিজয়ী ও বিজিত সবাই একসঙ্গে কাজ করতে হবে। তাই বিজয়ীরা বিজোয়ল্লাসে মাতোয়ারা না হয়ে বিজিতদের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আগামীর আন্দোলনকে ত্বরান্বিত করতে হবে।