আপডেট

x


সন্তানদের থেকে কেরিয়ার আগে, ‘আমি ভাল বাবা নই’ স্বীকার করলেন শাহরুখ

শুক্রবার, ১৫ অক্টোবর ২০২১ | ১:১৫ অপরাহ্ণ | 71 বার

সন্তানদের থেকে কেরিয়ার আগে, ‘আমি ভাল বাবা নই’ স্বীকার করলেন  শাহরুখ

নিউজ ডেস্ক: স্ত্রী, তিন ছেলে মেয়েকে নিয়ে ভরা সংসার শাহরুখ খানের (shahrukh khan)। আরিয়ান, সুহানা, আব্রাম তিনজনেই তারকা সন্তান হওয়ার দৌলতে আলাদা ভাবে পরিচিত ইন্ডাস্ট্রিতে। তবে সাম্প্রতিক সময়ে মাদক কাণ্ডে বড় ছেলে আরিয়ান গ্রেফতার হওয়ার পর থেকেই বাবা হিসেবে সমালোচনার শিকার হয়ে চলেছেন কিং খান। কিন্তু এসবের অনেক আগেই শাহরুখ স্বীকার করেছিলেন, তিনি ভাল বাবা নন।

একবার সংবাদ মাধ‍্যমের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে শাহরুখ নিজেই বলেছিলেন এ কথা। তিনি বলেন, “আমি একদিন আব্রামের সঙ্গে বসেছিলাম। তো আমি ওকে বললাম আমার কাছে এসে বসতে। কিন্তু ও না বসে ওখান থেকে চলে গেল। তখন আমার মনে অনেক রকম প্রশ্ন আসতে থাকে। আমি কি একজন ভাল বাবা না? ওকে কি আমি যথেষ্ট ভালবাসা দিতে পারিনি? ছবির পেছনে বেশি ব‍্যস্ত থাকায় আমি কি ছেলেমেয়েদের কম সময় দিচ্ছি !



অপর একটি সাক্ষাৎকারে শাহরুখ দাবি করেছিলেন তিনি একেবারেই কড়া বাবা নন। তাঁকে দেখে এমনটা মনে হতেই পারে কিন্তু আসলে তিনি নন। ছেলেমেয়েদের নিজের মতো করে চালিত করতে পারেন না তিনি। শাহরুখ আরো জানিয়েছিলেন, ছবিতে তাঁর অ্যাকশন দৃশ‍্য দেখে আব্রাম ভাবে সেসব বুঝি সত‍্যি। এই কারণেই দিলওয়ালের সময় কাজল এবং রইস ছবির সময় নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর উপরে রেগে গিয়েছিল ছোট্ট আব্রাম।

আরিয়ানের গ্রেফতারির পর শাহরুখের ঘনিষ্ঠ এক বন্ধু জানিয়েছেন, অস্বাভাবিক ভাবে শান্ত হয়ে গিয়েছেন কিং খান। কষ্ট বা রাগ প্রকাশ করতে না পারায় গুমরে গুমরে মরছেন। শাহরুখের বন্ধুর কথায়, “উনি ঠিক করে খাচ্ছেন না, ঘুমাচ্ছেনও না। এমনিতেও উনি মাত্র কয়েক ঘন্টার জন‍্যই ঘুমোন। এখন সেটুকুও বন্ধ।” আরেক পরিচালকের কথায়, কিং খানও দিনের শেষে একজন অসহায় বাবা।

আরিয়ানের গ্রেফতারির পর মাত্র দু মিনিটের জন‍্য ছেলের সঙ্গে কথা বলতে পেরেছিলেন শাহরুখ। তাও আবার NCB র থেকে বিশেষ অনুমতি নেওয়ার পর। ছেলের আটক হওয়ার খবর শুনেই স্পেনে শুট বাতিল করে দেন কিং খান। পরিচালক অ্যাটলির ছবির জন‍্য শাহরুখের একজন বডি ডাবল আপাতত কাজ চালাচ্ছেন।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments


deshdiganto.com © 2019 কপিরাইট এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত

design and development by : http://webnewsdesign.com