ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
বাংলাদেশে কোটা আন্দোলনে হত্যার প্রতিবাদে পর্তুগালে বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশী প্রবাসীরা প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর

শ্রীমঙ্গলে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনাস্থল পরিদর্শন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি:
  • আপডেটের সময় : ১১:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ অক্টোবর ২০২০
  • / ৩২৭ টাইম ভিউ

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে স্বামীকে জেল থেকে ছাড়াতে উকিলের কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে গেস্ট হাউজে নিয়ে গণধর্ষণের ঘটনায় ভিকটিমকে জিজ্ঞাসাবাদ এবং ঘটনাস্থল পরিদর্শন করছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসান মো. নাসের রিকাবদার।

সোমবার (১২অক্টোবর) দুপুরে ধর্ষণের ঘটনাস্থল শহরের গুহ রোগের হামিদা গেস্ট হাউজ পরিদর্শন করেন মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার। এছাড়া তিনি শ্রীমঙ্গল থানয় ভিকটিমকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন শ্রীমঙ্গল থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুছ ছালেক।

ধর্ষণের ঘটনার ভিকটিম ২৫ বছর বয়সী ঐ নারী গত শনিবার শ্রীমঙ্গল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। পরে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে গত রোববার সকালে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত কাজল মিয়া (৩০) ও মতিন মিয়া (২০) নামে দুই ব্যক্তিকে উপজেলার আমরাইল ছড়া চা বাগান থেকে গ্রেফতার করে। অভিযুক্তদের গ্রেফতার করার পর শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ তাদের মৌলভীবাজার আদালতে প্রেরণ করে।

উল্লেখ্য গত ১৯ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টার দিকে শ্রীমঙ্গল শহরের হামিদা গেস্ট হাউজে ঘটনাটি ঘটে। অভিযুক্ত কাজল মিয়া (৩০), মতিন মিয়া (২০) ও ধর্ষণের শিকার ঐ নারী উপজেলার সাতগাঁও ইউনিয়নের আঐ গ্রামের বাসিন্দা।

ধর্ষণের ঘটনাস্থল পরিদর্শন এবং ভিকটিমকে জিজ্ঞাসাবাদের ঘটনাটি নিশ্চিত করেন শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুছ ছালেক।#

পোস্ট শেয়ার করুন

শ্রীমঙ্গলে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনাস্থল পরিদর্শন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার

আপডেটের সময় : ১১:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ অক্টোবর ২০২০

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে স্বামীকে জেল থেকে ছাড়াতে উকিলের কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে গেস্ট হাউজে নিয়ে গণধর্ষণের ঘটনায় ভিকটিমকে জিজ্ঞাসাবাদ এবং ঘটনাস্থল পরিদর্শন করছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসান মো. নাসের রিকাবদার।

সোমবার (১২অক্টোবর) দুপুরে ধর্ষণের ঘটনাস্থল শহরের গুহ রোগের হামিদা গেস্ট হাউজ পরিদর্শন করেন মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার। এছাড়া তিনি শ্রীমঙ্গল থানয় ভিকটিমকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন শ্রীমঙ্গল থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুছ ছালেক।

ধর্ষণের ঘটনার ভিকটিম ২৫ বছর বয়সী ঐ নারী গত শনিবার শ্রীমঙ্গল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। পরে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে গত রোববার সকালে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত কাজল মিয়া (৩০) ও মতিন মিয়া (২০) নামে দুই ব্যক্তিকে উপজেলার আমরাইল ছড়া চা বাগান থেকে গ্রেফতার করে। অভিযুক্তদের গ্রেফতার করার পর শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ তাদের মৌলভীবাজার আদালতে প্রেরণ করে।

উল্লেখ্য গত ১৯ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টার দিকে শ্রীমঙ্গল শহরের হামিদা গেস্ট হাউজে ঘটনাটি ঘটে। অভিযুক্ত কাজল মিয়া (৩০), মতিন মিয়া (২০) ও ধর্ষণের শিকার ঐ নারী উপজেলার সাতগাঁও ইউনিয়নের আঐ গ্রামের বাসিন্দা।

ধর্ষণের ঘটনাস্থল পরিদর্শন এবং ভিকটিমকে জিজ্ঞাসাবাদের ঘটনাটি নিশ্চিত করেন শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুছ ছালেক।#