ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীতে বাইক রেস খেলতে গিয়ে নসিমনের ধাক্কায় এক স্কুল

শাহ আলমঃ
  • আপডেটের সময় : ১১:২২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯
  • / ৫৪৩ টাইম ভিউ

শাহ আলমঃ রাজশাহীতে মটোরসাইকেল নিয়ে রেস খেলতে গিয়ে নসিমনের সাথে মুখো মুখি ধাক্কা খেয়ে বাইক আরহী জুবায়ের হোসেন অন্তর (১৭) নামের এক স্কুল ছাত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। রোববার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে নগরীর কোর্ট স্টেসন থেকে দারুসা রাস্তায় সুতাহাটি নাম এলাকায় এ দূর্ঘটনা ঘটনা ঘটে। নিহত জুবায়ের হোসেন অন্তর (১৭) নগরীর হড়গ্রাম টেকনিকেল বিজনেস স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণীর ছাত্র।

ঘটনা সূত্রে জানা গেছে, রোববার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে আলীগঞ্জ পশ্চিম পাড়া এলাকার আলমঙ্গীর হোসেনের ছেলে জুবায়ের হোসেন অন্তর (১৭) একটি গ্লামার মটোরসাইকেল নিয়ে তার ফুপাত ভাই এর সাথে দারুসা রাস্তায় রেস শুরু করে। এসময় প্রচন্ড গতিতে দারুসা রাস্তার সুতাহাটি নামক এলাকায় পৌছালে দারুসা থেকে আসা একটি মুরগি ভর্তি নসিমনের সাথে মুখো মুখি ধাক্কা খেয়ে গুরুতর আহত হয় অন্তর। এসময় নসিমনে থাকা এক মুরগি ব্যবসায়ী আহত হয় ও অন্যরা নসিমন ফেলে পালিয়ে যায়।

এসময় স্থানিয়রা আহত অবস্থায় দুই জনকে দ্রুত উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক অন্তর কে মৃত বলে ঘোষনা করে। নিহত অন্তরের মরদেহ ময়না তদন্ত শেষে সোমবার দুপুর ২ টার দিকে তার পরিবারের কাছে তার মরদেহ হস্তান্তর করে কাশিয়াডাংঙ্গা থানা পুলিশ। বিকেলে নিহতের মরদেহের জানাজা শেষে হড়গ্রাম জান্নাতুল ফেরদৌস গোরস্থানে দাফন করা হবে। এই ঘটনায় নিহতর পরিবারে বইছে শোকের ছায়া।

কাশিয়াডাংঙ্গা থানার ওসি মনসুর আলী আরিফ জানান, রোববার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে কোর্টস্টেসন থেকে দারুসা পর্যন্ত বাইক নিয়ে অন্তর ও তার ফুপাত ভাই রেস শুরু করে।
তিনি বলেন, প্রচন্ড গতিনিয়ে দারুসা রাস্তার সুতাহাটি নামক এলাকায় একটি মুরগি ভর্তি নসিমনের সাথে ধাক্কা লেগে গুরুতর অহত হলে তাকে রামেক হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করে অন্তর কে। ঘটনা স্থল থেকে পুলিশ নসিমন ও একটি বাইক উদ্ধার করে থানায় রাখা হয়েছে। সোমবার নিহতের মরদেহের ময়নাতদন্ত দুপুর তার পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান ওসি।

পোস্ট শেয়ার করুন

রাজশাহীতে বাইক রেস খেলতে গিয়ে নসিমনের ধাক্কায় এক স্কুল

আপডেটের সময় : ১১:২২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯

শাহ আলমঃ রাজশাহীতে মটোরসাইকেল নিয়ে রেস খেলতে গিয়ে নসিমনের সাথে মুখো মুখি ধাক্কা খেয়ে বাইক আরহী জুবায়ের হোসেন অন্তর (১৭) নামের এক স্কুল ছাত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। রোববার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে নগরীর কোর্ট স্টেসন থেকে দারুসা রাস্তায় সুতাহাটি নাম এলাকায় এ দূর্ঘটনা ঘটনা ঘটে। নিহত জুবায়ের হোসেন অন্তর (১৭) নগরীর হড়গ্রাম টেকনিকেল বিজনেস স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণীর ছাত্র।

ঘটনা সূত্রে জানা গেছে, রোববার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে আলীগঞ্জ পশ্চিম পাড়া এলাকার আলমঙ্গীর হোসেনের ছেলে জুবায়ের হোসেন অন্তর (১৭) একটি গ্লামার মটোরসাইকেল নিয়ে তার ফুপাত ভাই এর সাথে দারুসা রাস্তায় রেস শুরু করে। এসময় প্রচন্ড গতিতে দারুসা রাস্তার সুতাহাটি নামক এলাকায় পৌছালে দারুসা থেকে আসা একটি মুরগি ভর্তি নসিমনের সাথে মুখো মুখি ধাক্কা খেয়ে গুরুতর আহত হয় অন্তর। এসময় নসিমনে থাকা এক মুরগি ব্যবসায়ী আহত হয় ও অন্যরা নসিমন ফেলে পালিয়ে যায়।

এসময় স্থানিয়রা আহত অবস্থায় দুই জনকে দ্রুত উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক অন্তর কে মৃত বলে ঘোষনা করে। নিহত অন্তরের মরদেহ ময়না তদন্ত শেষে সোমবার দুপুর ২ টার দিকে তার পরিবারের কাছে তার মরদেহ হস্তান্তর করে কাশিয়াডাংঙ্গা থানা পুলিশ। বিকেলে নিহতের মরদেহের জানাজা শেষে হড়গ্রাম জান্নাতুল ফেরদৌস গোরস্থানে দাফন করা হবে। এই ঘটনায় নিহতর পরিবারে বইছে শোকের ছায়া।

কাশিয়াডাংঙ্গা থানার ওসি মনসুর আলী আরিফ জানান, রোববার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে কোর্টস্টেসন থেকে দারুসা পর্যন্ত বাইক নিয়ে অন্তর ও তার ফুপাত ভাই রেস শুরু করে।
তিনি বলেন, প্রচন্ড গতিনিয়ে দারুসা রাস্তার সুতাহাটি নামক এলাকায় একটি মুরগি ভর্তি নসিমনের সাথে ধাক্কা লেগে গুরুতর অহত হলে তাকে রামেক হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করে অন্তর কে। ঘটনা স্থল থেকে পুলিশ নসিমন ও একটি বাইক উদ্ধার করে থানায় রাখা হয়েছে। সোমবার নিহতের মরদেহের ময়নাতদন্ত দুপুর তার পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান ওসি।