ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে… এই অভ্যাসগুলোর চর্চা নিয়মিত করা উচিৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য থাকা জরুরি কেনো ? পুনাক এর উদ্যোগে দুস্হ ও অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করা হয়েছে কুলাউড়ার টিলাগাঁও এ সরকারি গাছ বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক লটারি বাইক জিতলো মা’ সে কারণে কপাল পুড়লো মেয়ের ফজরের নামাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুকুর দলের আক্রমনে প্রান গেলো ইজাজুলের সাবেক সাংসদ সেলিমা আহমাদ মেরীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামিলীগের মতবিনিময় সভা

মেয়র পদে আ.লীগের মনোনয়ন চান হেলেনা জাহাঙ্গীর

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৪:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯
  • / ৪৯২ টাইম ভিউ

আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী এফবিসিসিআই ও জয়যাত্রা টেলিভিশনের চেয়ারম্যান হেলেনা জাহাঙ্গীর। শুক্রবার বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী নিয়ে আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয়ে দলের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন তিনি। ২০১৫ সালের সিটি নির্বাচনেও মেয়র পদে লড়তে চেয়েছিলেন হেলেনা জাহাঙ্গীর। তখন নির্দলীয় হিসেবে আগ্রহী হলেও এবার আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া শেষে হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, অনেকেই আমাকে মেয়র হিসেবে চাচ্ছে। তারা প্রচারণাও চালাচ্ছে। ঢাকা শহরে তারা আমার মনোনয়ন চেয়ে একরকম লড়াই সংগ্রাম করছে। নিজেকে যোগ্য হিসেবে দাবি করে তিনি বলেন, ভোটারদের দাবি, দেশের প্রধানমন্ত্রী নারী, স্পিকার নারী, তাহলে ঢাকার মেয়র হিসেবে কেন একজন নারী থাকতে পারবেন না? এ সময় তিনি নিজেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একজন সৈনিক হিসেবেও উল্লেখ করেন। হেলেনা জাহাঙ্গীরের সমর্থকরা বলছেন, তিনি এফবিসিসিআই পরিচালক ও একজন সিআইপি। ইতিমধ্যে একাধিকবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে একাধিকবার বিদেশ সফর করেছেন। এছাড়া সামাজিক নানা কর্মকাণ্ডে যুক্ত হেলেনা জাহাঙ্গীর। এসব কারণে তাকে নিয়ে আশায় বুক বাঁধছেন তার সমর্থকরা। তবে, মনোনয়ন পাওয়া না পাওয়ার পুরো বিষয়টি আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর ছেড়ে দিয়াছেন হেলেনা জাহাঙ্গীর। হেলেনা বলেন, মেয়র নির্বাচন করাটা এক রকমের চ্যালেঞ্জ। আমি নিতে রাজি কিন্তু তা নির্ভর করবে প্রধানমন্ত্রী চান কি না। সব কিছু দলীয় সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে। তবে দল মনোনয়ন দিলে এবং নির্বাচিত হলে ঢাকা উত্তরকে একটা আধুনিক নগরে রূপান্তর করার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। এছাড়াও প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করবেন বলেও জানান। আর দল যদি মনোনয়ন না দেয় তাহলে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবেন বলে জানান হেলেনা জাহাঙ্গীর। আগামী ৩০ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) ঢাকা উত্তর (ডিএনসিসি) ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। পুরো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। ওইদিন সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

পোস্ট শেয়ার করুন

মেয়র পদে আ.লীগের মনোনয়ন চান হেলেনা জাহাঙ্গীর

আপডেটের সময় : ০৪:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯

আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী এফবিসিসিআই ও জয়যাত্রা টেলিভিশনের চেয়ারম্যান হেলেনা জাহাঙ্গীর। শুক্রবার বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী নিয়ে আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয়ে দলের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন তিনি। ২০১৫ সালের সিটি নির্বাচনেও মেয়র পদে লড়তে চেয়েছিলেন হেলেনা জাহাঙ্গীর। তখন নির্দলীয় হিসেবে আগ্রহী হলেও এবার আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া শেষে হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, অনেকেই আমাকে মেয়র হিসেবে চাচ্ছে। তারা প্রচারণাও চালাচ্ছে। ঢাকা শহরে তারা আমার মনোনয়ন চেয়ে একরকম লড়াই সংগ্রাম করছে। নিজেকে যোগ্য হিসেবে দাবি করে তিনি বলেন, ভোটারদের দাবি, দেশের প্রধানমন্ত্রী নারী, স্পিকার নারী, তাহলে ঢাকার মেয়র হিসেবে কেন একজন নারী থাকতে পারবেন না? এ সময় তিনি নিজেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একজন সৈনিক হিসেবেও উল্লেখ করেন। হেলেনা জাহাঙ্গীরের সমর্থকরা বলছেন, তিনি এফবিসিসিআই পরিচালক ও একজন সিআইপি। ইতিমধ্যে একাধিকবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে একাধিকবার বিদেশ সফর করেছেন। এছাড়া সামাজিক নানা কর্মকাণ্ডে যুক্ত হেলেনা জাহাঙ্গীর। এসব কারণে তাকে নিয়ে আশায় বুক বাঁধছেন তার সমর্থকরা। তবে, মনোনয়ন পাওয়া না পাওয়ার পুরো বিষয়টি আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর ছেড়ে দিয়াছেন হেলেনা জাহাঙ্গীর। হেলেনা বলেন, মেয়র নির্বাচন করাটা এক রকমের চ্যালেঞ্জ। আমি নিতে রাজি কিন্তু তা নির্ভর করবে প্রধানমন্ত্রী চান কি না। সব কিছু দলীয় সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে। তবে দল মনোনয়ন দিলে এবং নির্বাচিত হলে ঢাকা উত্তরকে একটা আধুনিক নগরে রূপান্তর করার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। এছাড়াও প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করবেন বলেও জানান। আর দল যদি মনোনয়ন না দেয় তাহলে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবেন বলে জানান হেলেনা জাহাঙ্গীর। আগামী ৩০ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) ঢাকা উত্তর (ডিএনসিসি) ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। পুরো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। ওইদিন সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।