ঢাকা , সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে…

মুফতি জাকারিয়া’র জানাজায় লাখো মানুষের ঢল

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ১১:৪১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ মার্চ ২০১৯
  • / ৯১২ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ   জামেয়া ক্বাসিমুল উলূম দরগাহ হযরত শাহজালাল (রহ.) সিলেটের মুহতামিম ও শায়খুল হাদীস মুফতি আবুল কালাম জাকারিয়ার জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। জানাযায় লাখো মানুষের ঢল নামে।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় সিলেট সরকারি আলিয়া মাদরাসা মাঠে মরহুমের জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। জানাজার নামাজে ইমামতি করেন জামেয়া ক্বাসিমুল উলূম দরগাহ হযরত শাহজালাল (রহ.) সিলেটের ভারপ্রাপ্ত মুহতামিম বিশিষ্ট আলেম মুহিব্বুল হক গাছবাড়ি।পরে হযরত শাহজালাল (রহ:) এর মাজারের পাশের কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

মুফতি মাওলানা জাকারিয়ার নামাাজে জানাযায় অংশ নিতে সকাল থেকে নগরী ও আশপাশের উপজেলা থেকে লোকজন আলিয়া মাদরাসায় আসতে থাকেন। জানাজার নামাজের নির্ধারিত সময়ের আগেই মাঠ ভরে যায়। পরে মাঠের চার পাশের খালি জায়গায় ও চৌহাট্টা রিকাবীবাজার সড়কে দাঁড়িয়ে মানুষ জানাজায় অংশগ্রহণ করেন। নামাজের পূর্বে মরহুমের জীবনী নিয়ে দেশ বরেণ্যে রাজনীতিবিদ, আলেম-উলামারা বক্তব্য রাখেন। এ সময় তারা বলেন, মুফতি যাকারিয়্যা ছিলেন একজন সর্বজনশ্রদ্ধেয় আলেমে দ্বীন ও বহুগুণে গুণান্বিত শ্রদ্ধাভাজন মানুষ। দ্বীনি শিক্ষার প্রচার-প্রসার ও বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামে তার অবদান অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। তার মৃত্যুতে ইসলামি রাজনৈতিক অঙ্গনের অপূরণীয় ক্ষতি হল। বক্তারা মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। উল্লেখ্য, গতকাল সোমবার (১১মার্চ) বিকেল ৫টার দিকে মাদরাসা থেকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সিলেট অঞ্চলের প্রখ্যাত আলেম। তার মৃত্যুতে ইসলামি অঙ্গনে গভীর শোক নেমে আসে। মুফতি যাকারিয়্যা দাওয়াতুল হক বাংলাদেশের সিলেট জেলার আমীর ছিলেন।তিনি দাওয়াতুল হকের আমির ও গুলশান আজাদ মসজিদের খতিব আল্লামা মাহমূদুল হাসানের অন্যতম খলিফা। মুফতি আবুল কালাম যাকারিয়্যা জন্ম সুনামগঞ্জ জেলায়। পড়ালেখা করেন দরগাহ মাদরাসায়। সিলেট শাহজালাল রহ. দরগাহ মসজিদ ও আম্ভরখানা জামে মসজিদে খতিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।তিনি খলিফায়ে মাদানি আল্লামা আব্দুল হক শায়খে গাজিনগরী রহ. এর জামাতা। তিনি ৩ ছেলে ও ৩ মেয়ে রেখে গেছেন।

পোস্ট শেয়ার করুন

মুফতি জাকারিয়া’র জানাজায় লাখো মানুষের ঢল

আপডেটের সময় : ১১:৪১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ মার্চ ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ   জামেয়া ক্বাসিমুল উলূম দরগাহ হযরত শাহজালাল (রহ.) সিলেটের মুহতামিম ও শায়খুল হাদীস মুফতি আবুল কালাম জাকারিয়ার জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। জানাযায় লাখো মানুষের ঢল নামে।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় সিলেট সরকারি আলিয়া মাদরাসা মাঠে মরহুমের জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। জানাজার নামাজে ইমামতি করেন জামেয়া ক্বাসিমুল উলূম দরগাহ হযরত শাহজালাল (রহ.) সিলেটের ভারপ্রাপ্ত মুহতামিম বিশিষ্ট আলেম মুহিব্বুল হক গাছবাড়ি।পরে হযরত শাহজালাল (রহ:) এর মাজারের পাশের কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

মুফতি মাওলানা জাকারিয়ার নামাাজে জানাযায় অংশ নিতে সকাল থেকে নগরী ও আশপাশের উপজেলা থেকে লোকজন আলিয়া মাদরাসায় আসতে থাকেন। জানাজার নামাজের নির্ধারিত সময়ের আগেই মাঠ ভরে যায়। পরে মাঠের চার পাশের খালি জায়গায় ও চৌহাট্টা রিকাবীবাজার সড়কে দাঁড়িয়ে মানুষ জানাজায় অংশগ্রহণ করেন। নামাজের পূর্বে মরহুমের জীবনী নিয়ে দেশ বরেণ্যে রাজনীতিবিদ, আলেম-উলামারা বক্তব্য রাখেন। এ সময় তারা বলেন, মুফতি যাকারিয়্যা ছিলেন একজন সর্বজনশ্রদ্ধেয় আলেমে দ্বীন ও বহুগুণে গুণান্বিত শ্রদ্ধাভাজন মানুষ। দ্বীনি শিক্ষার প্রচার-প্রসার ও বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামে তার অবদান অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। তার মৃত্যুতে ইসলামি রাজনৈতিক অঙ্গনের অপূরণীয় ক্ষতি হল। বক্তারা মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। উল্লেখ্য, গতকাল সোমবার (১১মার্চ) বিকেল ৫টার দিকে মাদরাসা থেকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সিলেট অঞ্চলের প্রখ্যাত আলেম। তার মৃত্যুতে ইসলামি অঙ্গনে গভীর শোক নেমে আসে। মুফতি যাকারিয়্যা দাওয়াতুল হক বাংলাদেশের সিলেট জেলার আমীর ছিলেন।তিনি দাওয়াতুল হকের আমির ও গুলশান আজাদ মসজিদের খতিব আল্লামা মাহমূদুল হাসানের অন্যতম খলিফা। মুফতি আবুল কালাম যাকারিয়্যা জন্ম সুনামগঞ্জ জেলায়। পড়ালেখা করেন দরগাহ মাদরাসায়। সিলেট শাহজালাল রহ. দরগাহ মসজিদ ও আম্ভরখানা জামে মসজিদে খতিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।তিনি খলিফায়ে মাদানি আল্লামা আব্দুল হক শায়খে গাজিনগরী রহ. এর জামাতা। তিনি ৩ ছেলে ও ৩ মেয়ে রেখে গেছেন।