ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে… এই অভ্যাসগুলোর চর্চা নিয়মিত করা উচিৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য থাকা জরুরি কেনো ? পুনাক এর উদ্যোগে দুস্হ ও অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করা হয়েছে কুলাউড়ার টিলাগাঁও এ সরকারি গাছ বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক লটারি বাইক জিতলো মা’ সে কারণে কপাল পুড়লো মেয়ের ফজরের নামাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুকুর দলের আক্রমনে প্রান গেলো ইজাজুলের সাবেক সাংসদ সেলিমা আহমাদ মেরীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামিলীগের মতবিনিময় সভা

মুক্তিযোদ্ধার ভাইবোনরাও সম্মানী পাবেন

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৯:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯
  • / ৩৭৪ টাইম ভিউ

খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধারা নির্ধারিত ভাতার বাইরে সাধারণ মুক্তিযোদ্ধাদের ন্যায় সাধারণ ভাতাও পেতে যাচ্ছেন। এছাড়া তাদের ওপর নির্ভরশীলরা রেশনসহ সুযোগ-সুবিধা পাবেন আইনের এ ধারা সংশোধন করে ভাইবোনরাও পাবেন শব্দ সংযোজন করা হচ্ছে।

জানা যায়, খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে করণীয় নির্ধারণে অর্থ ও লেজিসলেটিভ—সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মতামত চেয়ে পত্র পাঠিয়েছে। এ জন্য বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা বিতরণ নীতিমালা ২০১৬ এবং মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট আইন ২০১৮ এর সঙ্গে সঙ্গতি রেখে সংশোধিত নীতিমালা করা হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বর্তমানে খেতাবপ্রাপ্ত চার শ্রেণির মুক্তিযোদ্ধা রয়েছেন। এরা হলেন বীরশ্রেষ্ঠ, বীর-উত্তম, বীরবিক্রম ও বীরপ্রতীক। এসব বীর মুক্তিযোদ্ধা যথাক্রমে বীরশ্রেষ্ঠ পাঁচ জন মাসিক ৩০ হাজার টাকা, বীরবিক্রম ৫২ জন ২৫ হাজার টাকা, বীর-উত্তম ১৫৪ জন ২০ হাজার টাকা, বীরপ্রতীক ৩৭৬ জন ১৫ হাজার টাকা করে সম্মানী পেয়ে থাকেন। সাধারণ মুক্তিযোদ্ধারা পান মাসিক ১২ হাজার টাকা। এখন ঐ সম্মানীর সঙ্গে যোগ হবে ১২ হাজার টাকা। এখন মোট ৫৮৭ জন খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী পেয়ে থাকেন। সাধারণ মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা ২ লাখ ২ হাজার জন।

খেতাবপ্রাপ্তদের মধ্যে পুলিশ, সশস্ত্র বাহিনী, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের তালিকাভুক্তরা রয়েছেন।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক জানান, খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বিদ্যমান সম্মানীর সঙ্গে সাধারণ মুক্তিযোদ্ধাদের দেয় ১২ হাজার টাকা অতিরিক্ত দেওয়ার বিষয়ে মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ জন্য আইন ও নীতিমালার কিছু অসঙ্গতি দূর করা প্রয়োজন এবং বাড়তি অর্থও লাগবে। তিনি জানান, এরই মধ্যে নীতিমালার সংশোধন বিষয়ে লেজিসলেটিভ বিভাগে মতামত প্রদানের জন্য পত্র প্রেরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি অর্থ বিভাগের মতামতও চাওয়া হয়েছে। এ দুটি বিষয়ে নিষ্পত্তি হলে খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাধারণ মুক্তিযোদ্ধার দেয় সম্মানী যোগ করে পৃথক গেজেট প্রকাশ করা হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিদ্যমান নীতিমালায় কোনো মুক্তিযোদ্ধার প্রাপ্ত সম্মানী তার অবর্তমানে তার ওপর নির্ভরশীলরা পাবেন মর্মে উল্লেখ আছে। নির্ভরশীল বলতে স্ত্রী, পুত্র সন্তান, সন্তানের সন্তানদের বোঝানো হয়েছিল। এখন সেখানে ভাইবোনরাও প্রাপ্ত হবেন বলে অতিরিক্ত শব্দ যোগ করা হচ্ছে।

পোস্ট শেয়ার করুন

মুক্তিযোদ্ধার ভাইবোনরাও সম্মানী পাবেন

আপডেটের সময় : ০৯:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯

খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধারা নির্ধারিত ভাতার বাইরে সাধারণ মুক্তিযোদ্ধাদের ন্যায় সাধারণ ভাতাও পেতে যাচ্ছেন। এছাড়া তাদের ওপর নির্ভরশীলরা রেশনসহ সুযোগ-সুবিধা পাবেন আইনের এ ধারা সংশোধন করে ভাইবোনরাও পাবেন শব্দ সংযোজন করা হচ্ছে।

জানা যায়, খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে করণীয় নির্ধারণে অর্থ ও লেজিসলেটিভ—সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মতামত চেয়ে পত্র পাঠিয়েছে। এ জন্য বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা বিতরণ নীতিমালা ২০১৬ এবং মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট আইন ২০১৮ এর সঙ্গে সঙ্গতি রেখে সংশোধিত নীতিমালা করা হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বর্তমানে খেতাবপ্রাপ্ত চার শ্রেণির মুক্তিযোদ্ধা রয়েছেন। এরা হলেন বীরশ্রেষ্ঠ, বীর-উত্তম, বীরবিক্রম ও বীরপ্রতীক। এসব বীর মুক্তিযোদ্ধা যথাক্রমে বীরশ্রেষ্ঠ পাঁচ জন মাসিক ৩০ হাজার টাকা, বীরবিক্রম ৫২ জন ২৫ হাজার টাকা, বীর-উত্তম ১৫৪ জন ২০ হাজার টাকা, বীরপ্রতীক ৩৭৬ জন ১৫ হাজার টাকা করে সম্মানী পেয়ে থাকেন। সাধারণ মুক্তিযোদ্ধারা পান মাসিক ১২ হাজার টাকা। এখন ঐ সম্মানীর সঙ্গে যোগ হবে ১২ হাজার টাকা। এখন মোট ৫৮৭ জন খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী পেয়ে থাকেন। সাধারণ মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা ২ লাখ ২ হাজার জন।

খেতাবপ্রাপ্তদের মধ্যে পুলিশ, সশস্ত্র বাহিনী, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের তালিকাভুক্তরা রয়েছেন।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক জানান, খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বিদ্যমান সম্মানীর সঙ্গে সাধারণ মুক্তিযোদ্ধাদের দেয় ১২ হাজার টাকা অতিরিক্ত দেওয়ার বিষয়ে মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ জন্য আইন ও নীতিমালার কিছু অসঙ্গতি দূর করা প্রয়োজন এবং বাড়তি অর্থও লাগবে। তিনি জানান, এরই মধ্যে নীতিমালার সংশোধন বিষয়ে লেজিসলেটিভ বিভাগে মতামত প্রদানের জন্য পত্র প্রেরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি অর্থ বিভাগের মতামতও চাওয়া হয়েছে। এ দুটি বিষয়ে নিষ্পত্তি হলে খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাধারণ মুক্তিযোদ্ধার দেয় সম্মানী যোগ করে পৃথক গেজেট প্রকাশ করা হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিদ্যমান নীতিমালায় কোনো মুক্তিযোদ্ধার প্রাপ্ত সম্মানী তার অবর্তমানে তার ওপর নির্ভরশীলরা পাবেন মর্মে উল্লেখ আছে। নির্ভরশীল বলতে স্ত্রী, পুত্র সন্তান, সন্তানের সন্তানদের বোঝানো হয়েছিল। এখন সেখানে ভাইবোনরাও প্রাপ্ত হবেন বলে অতিরিক্ত শব্দ যোগ করা হচ্ছে।