ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে… এই অভ্যাসগুলোর চর্চা নিয়মিত করা উচিৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য থাকা জরুরি কেনো ? পুনাক এর উদ্যোগে দুস্হ ও অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করা হয়েছে কুলাউড়ার টিলাগাঁও এ সরকারি গাছ বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক লটারি বাইক জিতলো মা’ সে কারণে কপাল পুড়লো মেয়ের ফজরের নামাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুকুর দলের আক্রমনে প্রান গেলো ইজাজুলের সাবেক সাংসদ সেলিমা আহমাদ মেরীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামিলীগের মতবিনিময় সভা

মধ্যপ্রাচ্য বিএনপির ভার্চুয়াল দোআ মাহফিল ও আলোচনায় যোগ দিলেন তারেক রহমান

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৫:২৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ অগাস্ট ২০২০
  • / ৬৫৮ টাইম ভিউ

মধ্যপ্রাচ্য বিএনপির ভার্চুয়াল আলোচনায় যোগ দিলেন তারেক রহমান
‘রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খান একজন প্রকৃত দেশপ্রেমিক ও ক্ষণজন্মা ব্যক্তিত্ব’

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বলেছেন, রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খান ছিলেন একজন প্রকৃত দেশপ্রেমিক, পরোপকারী, সৎ, ত্যাগি, সর্বপরি একজন ক্ষণজন্মা ব্যক্তিত্ব। জীবনের প্রতিটি পরতে তিনি রেখেছেন দক্ষতার উজ্জল স্বাক্ষর। দেশ, সমাজ ও রাষ্ট্র বিনির্মানে জনাব মাহবুব আলী খানের অবদান অনস্বিকার্য।

সাবেক মন্ত্রী ও নৌবাহিনীর প্রধান রিয়াল এডমিরাল মাহবুব আলী খানের ৩৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মধ্যপ্রাচ্য বিএনপির উদ্দোগে ভার্চ্যুয়াল যোগাযোগ মাধ্যমে অনুষ্টিত এক স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিল যোগ দিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির কেন্দ্রীয নির্বাহী কমিটির সদস্য মধ্যপ্রাচ্য সাংগঠনিক সমন্বয়ক সৌদিআরব বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব আহমদ আলী মুকিবের সভাপতিত্বে
সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্হিত ছিলেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জনাব তারেক রহমান।
এতে রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খানের জীবন ও কর্ম নিয়ে মুল বক্তব্য উপস্থাপন করেন জাতিসংঘ ও হোয়াইট হাউসে প্রতিনিধিত্বকারী সাংবাদিক জাস্টনিউজ সম্পাদক মুশফিকুল ফজল আনসারী। কাতার বিএনপির সাধারন সম্পাদক শরিফুল হক সাজুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে অংশ নেন সৌদিআরব বিএনপির সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান তপন, কুয়েত বিএনপির আহবায়ক মাষ্টার নুরুল ইসলাম, পুর্ব সভাপতি অধ্যাপক আ ক ম রফিকুল ইসলাম, সহসভাপতি কেপায়েত উল্লাহ চৌধুরি সিআইপ, কাতার বিএনপির সভাপতি আবু সাইদ, বাহরাইন বিএনপির সভাপতি
সাবের আহমদ, কুয়েত বিএনপির সদস্য সচিব শওকত আলী, বেলজিয়াম বিএনপির সভাপতি আহমদ সাজা, সাধারন সম্পাদক ইকবাল হোসেন বাবু, সিনিয়র যুগ্ন সম্পাদক আলম হোসেন, জার্মান বিএনপির সভাপতি আকুল মিয়া, যুগ্ন সম্পাদক মুস্তাক খান, মধ্যপ্রাচ্য বিভিন্ন দেশের নেতৃবৃন্দর মধ্য উপস্হিত ছিলেন আক্তারুজামান সামস,ফয়সাল আহমেদ(কিং ফয়সাল),একরাম আলী বাবুল,আব্দু মান্নান এরশাদ আহমদ,শেখ নিজামুর রহমান টিপু, মিজানুর রহমান চৌধুরী রুমন, আনোয়ার হোসেন,সুমন আহমেদ আনসারী, জহির আহমদ ,নুরুল আবসার চৌধুরী, চুন্নু মোল্লা , মফিজুল ইসলাম বাবুল ,শওকত আলী , নুরুল আলম , সাদেক আহমদ ,আজিম উদ্দিন , ফারুক মাহমুদ চৌধুরী , মৌলানা আব্দুল্লাহ , সোয়েব আহমদ , মাঈন উদ্দিন , রুহুল আমিন , ঈসা চৌধুরী , মাহি আলম , গোলাম সরওয়ার মিশু , মহি উদ্দিন কাজল , গাজি বাবুল মিয়া , মুস্তাক আজিজ মান্না , আজিজুর রহমান , ওয়াসিম আকরাম প্রমুখ।
শুধু দোয়াতে শরীক থাকার কথা থাকলেও ২ ঘন্টারও বেশি সময় উপস্থিত থেকে সকলের আলোচনা শুনে আয়োজকদের অনুরোধে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, বক্তারা মরহুম মাহবুব আলী খান সম্পর্কে বিষদ আলোচনা করেছেন। তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের শাহাদত বরণের দিন রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খান জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে নৌপথে ঢাকা এসে রেডিওতে গিয়ে ভাষণ দিয়ে সেসময়ের নির্বাচিত সরকারের প্রতি সংহতি প্রকাশ করেন। তিনি সংকটে-সমরে-দূর্বিপাকে সবসময় মানুষের পাশে ছিলেন। তারেক রহমান তার বক্তব্যে দেশের এই ক্রান্তিকালে নিজ নিজ এলাকার অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য প্রবাসী নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান।

সাংবাদিক মুশফিকুল ফজল আনসারী বলেন, রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খান ছিলেন একজন নিভৃতচারী দেশপ্রেমিক, ক্ষণজন্মা ব্যক্তিত্ব। যশ, খ্যাতি, প্রতিপত্তি, লোভ, লালসা কেনো কিছুই স্পর্শ করতে পারেনি তাঁকে। নৌসেনা থেকে বাহিনী প্রধান আবার উপপ্রধান সামরিক আইন প্রশাসক থেকে উপদেষ্টা-মন্ত্রী কিংবা কূটনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নে বিশ্ব দরবারে সরব উপস্থিতি জানান দেয় তাঁর দক্ষতা, বিচক্ষণতা আর কর্তব্যবোধের। তিনি বলেন, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে পরিবারসহ পাকিস্তানে সহ্যকরেছেন গৃহবন্দিত্বের খড়গ। ভাতা ভোগ বা আয়েশি জীবনকে তুচ্ছ করে অটল থেকেছেন স্বাধীন স্বদেশে নি:শ্বাস নেয়ার দীপ্ত শপথে।
মরহুম মাহবুব আলী খানের অবাক করা পারিবারিক ঐতিহ্যের বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে মুশফিকুল ফজল আনসারী বলেন, তৎকালীন ভারতের প্রথম মুসলিম ব্যারিস্টার আহমেদ আলী খান তার পিতা। ১৯০১ সালে বার এ্যাট ‘ল ডিগ্রিধারী আহমেদ আলী খান ছিলেন নিখিল ভারত আইনপরিষদের সদস্য (এম এল এ) ও আসাম কংগ্রেসের প্রেসিডেন্ট । জনাব মাহবুব আলী খানের দাদা ছিলেন ভারতের বিশিষ্ট চিকিৎসক খান বাহাদুর আছদ্দর আলী খান। তিনি বিহার ও আসামের দারভাঙ্গা মেডিকেল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও পাটনা মেডিকেলকলেজের অধ্যাপক। সিলেটে দুটি হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা। আজও সেই ঐতিহ্যের অন্যতম ধারক রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খানের কন্যা ডা. জোবায়দা রহমান। যিনি ৫২টি দেশকে পেছনে ফেলে বিশ্বখ্যাত সোয়াস থেকে অর্জন করেছেন প্রিভেনটিভ কার্ডিওলজির উপর এমএসসি ডিগ্রিতে প্রথম স্থান। আর নাতনী ব্যারিস্টার জায়মা রহমান শুধু গর্বিত উত্তারাধিকারই নন, এক নবপ্ররণা।
সৌদি আরব পশ্চিমাঞ্চল বিএনপির সভাপতি আহমেদ আলী মুকিব বলেন, রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খান ছিলেন একজন অনুকরনীয় ব্যক্তিত্ব। তাঁর জীবনের অনেক গুলো দিক এখনো অজানা। নতুন প্রজন্মের কাছে রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খানের জীবন ও কর্ম তুলে ধরার উপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি। মরহুম মাহবুব আলী খানের রুহের মাগফেরাত ও তাঁর পরিবারসহ সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কল্যাণ এবং দেশের মানুষের সার্বিক মুক্তি কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন আলহাজ্ব আহমেদ আলী মুকিব।

পোস্ট শেয়ার করুন

মধ্যপ্রাচ্য বিএনপির ভার্চুয়াল দোআ মাহফিল ও আলোচনায় যোগ দিলেন তারেক রহমান

আপডেটের সময় : ০৫:২৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ অগাস্ট ২০২০

মধ্যপ্রাচ্য বিএনপির ভার্চুয়াল আলোচনায় যোগ দিলেন তারেক রহমান
‘রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খান একজন প্রকৃত দেশপ্রেমিক ও ক্ষণজন্মা ব্যক্তিত্ব’

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বলেছেন, রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খান ছিলেন একজন প্রকৃত দেশপ্রেমিক, পরোপকারী, সৎ, ত্যাগি, সর্বপরি একজন ক্ষণজন্মা ব্যক্তিত্ব। জীবনের প্রতিটি পরতে তিনি রেখেছেন দক্ষতার উজ্জল স্বাক্ষর। দেশ, সমাজ ও রাষ্ট্র বিনির্মানে জনাব মাহবুব আলী খানের অবদান অনস্বিকার্য।

সাবেক মন্ত্রী ও নৌবাহিনীর প্রধান রিয়াল এডমিরাল মাহবুব আলী খানের ৩৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মধ্যপ্রাচ্য বিএনপির উদ্দোগে ভার্চ্যুয়াল যোগাযোগ মাধ্যমে অনুষ্টিত এক স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিল যোগ দিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির কেন্দ্রীয নির্বাহী কমিটির সদস্য মধ্যপ্রাচ্য সাংগঠনিক সমন্বয়ক সৌদিআরব বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব আহমদ আলী মুকিবের সভাপতিত্বে
সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্হিত ছিলেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জনাব তারেক রহমান।
এতে রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খানের জীবন ও কর্ম নিয়ে মুল বক্তব্য উপস্থাপন করেন জাতিসংঘ ও হোয়াইট হাউসে প্রতিনিধিত্বকারী সাংবাদিক জাস্টনিউজ সম্পাদক মুশফিকুল ফজল আনসারী। কাতার বিএনপির সাধারন সম্পাদক শরিফুল হক সাজুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে অংশ নেন সৌদিআরব বিএনপির সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান তপন, কুয়েত বিএনপির আহবায়ক মাষ্টার নুরুল ইসলাম, পুর্ব সভাপতি অধ্যাপক আ ক ম রফিকুল ইসলাম, সহসভাপতি কেপায়েত উল্লাহ চৌধুরি সিআইপ, কাতার বিএনপির সভাপতি আবু সাইদ, বাহরাইন বিএনপির সভাপতি
সাবের আহমদ, কুয়েত বিএনপির সদস্য সচিব শওকত আলী, বেলজিয়াম বিএনপির সভাপতি আহমদ সাজা, সাধারন সম্পাদক ইকবাল হোসেন বাবু, সিনিয়র যুগ্ন সম্পাদক আলম হোসেন, জার্মান বিএনপির সভাপতি আকুল মিয়া, যুগ্ন সম্পাদক মুস্তাক খান, মধ্যপ্রাচ্য বিভিন্ন দেশের নেতৃবৃন্দর মধ্য উপস্হিত ছিলেন আক্তারুজামান সামস,ফয়সাল আহমেদ(কিং ফয়সাল),একরাম আলী বাবুল,আব্দু মান্নান এরশাদ আহমদ,শেখ নিজামুর রহমান টিপু, মিজানুর রহমান চৌধুরী রুমন, আনোয়ার হোসেন,সুমন আহমেদ আনসারী, জহির আহমদ ,নুরুল আবসার চৌধুরী, চুন্নু মোল্লা , মফিজুল ইসলাম বাবুল ,শওকত আলী , নুরুল আলম , সাদেক আহমদ ,আজিম উদ্দিন , ফারুক মাহমুদ চৌধুরী , মৌলানা আব্দুল্লাহ , সোয়েব আহমদ , মাঈন উদ্দিন , রুহুল আমিন , ঈসা চৌধুরী , মাহি আলম , গোলাম সরওয়ার মিশু , মহি উদ্দিন কাজল , গাজি বাবুল মিয়া , মুস্তাক আজিজ মান্না , আজিজুর রহমান , ওয়াসিম আকরাম প্রমুখ।
শুধু দোয়াতে শরীক থাকার কথা থাকলেও ২ ঘন্টারও বেশি সময় উপস্থিত থেকে সকলের আলোচনা শুনে আয়োজকদের অনুরোধে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, বক্তারা মরহুম মাহবুব আলী খান সম্পর্কে বিষদ আলোচনা করেছেন। তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের শাহাদত বরণের দিন রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খান জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে নৌপথে ঢাকা এসে রেডিওতে গিয়ে ভাষণ দিয়ে সেসময়ের নির্বাচিত সরকারের প্রতি সংহতি প্রকাশ করেন। তিনি সংকটে-সমরে-দূর্বিপাকে সবসময় মানুষের পাশে ছিলেন। তারেক রহমান তার বক্তব্যে দেশের এই ক্রান্তিকালে নিজ নিজ এলাকার অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য প্রবাসী নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান।

সাংবাদিক মুশফিকুল ফজল আনসারী বলেন, রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খান ছিলেন একজন নিভৃতচারী দেশপ্রেমিক, ক্ষণজন্মা ব্যক্তিত্ব। যশ, খ্যাতি, প্রতিপত্তি, লোভ, লালসা কেনো কিছুই স্পর্শ করতে পারেনি তাঁকে। নৌসেনা থেকে বাহিনী প্রধান আবার উপপ্রধান সামরিক আইন প্রশাসক থেকে উপদেষ্টা-মন্ত্রী কিংবা কূটনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নে বিশ্ব দরবারে সরব উপস্থিতি জানান দেয় তাঁর দক্ষতা, বিচক্ষণতা আর কর্তব্যবোধের। তিনি বলেন, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে পরিবারসহ পাকিস্তানে সহ্যকরেছেন গৃহবন্দিত্বের খড়গ। ভাতা ভোগ বা আয়েশি জীবনকে তুচ্ছ করে অটল থেকেছেন স্বাধীন স্বদেশে নি:শ্বাস নেয়ার দীপ্ত শপথে।
মরহুম মাহবুব আলী খানের অবাক করা পারিবারিক ঐতিহ্যের বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে মুশফিকুল ফজল আনসারী বলেন, তৎকালীন ভারতের প্রথম মুসলিম ব্যারিস্টার আহমেদ আলী খান তার পিতা। ১৯০১ সালে বার এ্যাট ‘ল ডিগ্রিধারী আহমেদ আলী খান ছিলেন নিখিল ভারত আইনপরিষদের সদস্য (এম এল এ) ও আসাম কংগ্রেসের প্রেসিডেন্ট । জনাব মাহবুব আলী খানের দাদা ছিলেন ভারতের বিশিষ্ট চিকিৎসক খান বাহাদুর আছদ্দর আলী খান। তিনি বিহার ও আসামের দারভাঙ্গা মেডিকেল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও পাটনা মেডিকেলকলেজের অধ্যাপক। সিলেটে দুটি হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা। আজও সেই ঐতিহ্যের অন্যতম ধারক রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খানের কন্যা ডা. জোবায়দা রহমান। যিনি ৫২টি দেশকে পেছনে ফেলে বিশ্বখ্যাত সোয়াস থেকে অর্জন করেছেন প্রিভেনটিভ কার্ডিওলজির উপর এমএসসি ডিগ্রিতে প্রথম স্থান। আর নাতনী ব্যারিস্টার জায়মা রহমান শুধু গর্বিত উত্তারাধিকারই নন, এক নবপ্ররণা।
সৌদি আরব পশ্চিমাঞ্চল বিএনপির সভাপতি আহমেদ আলী মুকিব বলেন, রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খান ছিলেন একজন অনুকরনীয় ব্যক্তিত্ব। তাঁর জীবনের অনেক গুলো দিক এখনো অজানা। নতুন প্রজন্মের কাছে রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খানের জীবন ও কর্ম তুলে ধরার উপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি। মরহুম মাহবুব আলী খানের রুহের মাগফেরাত ও তাঁর পরিবারসহ সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কল্যাণ এবং দেশের মানুষের সার্বিক মুক্তি কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন আলহাজ্ব আহমেদ আলী মুকিব।