ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
বাংলাদেশে কোটা আন্দোলনে হত্যার প্রতিবাদে পর্তুগালে বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশী প্রবাসীরা প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর

বড়লেখায় ২ হাজার গ্যাস গ্রাহকের চরম দুর্ভোগ

বড়লেখা প্রতিনিধি:
  • আপডেটের সময় : ০৫:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ জুলাই ২০২০
  • / ৩২৯ টাইম ভিউ

বড়লেখায় পল্লীবিদ্যুতের ৩৩ হাজার ভল্টের মেইন লাইনের একটি খুঁটি উচ্চ চাপের গ্যাস সরবরাহ পাইপের ওপর পুতায় বৃহস্পতিবার বিকেলে গ্যাস পাইপ ছিদ্র হয়ে বিদ্যুৎ লাইনে মারাত্মক বিষ্ফোরণ ঘটে। এতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

এলাকাটি নির্জন হওয়ায় মারাত্মক দুর্ঘটনার কবল থেকে রক্ষা পায় এলাকাবাসী। তবে গ্যাস ও বিদ্যুৎ বিষ্ফোরণের কারণে প্রচন্ড গরমে অর্ধলক্ষ বিদ্যুৎ গ্রাহককে প্রায় ১০ ঘন্টা বিদ্যুৎহীন থাকতে হয়। রাত ৩টায় বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হলেও বৃহস্পতিবার রাত ১টা থেকে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হয়। এতে উপজেলার দুই সহস্রাধিক আবাসিক ও বাণিজ্যিক গ্যাস গ্রাহক মারাত্মক দুর্ভোগের শিকার হন। বিনানোটিশে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করায় বিশেষ করে দুই শতাধিক বাণিজ্যিক গ্যাস গ্রাহক লাখ লাখ টাকার ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছেন।

পল্লীবিদ্যুতের খুঁটি স্থাপনকারী ঠিকাদারের গাফিলতিতে বিভিন্ন স্থানে গ্যাস ও বিদ্যুৎ বিষ্ফোরণে মারাত্মক দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। অনাকাঙ্খিত দুর্ঘটনা এড়াতে গ্যাস পাইপের ওপর পুতা বৈদ্যুতিক খুঁটি জরুরী ভিত্তিতে সরানোর জন্য বৃহস্পতিবার জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লি: এর সহকারী প্রকৌশলী সফিকুর রহমান পলøীবিদ্যুতের ডিজিএম’কে চিটি দিয়েছেন।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টায় কুলাউড়া-বড়লেখা সওজ রাস্তার পশ্চিম হাতলিয়া নামক স্থানে পল্লীবিদ্যুতের ৩৩ হাজার ভল্ট লাইনের একটি খুঁটিতে মারাত্মক বিষ্ফোরণ ঘটে। মুহূর্তে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। পল্লীবিদ্যুতের লোকজন ও দমকল বাহিনী চেষ্ট চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেন।

অনুসন্ধানে দেখা যায়, বৈদ্যুতিক খুঁটিটি জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লি: এর উচ্চ চাপের একটি গ্যাস পাইপের ওপর পুতা থাকায় পাইপ লিকেজ হয়ে খুঁটির ভেতর দিয়ে গ্যাস ওপরে উঠতে থাকে। খুঁটির ওপরে বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের স্পার্কিংস্থলে পড়ে আগুনের সুত্রপাত ঘটে। রাত ৮টার দিকে মেরামত করে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করা হয়।

দ্বিতীয় দফা বিষ্ফোরণ ঘটায় আবারো বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হয়। রাত ১টায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয়ায় বিপাকে পড়েন দুই সহ্রসাধিক আবাসিক ও বাণিজ্যিক গ্যাস গ্রাহক। শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকায় দুই সহস্রাধিক গ্যাস গ্রাহক পড়েন মহা বিপাকে। দুই শতাধিক বাণিজ্যিক গ্যাস গ্রাহক লাখ লাখ টাকার ক্ষতির সম্মুখিন হন।

জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লি: এর ব্যবস্থাপক আব্দুল মুকিত জানান, পলøীবিদ্যুৎ অনেক জায়গায় গ্যাসের পাইপের ওপর বিদ্যুতের খুঁটি পুতেছে। এতে প্রায়ই বিষ্ফোরণ ঘটছে। পশ্চিম হাতলিয়ায় বিষ্ফোরণ ও অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ঝুঁকি এড়াতে বৃহস্পতিবার রাত ১ টায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করেন। শুক্রবার সকাল থেকে তিনি উপস্থিত থেকে মেরামত কাজ তদারকি করছেন। আশা করছেন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে লাইন চালু করা সম্ভব হবে।

তিনি আরো জানান, গ্যাস পাইপের ওপর পুতা বৈদ্যুতিক খুঁটি জরুরী ভিত্তিতে সরিয়ে নেয়ার জন্য জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লি: এর পক্ষ থেকে পল্লীবিদ্যুতের উপ-মহাব্যবস্থাপককে বৃহস্পতিবার চিটি দেয়া হয়েছে।

এব্যাপারে পল্লীবিদ্যুতের ডিজিএম মো. ইমাজুদ্দিন সরদার জানান, ঠিকাদাররা খুঁটি পুতার সময় নানা গাফিলতি করেছে। এতে নানা দুর্ঘটনাও ঘটছে। গ্যাসের পাইপের ওপর পুতা খুঁটিগুলো দ্রুত শিপ্টিংয়ের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।#

পোস্ট শেয়ার করুন

বড়লেখায় ২ হাজার গ্যাস গ্রাহকের চরম দুর্ভোগ

আপডেটের সময় : ০৫:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ জুলাই ২০২০

বড়লেখায় পল্লীবিদ্যুতের ৩৩ হাজার ভল্টের মেইন লাইনের একটি খুঁটি উচ্চ চাপের গ্যাস সরবরাহ পাইপের ওপর পুতায় বৃহস্পতিবার বিকেলে গ্যাস পাইপ ছিদ্র হয়ে বিদ্যুৎ লাইনে মারাত্মক বিষ্ফোরণ ঘটে। এতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

এলাকাটি নির্জন হওয়ায় মারাত্মক দুর্ঘটনার কবল থেকে রক্ষা পায় এলাকাবাসী। তবে গ্যাস ও বিদ্যুৎ বিষ্ফোরণের কারণে প্রচন্ড গরমে অর্ধলক্ষ বিদ্যুৎ গ্রাহককে প্রায় ১০ ঘন্টা বিদ্যুৎহীন থাকতে হয়। রাত ৩টায় বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হলেও বৃহস্পতিবার রাত ১টা থেকে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হয়। এতে উপজেলার দুই সহস্রাধিক আবাসিক ও বাণিজ্যিক গ্যাস গ্রাহক মারাত্মক দুর্ভোগের শিকার হন। বিনানোটিশে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করায় বিশেষ করে দুই শতাধিক বাণিজ্যিক গ্যাস গ্রাহক লাখ লাখ টাকার ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছেন।

পল্লীবিদ্যুতের খুঁটি স্থাপনকারী ঠিকাদারের গাফিলতিতে বিভিন্ন স্থানে গ্যাস ও বিদ্যুৎ বিষ্ফোরণে মারাত্মক দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। অনাকাঙ্খিত দুর্ঘটনা এড়াতে গ্যাস পাইপের ওপর পুতা বৈদ্যুতিক খুঁটি জরুরী ভিত্তিতে সরানোর জন্য বৃহস্পতিবার জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লি: এর সহকারী প্রকৌশলী সফিকুর রহমান পলøীবিদ্যুতের ডিজিএম’কে চিটি দিয়েছেন।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টায় কুলাউড়া-বড়লেখা সওজ রাস্তার পশ্চিম হাতলিয়া নামক স্থানে পল্লীবিদ্যুতের ৩৩ হাজার ভল্ট লাইনের একটি খুঁটিতে মারাত্মক বিষ্ফোরণ ঘটে। মুহূর্তে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। পল্লীবিদ্যুতের লোকজন ও দমকল বাহিনী চেষ্ট চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেন।

অনুসন্ধানে দেখা যায়, বৈদ্যুতিক খুঁটিটি জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লি: এর উচ্চ চাপের একটি গ্যাস পাইপের ওপর পুতা থাকায় পাইপ লিকেজ হয়ে খুঁটির ভেতর দিয়ে গ্যাস ওপরে উঠতে থাকে। খুঁটির ওপরে বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের স্পার্কিংস্থলে পড়ে আগুনের সুত্রপাত ঘটে। রাত ৮টার দিকে মেরামত করে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করা হয়।

দ্বিতীয় দফা বিষ্ফোরণ ঘটায় আবারো বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হয়। রাত ১টায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয়ায় বিপাকে পড়েন দুই সহ্রসাধিক আবাসিক ও বাণিজ্যিক গ্যাস গ্রাহক। শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকায় দুই সহস্রাধিক গ্যাস গ্রাহক পড়েন মহা বিপাকে। দুই শতাধিক বাণিজ্যিক গ্যাস গ্রাহক লাখ লাখ টাকার ক্ষতির সম্মুখিন হন।

জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লি: এর ব্যবস্থাপক আব্দুল মুকিত জানান, পলøীবিদ্যুৎ অনেক জায়গায় গ্যাসের পাইপের ওপর বিদ্যুতের খুঁটি পুতেছে। এতে প্রায়ই বিষ্ফোরণ ঘটছে। পশ্চিম হাতলিয়ায় বিষ্ফোরণ ও অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ঝুঁকি এড়াতে বৃহস্পতিবার রাত ১ টায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করেন। শুক্রবার সকাল থেকে তিনি উপস্থিত থেকে মেরামত কাজ তদারকি করছেন। আশা করছেন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে লাইন চালু করা সম্ভব হবে।

তিনি আরো জানান, গ্যাস পাইপের ওপর পুতা বৈদ্যুতিক খুঁটি জরুরী ভিত্তিতে সরিয়ে নেয়ার জন্য জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লি: এর পক্ষ থেকে পল্লীবিদ্যুতের উপ-মহাব্যবস্থাপককে বৃহস্পতিবার চিটি দেয়া হয়েছে।

এব্যাপারে পল্লীবিদ্যুতের ডিজিএম মো. ইমাজুদ্দিন সরদার জানান, ঠিকাদাররা খুঁটি পুতার সময় নানা গাফিলতি করেছে। এতে নানা দুর্ঘটনাও ঘটছে। গ্যাসের পাইপের ওপর পুতা খুঁটিগুলো দ্রুত শিপ্টিংয়ের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।#