ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
বাংলাদেশে কোটা আন্দোলনে হত্যার প্রতিবাদে পর্তুগালে বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশী প্রবাসীরা প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর

বড়লেখায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ২৬ জনকে অর্থদণ্ড

বড়লেখা প্রতিনিধি:
  • আপডেটের সময় : ০২:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ জুন ২০২০
  • / ৪৫০ টাইম ভিউ

বড়লেখায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ২৬ জনকে অর্থদণ্ড করা হয়েছে।গত বৃহস্পতিবার বিকেলে বড়লেখার উপজেলার কাঠালতলী ও দক্ষিণভাগসহ বিভিন্ন হাটবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাস্ক ছাড়া ঘোরাফেরা, নির্ধারিত সময়ের পর দোকান খোলা রাখা ও যানবাহনে অধিক যাত্রী পরিবহণের অপরাধে তাদেরকে ৩৪ হাজার ১০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

উক্ত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহি অফিসার কর্মকর্তা মোঃ শামীম আল ইমরান। এসময় থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইয়াছিনুল হক উপস্থিত ছিলেন। ইউএনও মোঃ শামীম আল ইমরান জানান, করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে বৃহস্পতিবার উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার এলাকায় থানা পুলিশের সহযোগিতায় অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে মাস্ক ছাড়া ঘোরাফেরা, নির্ধারিত সময়ের পরও দোকান খোলা রাখা ও গণপরিবহণে অধিক যাত্রী পরিবহণ করে স্বাস্থ্য বিধি লঙ্ঘন করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের ২৬টি মামলায় ৩৪ হাজার ১০০ টাকা অর্থদণ্ড আরোপ ও আদায় করেছেন। এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।#

পোস্ট শেয়ার করুন

বড়লেখায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ২৬ জনকে অর্থদণ্ড

আপডেটের সময় : ০২:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ জুন ২০২০

বড়লেখায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ২৬ জনকে অর্থদণ্ড করা হয়েছে।গত বৃহস্পতিবার বিকেলে বড়লেখার উপজেলার কাঠালতলী ও দক্ষিণভাগসহ বিভিন্ন হাটবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাস্ক ছাড়া ঘোরাফেরা, নির্ধারিত সময়ের পর দোকান খোলা রাখা ও যানবাহনে অধিক যাত্রী পরিবহণের অপরাধে তাদেরকে ৩৪ হাজার ১০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

উক্ত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহি অফিসার কর্মকর্তা মোঃ শামীম আল ইমরান। এসময় থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইয়াছিনুল হক উপস্থিত ছিলেন। ইউএনও মোঃ শামীম আল ইমরান জানান, করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে বৃহস্পতিবার উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার এলাকায় থানা পুলিশের সহযোগিতায় অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে মাস্ক ছাড়া ঘোরাফেরা, নির্ধারিত সময়ের পরও দোকান খোলা রাখা ও গণপরিবহণে অধিক যাত্রী পরিবহণ করে স্বাস্থ্য বিধি লঙ্ঘন করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের ২৬টি মামলায় ৩৪ হাজার ১০০ টাকা অর্থদণ্ড আরোপ ও আদায় করেছেন। এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।#