ঢাকা , রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
লিসবনে আত্মপ্রকাশ হয় সামাজিক সংগঠন “গোলাপগঞ্জ কমিউনিটি কেয়ারর্স পর্তুগাল “ উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল

বিমানবন্দর সড়ক বন্ধ, এবার বাসে আগুন

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক:
  • আপডেটের সময় : ০৬:০৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৭ জানুয়ারী ২০১৯
  • / ৮৪৮ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: আজ সোমবার ৭ জানুয়ারি দুপুরে বিমানবন্দরের সামনের সড়কে একটি বাসে শ্রমিকরা আগুন ধরিয়ে দেন বলে ঘটনাস্থল থেকে আমাদের প্রতিনিধি জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে প্রতিনিধি জানান, দুপুর ১টা ১০ মিনিটের দিকে বিমানবন্দরের সামনের চত্বরসংলগ্ন রাস্তায় এনা পরিবহনের বাসটি ভাংচুরের পর তাতে আগুন দেন শ্রমকিরা। তাছাড়া এর আগে সকাল থেকেই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটির বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিতে শুরু করেন শ্রমিকরা। এ ব্যাপারে বিমান বন্দর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মিজানুর রহমান বলেন, ‘সকাল ৯টার পর থেকে শ্রমিকরা রাস্তায় জড়ো হতে থাকে। রবিবার তারা যে দাবি নিয়ে রাস্তায় নেমেছিল একই দাবি নিয়ে আজও তারা স্লোগান দিচ্ছে। বেলা সোয়া ১২টা থেকে আজমপুর, জসমিউদ্দিন ক্রসিং এবং বিমানন্দর সড়কে যান চলাচল একেবারেই বন্ধ রয়েছে।’ এ সময় ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানান হয়েছে, শ্রমিকরা রাস্তায় অবস্থান নেওয়ায় সকাল ১১টার পর উত্তরার আজমপুরে প্রথমে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এরপর বেলা সোয়া ১২টা থেকে বিমানবন্দরের সামনেও যান চলাচল বন্ধ হয়।

পোস্ট শেয়ার করুন

বিমানবন্দর সড়ক বন্ধ, এবার বাসে আগুন

আপডেটের সময় : ০৬:০৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৭ জানুয়ারী ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: আজ সোমবার ৭ জানুয়ারি দুপুরে বিমানবন্দরের সামনের সড়কে একটি বাসে শ্রমিকরা আগুন ধরিয়ে দেন বলে ঘটনাস্থল থেকে আমাদের প্রতিনিধি জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে প্রতিনিধি জানান, দুপুর ১টা ১০ মিনিটের দিকে বিমানবন্দরের সামনের চত্বরসংলগ্ন রাস্তায় এনা পরিবহনের বাসটি ভাংচুরের পর তাতে আগুন দেন শ্রমকিরা। তাছাড়া এর আগে সকাল থেকেই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটির বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিতে শুরু করেন শ্রমিকরা। এ ব্যাপারে বিমান বন্দর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মিজানুর রহমান বলেন, ‘সকাল ৯টার পর থেকে শ্রমিকরা রাস্তায় জড়ো হতে থাকে। রবিবার তারা যে দাবি নিয়ে রাস্তায় নেমেছিল একই দাবি নিয়ে আজও তারা স্লোগান দিচ্ছে। বেলা সোয়া ১২টা থেকে আজমপুর, জসমিউদ্দিন ক্রসিং এবং বিমানন্দর সড়কে যান চলাচল একেবারেই বন্ধ রয়েছে।’ এ সময় ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানান হয়েছে, শ্রমিকরা রাস্তায় অবস্থান নেওয়ায় সকাল ১১টার পর উত্তরার আজমপুরে প্রথমে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এরপর বেলা সোয়া ১২টা থেকে বিমানবন্দরের সামনেও যান চলাচল বন্ধ হয়।