ঢাকা , সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
বাংলাদেশে কোটা আন্দোলনে হত্যার প্রতিবাদে পর্তুগালে বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশী প্রবাসীরা প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর

বিমানবন্দর সড়ক বন্ধ, এবার বাসে আগুন

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক:
  • আপডেটের সময় : ০৬:০৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৭ জানুয়ারী ২০১৯
  • / ৯০৫ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: আজ সোমবার ৭ জানুয়ারি দুপুরে বিমানবন্দরের সামনের সড়কে একটি বাসে শ্রমিকরা আগুন ধরিয়ে দেন বলে ঘটনাস্থল থেকে আমাদের প্রতিনিধি জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে প্রতিনিধি জানান, দুপুর ১টা ১০ মিনিটের দিকে বিমানবন্দরের সামনের চত্বরসংলগ্ন রাস্তায় এনা পরিবহনের বাসটি ভাংচুরের পর তাতে আগুন দেন শ্রমকিরা। তাছাড়া এর আগে সকাল থেকেই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটির বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিতে শুরু করেন শ্রমিকরা। এ ব্যাপারে বিমান বন্দর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মিজানুর রহমান বলেন, ‘সকাল ৯টার পর থেকে শ্রমিকরা রাস্তায় জড়ো হতে থাকে। রবিবার তারা যে দাবি নিয়ে রাস্তায় নেমেছিল একই দাবি নিয়ে আজও তারা স্লোগান দিচ্ছে। বেলা সোয়া ১২টা থেকে আজমপুর, জসমিউদ্দিন ক্রসিং এবং বিমানন্দর সড়কে যান চলাচল একেবারেই বন্ধ রয়েছে।’ এ সময় ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানান হয়েছে, শ্রমিকরা রাস্তায় অবস্থান নেওয়ায় সকাল ১১টার পর উত্তরার আজমপুরে প্রথমে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এরপর বেলা সোয়া ১২টা থেকে বিমানবন্দরের সামনেও যান চলাচল বন্ধ হয়।

পোস্ট শেয়ার করুন

বিমানবন্দর সড়ক বন্ধ, এবার বাসে আগুন

আপডেটের সময় : ০৬:০৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৭ জানুয়ারী ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: আজ সোমবার ৭ জানুয়ারি দুপুরে বিমানবন্দরের সামনের সড়কে একটি বাসে শ্রমিকরা আগুন ধরিয়ে দেন বলে ঘটনাস্থল থেকে আমাদের প্রতিনিধি জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে প্রতিনিধি জানান, দুপুর ১টা ১০ মিনিটের দিকে বিমানবন্দরের সামনের চত্বরসংলগ্ন রাস্তায় এনা পরিবহনের বাসটি ভাংচুরের পর তাতে আগুন দেন শ্রমকিরা। তাছাড়া এর আগে সকাল থেকেই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটির বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিতে শুরু করেন শ্রমিকরা। এ ব্যাপারে বিমান বন্দর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মিজানুর রহমান বলেন, ‘সকাল ৯টার পর থেকে শ্রমিকরা রাস্তায় জড়ো হতে থাকে। রবিবার তারা যে দাবি নিয়ে রাস্তায় নেমেছিল একই দাবি নিয়ে আজও তারা স্লোগান দিচ্ছে। বেলা সোয়া ১২টা থেকে আজমপুর, জসমিউদ্দিন ক্রসিং এবং বিমানন্দর সড়কে যান চলাচল একেবারেই বন্ধ রয়েছে।’ এ সময় ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানান হয়েছে, শ্রমিকরা রাস্তায় অবস্থান নেওয়ায় সকাল ১১টার পর উত্তরার আজমপুরে প্রথমে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এরপর বেলা সোয়া ১২টা থেকে বিমানবন্দরের সামনেও যান চলাচল বন্ধ হয়।