ঢাকা , বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি

বাড়ি ফেরার পথে প্রাণ হারালেন ১৭ জন

অনলাইন ডেস্ক :
  • আপডেটের সময় : ০৫:৫৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ জুন ২০১৭
  • / ১২১৯ টাইম ভিউ

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় যাত্রীবোঝাই একটি ট্রাক উল্টে ১৭ জন নিহত হয়েছেন।
শনিবার ভোর ৫টার দিকে উপজেলার কলবাড়ি এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১০ জন।
নিহত সবার বাড়ি লালমনিরহাট জেলার কারীগঞ্জ ও আদিতমারী উপজেলায়। ঈদের ছুটিতে যাওয়া বাড়ি যাওয়া ওই ব্যক্তিদের সবাই গার্মেন্টসকর্মী।
রংপুর হাইওয়ে পুলিশের সিনিয়র এএসপি ধীরেন্দ্র চন্দ্র মহাপাত্র সমকালকে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।
নিহতদের মধ্যে ১৫ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- রবিউল ইসলাম, নাসিদা আক্তার, আজিজুল ইসলাম, আলমগীর হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, জসিম উদ্দিন, আনিছুজ্জামান, সুর্পণা, কোহিনুর ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, মজনু মিয়া, সাদ্দাম হোসেন, মুনির হোসেন, রফিকুল ইসলাম, ও খলিল মিয়া।
সিনিয়র এএসপি ধীরেন্দ্র চন্দ্র মহাপাত্র জানান, সিমেন্টবোঝাই ট্রাকটি ৫০ জনের মত যাত্রী নিয়ে ঢাকা থেকে লালমনিরহাটে যাচ্ছিল। পীরগঞ্জের কলাবাড়ি এলাকায় পৌঁছালে এটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে যায়। এ সময় ঘটনাস্থলেই ১০ জন নিহত ও ১৭ জন আহত হন। আহতদের পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর চিকিৎসক আরও সাতজনকে মৃত ঘোষণা করেন।
তিনি জানান, গুরুতর আহত আরও ৭ জনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
রংপুর ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক সুলতান রেজা খান জানান, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে। লাশগুলো বর্তমানে পীরগঞ্জ সাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও হাইওয়ে পুলিশের কাছে রয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, ট্রাকটি চালাচ্ছিল ড্রাইভারের সহকারী। চালক ঘুমাচ্ছিল। দুর্ঘটনার পর চালক ও সহকারী দুইজনেই পালিয়ে যায়।

পোস্ট শেয়ার করুন

বাড়ি ফেরার পথে প্রাণ হারালেন ১৭ জন

আপডেটের সময় : ০৫:৫৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ জুন ২০১৭

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় যাত্রীবোঝাই একটি ট্রাক উল্টে ১৭ জন নিহত হয়েছেন।
শনিবার ভোর ৫টার দিকে উপজেলার কলবাড়ি এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১০ জন।
নিহত সবার বাড়ি লালমনিরহাট জেলার কারীগঞ্জ ও আদিতমারী উপজেলায়। ঈদের ছুটিতে যাওয়া বাড়ি যাওয়া ওই ব্যক্তিদের সবাই গার্মেন্টসকর্মী।
রংপুর হাইওয়ে পুলিশের সিনিয়র এএসপি ধীরেন্দ্র চন্দ্র মহাপাত্র সমকালকে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।
নিহতদের মধ্যে ১৫ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- রবিউল ইসলাম, নাসিদা আক্তার, আজিজুল ইসলাম, আলমগীর হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, জসিম উদ্দিন, আনিছুজ্জামান, সুর্পণা, কোহিনুর ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, মজনু মিয়া, সাদ্দাম হোসেন, মুনির হোসেন, রফিকুল ইসলাম, ও খলিল মিয়া।
সিনিয়র এএসপি ধীরেন্দ্র চন্দ্র মহাপাত্র জানান, সিমেন্টবোঝাই ট্রাকটি ৫০ জনের মত যাত্রী নিয়ে ঢাকা থেকে লালমনিরহাটে যাচ্ছিল। পীরগঞ্জের কলাবাড়ি এলাকায় পৌঁছালে এটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে যায়। এ সময় ঘটনাস্থলেই ১০ জন নিহত ও ১৭ জন আহত হন। আহতদের পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর চিকিৎসক আরও সাতজনকে মৃত ঘোষণা করেন।
তিনি জানান, গুরুতর আহত আরও ৭ জনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
রংপুর ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক সুলতান রেজা খান জানান, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে। লাশগুলো বর্তমানে পীরগঞ্জ সাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও হাইওয়ে পুলিশের কাছে রয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, ট্রাকটি চালাচ্ছিল ড্রাইভারের সহকারী। চালক ঘুমাচ্ছিল। দুর্ঘটনার পর চালক ও সহকারী দুইজনেই পালিয়ে যায়।