ঢাকা , রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাড়িতে মায়ের লাশ, পরীক্ষা কেন্দ্রে মেয়ে!

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ১০:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৯
  • / ৭৮৪ টাইম ভিউ

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার ব্রাহ্মণডুরা ইউনিয়নের বিশাউড়া গ্রামে মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা কেন্দ্রে উপস্থিত হলেন শিরিন আক্তার নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী।

বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে মায়ের মৃত্যুর শোকে চোখে অশ্রু নিয়ে শায়েস্তাগঞ্জ বালিকা উচ্চ পরীক্ষা কেন্দ্রে পদার্থ বিজ্ঞান পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে শিরিন।

বার বার সে নিজেকে হারিয়ে ফেললেও সহপাঠি ও শিক্ষকদের সহযোগিতায় শিরিন আক্তার পরীক্ষা দিচ্ছেন।

এ ঘটনায় বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ছাত্রীর মায়ের মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পরার পর এক হাতে চোখ মুছতে ও অন্য হাত দিয়ে খাতায় উত্তরপত্র লিখতে দেখা যায়।

এ সংবাদ পেয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মুজিবুর রহমান পরীক্ষা কেন্দ্রে ছুটে গিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে সান্ত্বনা দেন। এসময় আবেগ ঘন মুহুর্ত ছড়িয়ে পড়ে পরীক্ষা কক্ষে।

সুন্দরভাবে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের কথা জানান শিক্ষা অফিসার।

জানা যায়, এসএসসি পরীক্ষার্থী শিরিন আক্তার জেলার শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার বিশাউড়া গ্রামের মো. আহাদ মিয়ার মেয়ে। তার মায়ের নাম জাহানারা আক্তার। শিরিন মোজাহের উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগের মেধাবী শিক্ষার্থী।

মোজাহের উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রিয়াজ উদ্দিন বাবার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শিরিন আক্তার মেধাবী ছাত্রী। দশম শ্রেণীতে তার রোল ছিল ৫। বুধবার রাত সাড়ে ১১টায় নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন শিরিন আক্তারের মা জাহানারা আক্তার।

ব্রাহ্মণডুরা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার ডা. আবুল কালাম জানান, এসএসসি পরীক্ষার্থী শিরিন আক্তারের মা জাহানারার লাশ দুপুর ২টায় মেয়ে পরীক্ষা থেকে আসার পর দাফন করা হবে।

পোস্ট শেয়ার করুন

বাড়িতে মায়ের লাশ, পরীক্ষা কেন্দ্রে মেয়ে!

আপডেটের সময় : ১০:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার ব্রাহ্মণডুরা ইউনিয়নের বিশাউড়া গ্রামে মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা কেন্দ্রে উপস্থিত হলেন শিরিন আক্তার নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী।

বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে মায়ের মৃত্যুর শোকে চোখে অশ্রু নিয়ে শায়েস্তাগঞ্জ বালিকা উচ্চ পরীক্ষা কেন্দ্রে পদার্থ বিজ্ঞান পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে শিরিন।

বার বার সে নিজেকে হারিয়ে ফেললেও সহপাঠি ও শিক্ষকদের সহযোগিতায় শিরিন আক্তার পরীক্ষা দিচ্ছেন।

এ ঘটনায় বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ছাত্রীর মায়ের মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পরার পর এক হাতে চোখ মুছতে ও অন্য হাত দিয়ে খাতায় উত্তরপত্র লিখতে দেখা যায়।

এ সংবাদ পেয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মুজিবুর রহমান পরীক্ষা কেন্দ্রে ছুটে গিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে সান্ত্বনা দেন। এসময় আবেগ ঘন মুহুর্ত ছড়িয়ে পড়ে পরীক্ষা কক্ষে।

সুন্দরভাবে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের কথা জানান শিক্ষা অফিসার।

জানা যায়, এসএসসি পরীক্ষার্থী শিরিন আক্তার জেলার শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার বিশাউড়া গ্রামের মো. আহাদ মিয়ার মেয়ে। তার মায়ের নাম জাহানারা আক্তার। শিরিন মোজাহের উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগের মেধাবী শিক্ষার্থী।

মোজাহের উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রিয়াজ উদ্দিন বাবার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শিরিন আক্তার মেধাবী ছাত্রী। দশম শ্রেণীতে তার রোল ছিল ৫। বুধবার রাত সাড়ে ১১টায় নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন শিরিন আক্তারের মা জাহানারা আক্তার।

ব্রাহ্মণডুরা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার ডা. আবুল কালাম জানান, এসএসসি পরীক্ষার্থী শিরিন আক্তারের মা জাহানারার লাশ দুপুর ২টায় মেয়ে পরীক্ষা থেকে আসার পর দাফন করা হবে।