ঢাকা , বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পূর্ব লন্ডনে বড়লেখার সোয়েব আহমেদের সমর্থনে মতবিনিময় সভা ইতালির ভেনিসে গ্রিন সিলেট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন এর জরুরি সভা অনুষ্ঠিত ইতালির ভেনিসে এনটিভির ইউরোপের ডিরেক্টর সাবরিনা হোসাইন কে সংবর্ধনা দিয়েছে ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাব পর্তুগালে বেজা আওয়ামীলীগের কর্মি সভা পর্তুগাল এ ফ্রেন্ডশিপ ক্রিকেট ক্লাবের জার্সি উন্মোচন লিসবনে আত্মপ্রকাশ হয় সামাজিক সংগঠন “গোলাপগঞ্জ কমিউনিটি কেয়ারর্স পর্তুগাল “ উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা

বার্সেলোনায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১ শে ফেব্রুয়ারি ২০২৩ উৎযাপিত

বার্সেলোনা থেকে – জেবুন্নেছা
  • আপডেটের সময় : ০৬:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • / ২৪২ টাইম ভিউ

বার্সেলোনায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১ শে ফেব্রুয়ারি ২০২৩ উৎযাপিত।

বার্সেলোনা থেকে – জেবুন্নেছা ।

কন্সুলেট দে বাংলাদেশ বার্সেলোনার আয়োজনে বার্সেলোনার প্লাসা পেদ্রো,শহীদ মিনার চত্বরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১শে ফেব্রুয়ারি উৎযাপিত হয়।কনসুলার অব বাংলাদেশ বার্সেলোনার কন্সুলেট সিনিয়র রামন পেদ্রোর তত্বাবধানে
রখম সখম ইভেন্ট নিয়ে মিনার চত্বরের এবারের ২১ শে ফেব্রুয়ারি উৎযাপনের দিনটি ছিল ভিন্ন স্বাদের।কোন সংগঠনকে একক দায়িত্ব না দেয়ায় সকলের স্বতঃস্ফূর্ত
উপস্হিতি চোখে পড়ার মত॥
শোক আত্মত্যাগ ও অহংকারের এই দিনটিকে স্মরনে রেখে
সর্বস্তরের মানুষ শহীদ চত্বর প্লাসা পেদ্রোতে ফুল নিয়ে বিকাল ৪.৩০ মিনিট থেকে জমায়েত হতে থাকে।রাজনৈতীক সামাজিক ও জিলা সংগঠন গুলো কোরাস কন্ঠে”আমার ভাই এর রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি” চির চেনা গানের মাধ্যমে শহীদ বেদীতে ফুল দিতে দেখা যায়।
পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন পর্যায়ক্রমে কামরুল মোহামেদ,নুরুল ওয়াহীদ, শফিক খান,মেহেতা হক জানু।
শহীদ বেদীতে ক্রমান্বয়ে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন কন্সুলেট দে বাংলাদেশ বার্সেলোনার পক্ষে সিনিয়র রামন পেদ্রো,মিরন নাজমুল,সমাজ কর্মী কামরুল মোহামেদ মেহেতাব নবীন সহ আরো কয়েক জন।আজুন্তামেন্ত দে বার্সেলোনার পক্ষে জরদি রাবাচ্চা সহ কয়েকজন।পারলামেন্তো দে কাতালোনীয়ার পক্ষে দিপুতাদা জেসিকা গন্জালেস। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কাতালোনীয়া বার্সেলোনার পক্ষে বীর মুক্তিযুদ্ধা আলাউদ্দিন হক নেসা,সফিকুল ইসলাম স্বপন,
খুরশীদ আলম বাদল,মোশারফ বেপারী,খালেদুর রহমান সহ আরো কয়েক জন।বার্সেলোনা আওয়ামী লীগ এর পক্ষে শাহ আলম স্বাধীন, মহিউদ্দিন হারুন,হানিফ শরীফ,এনামুল কবির মজনু,জাফার হোসাইন,রাজু গাজী সহ আরো কয়েক জন।সান্তা কলোমা আওয়ামী লীগ এর পক্ষে মোখলেছুর রহমান নাছিম,এ কে আজাদ মোস্তফা,মোঃ নীরু তালুকদার সহ আরো কয়েক জন।বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ কাতালোনীয়ার পক্ষে জেবুন্নেছা জেবু,সাবরিনা জাহান পুতুল, নাজমা নাহার,শামসুন নাহার রেনু,দিবা গাজী,বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বার্সেলোনার পক্ষে শফিকুর রহমান শফি,হারুনুর রশীদ,ফয়সাল আহমেদ,লাইবুর রহমান,আক্তার হোসেনস সহ কয়েক জন,বাংলা স্কুল বর্সেলোনার পক্ষে নজরুল ইসলাম চৌধুরী,আওয়াল ইসলাম, জাহান আরা জানু,মোহাম্মদ জুয়েল আহমেদ সহ কয়েক জন,বাংলাদেশ এসোসিয়েশন বার্সেলোনার পক্ষে সাব্বির আহমেদ দুলাল,উত্তম কুমার,ইকবাল বকসি,এলাইছ মিয়া,আব্দুল জব্বার, উমানিতারিয়া দে বাংলাদেশ এন কাতালোনীয়ার পক্ষে শফিক খান,দিবা রাজু,সোহেল গাজী সহ কয়েক জন, বাংলাদেশ মহিলা সমিতি বার্সেলোনার পক্ষে মেহেতাব হক জানু,মুন্নি পাখি,তাইফা রহমান,দিবা সহ কয়েক জন।চট্রগ্রাম সমিতির পক্ষে আনোয়ার হোসেন রাজু গাজী,মিথিলা ফারুক,দীবা গাজী,জেবুন্নেছা,আক্তার হোসেন, সহ কয়েক জন।ভয়েস অব বার্সেলোনার পক্ষে ফয়সল আহমেদ, লিমন আহমেদ বিজয়,সুমন আহমেদ সহ কয়েক জন,স্টেজ ফর ইয়ুথ ফাউন্ডেশন এর পক্ষে নুরা আমিন টুকন,ফয়সাল সহ কয়েক জন।এছাড়া ও মহিলা সমিতি,বাংলাদেশ কিংস ক্রিকেট ক্লাব বার্সেলোনা,ইয়ং ফেডারেশন,দোকান মালিক সমিতি সহ সামাজিক,সাংস্কৃতিক ও সাংবাদিক ব্যক্তিবর্গকে শহীদ মিনারে ফুল দিতে দেখা যায় ।
ফুল দেয়া পর্ব শেষ হলে কামরুল মোহামেদ, মিরন নাজমুল ও স্কুল শিক্ষিকা শাহানা ইয়াছমিন শানুর তত্বাবদানে শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা শুরু হয়,চিত্রাঙ্কন শেষে বিচারক মন্ডলী ক খ গ শাখায়
প্রথম দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্হান নির্ধারণ করে পুরুষ্কার প্রধান করা হয়।
আজুন্তামেন্ত দে বার্সেলোনার (রেখিদর দে সিউতাত বেয়া)জরদি রাবাচ্চা বলেন ২১শের ভাষা শহীদদের আত্মত্যাগ ও দেশপ্রেম পৃথিবীর বুকে উদারন হয়ে থাকবে।
ভাষার জন্য জীবন উৎসর্গ দ্বিতীয়টি আর নেই।বাংলাদেশীদের
প্রানের দাবী পূর্ণাঙ্গ শহীদ মিনার স্হাপনের ব্যপারে তিনি আশ্বাস প্রদান করেন।
সিনিয়র রামন পেদ্রোর ৫২সালের ভাষা আন্দোলনে ভাষা শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন সহ বাংলাদেশীদের দেশের প্রতি ভালবাসার ভূয়সী প্রসংশা করেন।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কাতালোনীয়ার প্রধান উপদেষ্টা বীর মুক্তিযুদ্ধা আলাউদ্দিন হক নেছা বলেন বায়ান্নের সুত্র ধরে ৭১ এর স্বাধীনতা।রাষ্টভাষা বাংলার দাবিতে ঢাকার রাজপথে সালাম জব্বার বরকত, রফিকের বুকের রক্তে স্বাধীনতার বীজ ভুনা হয়।যাহা পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বাধীনতা ঘোষনার মধ্য দিয়ে আমাদের বিজয়।
মেহেতাব হক জানুর পরিচালনায় সন্ধা ৬.৩০ মিনিট এ সাইদ মোহাম্মদ স্বপনের কবিতা আবৃত্তির মাধ্য দিয়ে শুরু হয় একুশে সাংস্কৃতিক সন্ধা।বর্সেলোনার বিখ্যাত শিল্পীদের দেশাত্ববোধক গানে সকল দেশপ্রেমীদের মনে ফুটে উঠে স্মৃতির বাংলাদেশ।দিবা গাজী,আনোয়ার হোসেন রাজু গাজী ও অমির গাওয়া গান গুলো ২১ শে ফেব্রুয়ারির মিলনায়তন শহীদ চত্বরকে আকর্ষনীয় করে তুলে।রাত ৯টায় আয়োজক কমিটির পক্ষ থেকে উপস্হিত সবাইকে ধন্যবাদ দিয়ে ২১ শে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি টানেন।

পোস্ট শেয়ার করুন

বার্সেলোনায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১ শে ফেব্রুয়ারি ২০২৩ উৎযাপিত

আপডেটের সময় : ০৬:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

বার্সেলোনায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১ শে ফেব্রুয়ারি ২০২৩ উৎযাপিত।

বার্সেলোনা থেকে – জেবুন্নেছা ।

কন্সুলেট দে বাংলাদেশ বার্সেলোনার আয়োজনে বার্সেলোনার প্লাসা পেদ্রো,শহীদ মিনার চত্বরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১শে ফেব্রুয়ারি উৎযাপিত হয়।কনসুলার অব বাংলাদেশ বার্সেলোনার কন্সুলেট সিনিয়র রামন পেদ্রোর তত্বাবধানে
রখম সখম ইভেন্ট নিয়ে মিনার চত্বরের এবারের ২১ শে ফেব্রুয়ারি উৎযাপনের দিনটি ছিল ভিন্ন স্বাদের।কোন সংগঠনকে একক দায়িত্ব না দেয়ায় সকলের স্বতঃস্ফূর্ত
উপস্হিতি চোখে পড়ার মত॥
শোক আত্মত্যাগ ও অহংকারের এই দিনটিকে স্মরনে রেখে
সর্বস্তরের মানুষ শহীদ চত্বর প্লাসা পেদ্রোতে ফুল নিয়ে বিকাল ৪.৩০ মিনিট থেকে জমায়েত হতে থাকে।রাজনৈতীক সামাজিক ও জিলা সংগঠন গুলো কোরাস কন্ঠে”আমার ভাই এর রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি” চির চেনা গানের মাধ্যমে শহীদ বেদীতে ফুল দিতে দেখা যায়।
পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন পর্যায়ক্রমে কামরুল মোহামেদ,নুরুল ওয়াহীদ, শফিক খান,মেহেতা হক জানু।
শহীদ বেদীতে ক্রমান্বয়ে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন কন্সুলেট দে বাংলাদেশ বার্সেলোনার পক্ষে সিনিয়র রামন পেদ্রো,মিরন নাজমুল,সমাজ কর্মী কামরুল মোহামেদ মেহেতাব নবীন সহ আরো কয়েক জন।আজুন্তামেন্ত দে বার্সেলোনার পক্ষে জরদি রাবাচ্চা সহ কয়েকজন।পারলামেন্তো দে কাতালোনীয়ার পক্ষে দিপুতাদা জেসিকা গন্জালেস। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কাতালোনীয়া বার্সেলোনার পক্ষে বীর মুক্তিযুদ্ধা আলাউদ্দিন হক নেসা,সফিকুল ইসলাম স্বপন,
খুরশীদ আলম বাদল,মোশারফ বেপারী,খালেদুর রহমান সহ আরো কয়েক জন।বার্সেলোনা আওয়ামী লীগ এর পক্ষে শাহ আলম স্বাধীন, মহিউদ্দিন হারুন,হানিফ শরীফ,এনামুল কবির মজনু,জাফার হোসাইন,রাজু গাজী সহ আরো কয়েক জন।সান্তা কলোমা আওয়ামী লীগ এর পক্ষে মোখলেছুর রহমান নাছিম,এ কে আজাদ মোস্তফা,মোঃ নীরু তালুকদার সহ আরো কয়েক জন।বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ কাতালোনীয়ার পক্ষে জেবুন্নেছা জেবু,সাবরিনা জাহান পুতুল, নাজমা নাহার,শামসুন নাহার রেনু,দিবা গাজী,বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বার্সেলোনার পক্ষে শফিকুর রহমান শফি,হারুনুর রশীদ,ফয়সাল আহমেদ,লাইবুর রহমান,আক্তার হোসেনস সহ কয়েক জন,বাংলা স্কুল বর্সেলোনার পক্ষে নজরুল ইসলাম চৌধুরী,আওয়াল ইসলাম, জাহান আরা জানু,মোহাম্মদ জুয়েল আহমেদ সহ কয়েক জন,বাংলাদেশ এসোসিয়েশন বার্সেলোনার পক্ষে সাব্বির আহমেদ দুলাল,উত্তম কুমার,ইকবাল বকসি,এলাইছ মিয়া,আব্দুল জব্বার, উমানিতারিয়া দে বাংলাদেশ এন কাতালোনীয়ার পক্ষে শফিক খান,দিবা রাজু,সোহেল গাজী সহ কয়েক জন, বাংলাদেশ মহিলা সমিতি বার্সেলোনার পক্ষে মেহেতাব হক জানু,মুন্নি পাখি,তাইফা রহমান,দিবা সহ কয়েক জন।চট্রগ্রাম সমিতির পক্ষে আনোয়ার হোসেন রাজু গাজী,মিথিলা ফারুক,দীবা গাজী,জেবুন্নেছা,আক্তার হোসেন, সহ কয়েক জন।ভয়েস অব বার্সেলোনার পক্ষে ফয়সল আহমেদ, লিমন আহমেদ বিজয়,সুমন আহমেদ সহ কয়েক জন,স্টেজ ফর ইয়ুথ ফাউন্ডেশন এর পক্ষে নুরা আমিন টুকন,ফয়সাল সহ কয়েক জন।এছাড়া ও মহিলা সমিতি,বাংলাদেশ কিংস ক্রিকেট ক্লাব বার্সেলোনা,ইয়ং ফেডারেশন,দোকান মালিক সমিতি সহ সামাজিক,সাংস্কৃতিক ও সাংবাদিক ব্যক্তিবর্গকে শহীদ মিনারে ফুল দিতে দেখা যায় ।
ফুল দেয়া পর্ব শেষ হলে কামরুল মোহামেদ, মিরন নাজমুল ও স্কুল শিক্ষিকা শাহানা ইয়াছমিন শানুর তত্বাবদানে শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা শুরু হয়,চিত্রাঙ্কন শেষে বিচারক মন্ডলী ক খ গ শাখায়
প্রথম দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্হান নির্ধারণ করে পুরুষ্কার প্রধান করা হয়।
আজুন্তামেন্ত দে বার্সেলোনার (রেখিদর দে সিউতাত বেয়া)জরদি রাবাচ্চা বলেন ২১শের ভাষা শহীদদের আত্মত্যাগ ও দেশপ্রেম পৃথিবীর বুকে উদারন হয়ে থাকবে।
ভাষার জন্য জীবন উৎসর্গ দ্বিতীয়টি আর নেই।বাংলাদেশীদের
প্রানের দাবী পূর্ণাঙ্গ শহীদ মিনার স্হাপনের ব্যপারে তিনি আশ্বাস প্রদান করেন।
সিনিয়র রামন পেদ্রোর ৫২সালের ভাষা আন্দোলনে ভাষা শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন সহ বাংলাদেশীদের দেশের প্রতি ভালবাসার ভূয়সী প্রসংশা করেন।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কাতালোনীয়ার প্রধান উপদেষ্টা বীর মুক্তিযুদ্ধা আলাউদ্দিন হক নেছা বলেন বায়ান্নের সুত্র ধরে ৭১ এর স্বাধীনতা।রাষ্টভাষা বাংলার দাবিতে ঢাকার রাজপথে সালাম জব্বার বরকত, রফিকের বুকের রক্তে স্বাধীনতার বীজ ভুনা হয়।যাহা পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বাধীনতা ঘোষনার মধ্য দিয়ে আমাদের বিজয়।
মেহেতাব হক জানুর পরিচালনায় সন্ধা ৬.৩০ মিনিট এ সাইদ মোহাম্মদ স্বপনের কবিতা আবৃত্তির মাধ্য দিয়ে শুরু হয় একুশে সাংস্কৃতিক সন্ধা।বর্সেলোনার বিখ্যাত শিল্পীদের দেশাত্ববোধক গানে সকল দেশপ্রেমীদের মনে ফুটে উঠে স্মৃতির বাংলাদেশ।দিবা গাজী,আনোয়ার হোসেন রাজু গাজী ও অমির গাওয়া গান গুলো ২১ শে ফেব্রুয়ারির মিলনায়তন শহীদ চত্বরকে আকর্ষনীয় করে তুলে।রাত ৯টায় আয়োজক কমিটির পক্ষ থেকে উপস্হিত সবাইকে ধন্যবাদ দিয়ে ২১ শে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি টানেন।