ঢাকা , সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে…

বাতিল করা হয়নি প্রতিবন্ধী কোটা : মন্ত্রিপরিষদ সচিব

দেশদিগন্ত নিউজ ডেক্সঃ
  • আপডেটের সময় : ০৬:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৯
  • / ১২২২ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেক্সঃ  সরকারি চাকরিতে সকল কোটা বাতিল হলেও প্রতিবন্ধী কোটা বাতিল করা হয়নি বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে একাদশ সংসদের প্রথম মন্ত্রিপরিষদ বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে একথা জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

তিনি বলেন, বৈঠকে প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন, ২০১৩ এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তির সুরক্ষা বিধিমালা-২০১৫ এর আলোকে প্রতিবন্ধী বিষয়ক জাতীয় কর্ম-পরিকল্পনার খসড়ার অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। গত বছর পর্যন্ত সরকারি চাকরিতে নিয়োগে ৫৬ শতাংশ পদ বিভিন্ন কোটার জন্য সংরক্ষিত ছিল। এর মধ্যে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের জন্য ৩০ শতাংশ, নারী ১০ শতাংশ, জেলা ১০ শতাংশ, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ৫ শতাংশ, প্রতিবন্ধী ১ শতাংশ বরাদ্দ ছিল। এই কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীদের একটি অংশ। আন্দোলন দেশজুড়ে ছড়িয়ে পড়লে কোটা ব্যবস্থা পর্যালোচনার জন্য মন্ত্রিপরিষদ সচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি করে দেয় সরকার। কমিটি প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে কোটা বাতিল করে পুরোপুরি মেধার ভিত্তিতে নিয়োগের সুপারিশ করে। এরপর মন্ত্রিসভায় তা অনুমোদন পায়। এরপর এই প্রতিবন্ধীদের নিয়ে মন্ত্রিসভায় কোন আইন আলোচনায় উঠলো।  আলোচনায় প্রতিবন্ধীদের জন্য চাকরির কোটা প্রসঙ্গ এসেছিল কি না জানতে চাইলে সচিব বলেন,  এটা আলোচনা হয়নি। তবে আইনে যে কোটা আছে সেটা বাদ দেওয়া হয় নাই। আমাদের অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অর্ডার দিয়ে আইন কখনও সুপারসিড হয় না। এছাড়াও বৈঠকে রাষ্ট্রপতির ভাষণ, গণপ্রতিনিধিত্ব (সংশোধন) আইনের খসড়া, ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) আইন খসড়া, জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদ আইনের খসড়া ও বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র আইনের নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

পোস্ট শেয়ার করুন

বাতিল করা হয়নি প্রতিবন্ধী কোটা : মন্ত্রিপরিষদ সচিব

আপডেটের সময় : ০৬:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেক্সঃ  সরকারি চাকরিতে সকল কোটা বাতিল হলেও প্রতিবন্ধী কোটা বাতিল করা হয়নি বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে একাদশ সংসদের প্রথম মন্ত্রিপরিষদ বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে একথা জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

তিনি বলেন, বৈঠকে প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন, ২০১৩ এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তির সুরক্ষা বিধিমালা-২০১৫ এর আলোকে প্রতিবন্ধী বিষয়ক জাতীয় কর্ম-পরিকল্পনার খসড়ার অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। গত বছর পর্যন্ত সরকারি চাকরিতে নিয়োগে ৫৬ শতাংশ পদ বিভিন্ন কোটার জন্য সংরক্ষিত ছিল। এর মধ্যে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের জন্য ৩০ শতাংশ, নারী ১০ শতাংশ, জেলা ১০ শতাংশ, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ৫ শতাংশ, প্রতিবন্ধী ১ শতাংশ বরাদ্দ ছিল। এই কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীদের একটি অংশ। আন্দোলন দেশজুড়ে ছড়িয়ে পড়লে কোটা ব্যবস্থা পর্যালোচনার জন্য মন্ত্রিপরিষদ সচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি করে দেয় সরকার। কমিটি প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে কোটা বাতিল করে পুরোপুরি মেধার ভিত্তিতে নিয়োগের সুপারিশ করে। এরপর মন্ত্রিসভায় তা অনুমোদন পায়। এরপর এই প্রতিবন্ধীদের নিয়ে মন্ত্রিসভায় কোন আইন আলোচনায় উঠলো।  আলোচনায় প্রতিবন্ধীদের জন্য চাকরির কোটা প্রসঙ্গ এসেছিল কি না জানতে চাইলে সচিব বলেন,  এটা আলোচনা হয়নি। তবে আইনে যে কোটা আছে সেটা বাদ দেওয়া হয় নাই। আমাদের অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অর্ডার দিয়ে আইন কখনও সুপারসিড হয় না। এছাড়াও বৈঠকে রাষ্ট্রপতির ভাষণ, গণপ্রতিনিধিত্ব (সংশোধন) আইনের খসড়া, ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) আইন খসড়া, জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদ আইনের খসড়া ও বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র আইনের নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।