ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে মানবতা এখন কাঁদছে : রিজভী

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক:
  • আপডেটের সময় : ০৭:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২ জানুয়ারী ২০১৯
  • / ১০০০ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের মাধ্যমে গণতন্ত্রের শেষ চিহ্নের ওপর ধেয়ে এসেছে মহাদুর্যোগ। আর এ নির্বাচনের মাধ্যমে বাংলাদেশে মানবতা এখন কাঁদছে।

আজ বুধবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

রিজভী বলেন, বাংলাদেশে আর গণতন্ত্রের গৌরবোজ্জ্বল যুগ সৃষ্টি হল না। আওয়ামী নেতারা এখন গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রণে নিয়ে তাদের চাপাবাজি ও গলাবাজির জোরে ভোট নিয়ে মহাজালিয়াতির ঘটনা আড়াল করতে চাচ্ছে।

তিনি অভিযোগ করেন, নির্বাচনের নামে নিষ্ঠুর রসিকতা করে এখন জনপদের পর জনপদে ধানের শীষের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ওপর চলছে পৈশাচিক বর্বরতা। মূর্খের অহঙ্কারে আক্রমণ করে ভেঙে ফেলা হচ্ছে নিরীহ মানুষের বাড়িঘর-দোকানপাট ও বাজার। সেগুলো অগ্নিসংযোগ করা হচ্ছে।

নেতাকর্মীদের ঘরছাড়া, এলাকাছাড়া ও গ্রেফতার করা রীতিমতো হিড়িক শুরু হয়েছে। নানা হয়রানিসহ শারীরিকভাবে আক্রমণ করা হচ্ছে। আক্রমণে অনেকে নিহত হয়েছেন। ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান-কৃষি খামার-সহায়সম্পদের ওপর বেপরোয়া হানা দেয়া হচ্ছে অবিরাম।

রিজভী অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগের ১০-১২ জনের একদল কর্মী নোয়াখালীর সুবর্ণচর এলাকার মধ্যব্যাগারে চার সন্তানের মা সিএনজি অটোরিকশাচালকের স্ত্রীকে নৌকা মার্কায় ভোট দিতে বলে। এ নিয়ে কথাকাটাকাটি হলে মহিলাটি সবার সামনে ধানের শীষে সিল দেন। এর পর রাত ১০টার দিকে সন্ত্রাসীরা পুলিশ পরিচয়ে বাড়িতে ঢুকে গৃহবধূটির হাত-পা ও মুখ বেঁধে রাতভর নির্যাতন করে ঘরের পাশে ফেলে যায়। সে এখন নোয়াখালীর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

তিনি আরও বলেন, এটি শুধু একজন ব্যক্তিকেই পৈশাচিক নির্যাতনে শ্লীলতাহানি নয়, এটি জনগণের ভোটাধিকারকেই শ্লীলতাহানি করা হল। অটোরিকশাচালকের স্ত্রীর ক্রন্দনবিধূর অন্তহীন আর্তি বিশ্ববিবেককে কাঁদিয়েছে। বাংলাদেশে মানবতা এখন কাঁদছে। বিশ্ব মানবতা এ ঘটনায় স্তম্ভিত-শিহরিত ও বিমুঢ়।

পোস্ট শেয়ার করুন

বাংলাদেশে মানবতা এখন কাঁদছে : রিজভী

আপডেটের সময় : ০৭:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২ জানুয়ারী ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের মাধ্যমে গণতন্ত্রের শেষ চিহ্নের ওপর ধেয়ে এসেছে মহাদুর্যোগ। আর এ নির্বাচনের মাধ্যমে বাংলাদেশে মানবতা এখন কাঁদছে।

আজ বুধবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

রিজভী বলেন, বাংলাদেশে আর গণতন্ত্রের গৌরবোজ্জ্বল যুগ সৃষ্টি হল না। আওয়ামী নেতারা এখন গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রণে নিয়ে তাদের চাপাবাজি ও গলাবাজির জোরে ভোট নিয়ে মহাজালিয়াতির ঘটনা আড়াল করতে চাচ্ছে।

তিনি অভিযোগ করেন, নির্বাচনের নামে নিষ্ঠুর রসিকতা করে এখন জনপদের পর জনপদে ধানের শীষের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ওপর চলছে পৈশাচিক বর্বরতা। মূর্খের অহঙ্কারে আক্রমণ করে ভেঙে ফেলা হচ্ছে নিরীহ মানুষের বাড়িঘর-দোকানপাট ও বাজার। সেগুলো অগ্নিসংযোগ করা হচ্ছে।

নেতাকর্মীদের ঘরছাড়া, এলাকাছাড়া ও গ্রেফতার করা রীতিমতো হিড়িক শুরু হয়েছে। নানা হয়রানিসহ শারীরিকভাবে আক্রমণ করা হচ্ছে। আক্রমণে অনেকে নিহত হয়েছেন। ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান-কৃষি খামার-সহায়সম্পদের ওপর বেপরোয়া হানা দেয়া হচ্ছে অবিরাম।

রিজভী অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগের ১০-১২ জনের একদল কর্মী নোয়াখালীর সুবর্ণচর এলাকার মধ্যব্যাগারে চার সন্তানের মা সিএনজি অটোরিকশাচালকের স্ত্রীকে নৌকা মার্কায় ভোট দিতে বলে। এ নিয়ে কথাকাটাকাটি হলে মহিলাটি সবার সামনে ধানের শীষে সিল দেন। এর পর রাত ১০টার দিকে সন্ত্রাসীরা পুলিশ পরিচয়ে বাড়িতে ঢুকে গৃহবধূটির হাত-পা ও মুখ বেঁধে রাতভর নির্যাতন করে ঘরের পাশে ফেলে যায়। সে এখন নোয়াখালীর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

তিনি আরও বলেন, এটি শুধু একজন ব্যক্তিকেই পৈশাচিক নির্যাতনে শ্লীলতাহানি নয়, এটি জনগণের ভোটাধিকারকেই শ্লীলতাহানি করা হল। অটোরিকশাচালকের স্ত্রীর ক্রন্দনবিধূর অন্তহীন আর্তি বিশ্ববিবেককে কাঁদিয়েছে। বাংলাদেশে মানবতা এখন কাঁদছে। বিশ্ব মানবতা এ ঘটনায় স্তম্ভিত-শিহরিত ও বিমুঢ়।