ঢাকা , শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাঁচলো ২৬ হজযাত্রীর প্রাণ

অনলাইন ডেস্ক :
  • আপডেটের সময় : ০১:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ অগাস্ট ২০১৭
  • / ১১৬৮ টাইম ভিউ

সোমবার দুপুর ১২টা। আশকোনা হজ ক্যাম্প থেকে অানন্দ সুপার নামে একটি বাস ২৬ হজযাত্রী নিয়ে যাত্রা শুরু করে। গন্তব্য ছিল হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দিকে। বিমানবন্দরের বহির্গমন টার্মিনালে যাবার পথে ড্রাইভওয়েতে ওঠার সময় বাসে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়। ফলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রেলিং ভেঙে ঝুলতে থাকেন। তবে শেষ পর্যন্ত বাসটি ১২ ফুট নিচে পড়েনি। ঝুলন্ত বাস থেকেই যাত্রীদের নামিয়ে আনা হয়। প্রায় এক ঘণ্টা পর রেকারের সাহায্যে বাসটি উদ্ধার করে বিমানবন্দর থানায় পাঠানো হয়। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে।  এ বিষয়ে শাহজালাল বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন কাজী ইকবাল করিম জানান, ২৬ জন হজযাত্রী নিয়ে দুপুরে সৌদি এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে জেদ্দা যাবার কথা ছিল। তামান্না পার্ক নামের একটি হজ এজেন্সি হজযাত্রী বহনের জন্য বাসটি ভাড়া করে। বাসটি অনেক পুরোনো। বাসের চালক কামরুল হোসেনের লাইসেন্স ছিল না। এ ছাড়া বাসের ফিটনেস ও রেজিস্ট্রেশনও ছিল না।  বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আজম মিয়া জানান, বাসটির যান্ত্রিক কোনো সমস্যা ছিল কি না, তা পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। বাসচালকের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।এ বিষয়ে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার জ্যেষ্ঠ সহকারি পরিচালক মিজানুর রহমান ভূঁইয়া জানিয়েছেন, দুর্ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে সিভিল এভিয়েশন ডিরেক্টর গ্রুপ ক্যাপ্টেন কাজী ইকবাল দুর্ঘটনাকবলিত বাস উদ্ধারে র‌্যারের কাছে সহায়তা চান। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে র‌্যাবের একটি উদ্ধার টিম উদ্ধারকারী যান নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাত্রীদের নিরাপদে নামিয়ে নিয়ে আসে। পরে গাড়িটি উদ্ধার করা হয়।

পোস্ট শেয়ার করুন

বাঁচলো ২৬ হজযাত্রীর প্রাণ

আপডেটের সময় : ০১:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ অগাস্ট ২০১৭

সোমবার দুপুর ১২টা। আশকোনা হজ ক্যাম্প থেকে অানন্দ সুপার নামে একটি বাস ২৬ হজযাত্রী নিয়ে যাত্রা শুরু করে। গন্তব্য ছিল হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দিকে। বিমানবন্দরের বহির্গমন টার্মিনালে যাবার পথে ড্রাইভওয়েতে ওঠার সময় বাসে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়। ফলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রেলিং ভেঙে ঝুলতে থাকেন। তবে শেষ পর্যন্ত বাসটি ১২ ফুট নিচে পড়েনি। ঝুলন্ত বাস থেকেই যাত্রীদের নামিয়ে আনা হয়। প্রায় এক ঘণ্টা পর রেকারের সাহায্যে বাসটি উদ্ধার করে বিমানবন্দর থানায় পাঠানো হয়। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে।  এ বিষয়ে শাহজালাল বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন কাজী ইকবাল করিম জানান, ২৬ জন হজযাত্রী নিয়ে দুপুরে সৌদি এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে জেদ্দা যাবার কথা ছিল। তামান্না পার্ক নামের একটি হজ এজেন্সি হজযাত্রী বহনের জন্য বাসটি ভাড়া করে। বাসটি অনেক পুরোনো। বাসের চালক কামরুল হোসেনের লাইসেন্স ছিল না। এ ছাড়া বাসের ফিটনেস ও রেজিস্ট্রেশনও ছিল না।  বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আজম মিয়া জানান, বাসটির যান্ত্রিক কোনো সমস্যা ছিল কি না, তা পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। বাসচালকের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।এ বিষয়ে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার জ্যেষ্ঠ সহকারি পরিচালক মিজানুর রহমান ভূঁইয়া জানিয়েছেন, দুর্ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে সিভিল এভিয়েশন ডিরেক্টর গ্রুপ ক্যাপ্টেন কাজী ইকবাল দুর্ঘটনাকবলিত বাস উদ্ধারে র‌্যারের কাছে সহায়তা চান। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে র‌্যাবের একটি উদ্ধার টিম উদ্ধারকারী যান নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাত্রীদের নিরাপদে নামিয়ে নিয়ে আসে। পরে গাড়িটি উদ্ধার করা হয়।