ঢাকা , রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বলিউডের ভালোবাসার দাপটে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে টলিউড ম্লান

অনলাইন ডেস্ক :
  • আপডেটের সময় : ১১:০০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১২ নভেম্বর ২০১৭
  • / ১২৭৩ টাইম ভিউ

২০১২ সালের আগে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের এত আন্তর্জাতিক জৌলুস ছিল না। এখন হলিউড-বলিউড-টলিউড-টেলিউড সকলে এর অংশ। গত শুক্রবার নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে ২৩তম উৎসবের সূচনায় একথা জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তাই গত কয়েক বছরে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে বলিউডের ভালোবাসার দাপটে টলিউড একেবারেই ম্লান। উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের স্থায়ী অতিথি হয়ে গিয়েছেন অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খান, মহেশ ভাট। এবার এসেছেন কাজল।

দক্ষিণী চলচ্চিত্রের নায়ক কমল হাসানও এই তালিকায় ঢুকে পড়েছেন গত বছর থেকে। বিশেষ অতিথি হিসেবে মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন বৃটিশ পরিচালক মাইকেল উইন্টারবটম। উপস্থিত ছিলেন টলিউডের দুই প্রবীণ অভিনেত্রী মাধবী ও সাবিত্রী। তবে হ্যাঁ, এবছর অমিতাভের চেয়েও মাতামাতি দেখা গেছে সোমু মুখোপাধ্যায় ও তনুজার কন্যা বাঙালি কাজলকে নিয়ে। অমিতাভ ও শাহরুখ স্টেডিয়ামে প্রবেশের সময় উচ্ছ্বাস দেখা গেলেও কাজল প্রবেশ করামাত্র দর্শক গ্যালারি থেকে ভালোবাসার চুম্বন ধেয়ে এসেছে তার দিকে। কাজলও পাল্টা জানিয়েছেন, ‘আই লাভ ইউ টু’। আর শাহরুখ তো দর্শকদের কথা দিয়ে গেছেন, আগামীবার তিনি বাংলাতেই বলবেন। তবে অনুষ্ঠানের উদ্বোধক কিংবদন্তি অভিনেতা অমিতাভ গত কয়েক বছরের মতো এ বছরই মঞ্চে হাজির হয়েছিলেন প্রজ্ঞাময় ভাষণ নিয়ে। এবার তিনি বেছে নিয়েছিলেন চলচ্চিত্রে সংগীতের অবদানকে। ১৯৩৫ সালে নীতিন বসু যে ‘ভাগ্যচক্র’ ছবিতে প্রথম প্লে ব্যাকের জন্ম দেন, সেখান থেকে শুরু করে শচীন দেব বর্মন, পঞ্চমদা থেকে রহমান অবধি টানা ইতিহাস তুলে ধরেছেন গবেষকের ঢঙে। এই ইনডোর স্টেডিয়ামেই যে রবীন্দ্রসংগীত অবলম্বনে ‘ইয়ারানা’ ছবিতে তার লিপে ছুকর মেরে মনকো গান, মনে করিয়ে দিলেন সেকথাও। তরুণ ৬ বিজ্ঞানীর দেশত্যাগের কাহিনী নিয়ে তৈরি উদ্বোধনী ছবি ইরানি পরিচালক মোস্তাফা তাঘিজাদের ‘ইয়েলো’ শেষ হওয়ার পর দর্শকরা যেভাবে করতালি দিয়ে অভিনন্দন জানিয়েছেন তা মনে রাখার মতো। এবারের উৎসবে ৫৩ দেশের ১৪৩টি ছবি প্রদর্শিত হচ্ছে। এর মধ্যে বিদেশি ছবি ৯৩টি। ফোকাস দেশ হচ্ছে, বৃটেন। বাংলাদেশের আবু সাঈদের তৈরি ‘একজন কবির মৃত্যু’ ছবিটিও এবারের উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ। এবার উৎসবকে ঘিরে ‘ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার অফ বেঙ্গলি সিনেমা’ নামে একটা নতুন বিভাগ খোলা হয়েছে। ‘বিলের ডাইরি’, ‘বারান্দা’ এবং ‘স্মাগ’ এই তিনটি বাংলা ছবির প্রিমিয়ার হবে এবারের উৎসবে। বাংলাদেশি অভিনেত্রী জয়া আহসান অভিনীত ‘বিসর্জন’ থেকে সোনম কাপুরের ‘নীরজা’সহ রয়েছে আরও বহু ছবি যা দর্শকদের প্রত্যাশা পূরণ করবে।

পোস্ট শেয়ার করুন

বলিউডের ভালোবাসার দাপটে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে টলিউড ম্লান

আপডেটের সময় : ১১:০০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১২ নভেম্বর ২০১৭

২০১২ সালের আগে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের এত আন্তর্জাতিক জৌলুস ছিল না। এখন হলিউড-বলিউড-টলিউড-টেলিউড সকলে এর অংশ। গত শুক্রবার নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে ২৩তম উৎসবের সূচনায় একথা জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তাই গত কয়েক বছরে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে বলিউডের ভালোবাসার দাপটে টলিউড একেবারেই ম্লান। উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের স্থায়ী অতিথি হয়ে গিয়েছেন অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খান, মহেশ ভাট। এবার এসেছেন কাজল।

দক্ষিণী চলচ্চিত্রের নায়ক কমল হাসানও এই তালিকায় ঢুকে পড়েছেন গত বছর থেকে। বিশেষ অতিথি হিসেবে মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন বৃটিশ পরিচালক মাইকেল উইন্টারবটম। উপস্থিত ছিলেন টলিউডের দুই প্রবীণ অভিনেত্রী মাধবী ও সাবিত্রী। তবে হ্যাঁ, এবছর অমিতাভের চেয়েও মাতামাতি দেখা গেছে সোমু মুখোপাধ্যায় ও তনুজার কন্যা বাঙালি কাজলকে নিয়ে। অমিতাভ ও শাহরুখ স্টেডিয়ামে প্রবেশের সময় উচ্ছ্বাস দেখা গেলেও কাজল প্রবেশ করামাত্র দর্শক গ্যালারি থেকে ভালোবাসার চুম্বন ধেয়ে এসেছে তার দিকে। কাজলও পাল্টা জানিয়েছেন, ‘আই লাভ ইউ টু’। আর শাহরুখ তো দর্শকদের কথা দিয়ে গেছেন, আগামীবার তিনি বাংলাতেই বলবেন। তবে অনুষ্ঠানের উদ্বোধক কিংবদন্তি অভিনেতা অমিতাভ গত কয়েক বছরের মতো এ বছরই মঞ্চে হাজির হয়েছিলেন প্রজ্ঞাময় ভাষণ নিয়ে। এবার তিনি বেছে নিয়েছিলেন চলচ্চিত্রে সংগীতের অবদানকে। ১৯৩৫ সালে নীতিন বসু যে ‘ভাগ্যচক্র’ ছবিতে প্রথম প্লে ব্যাকের জন্ম দেন, সেখান থেকে শুরু করে শচীন দেব বর্মন, পঞ্চমদা থেকে রহমান অবধি টানা ইতিহাস তুলে ধরেছেন গবেষকের ঢঙে। এই ইনডোর স্টেডিয়ামেই যে রবীন্দ্রসংগীত অবলম্বনে ‘ইয়ারানা’ ছবিতে তার লিপে ছুকর মেরে মনকো গান, মনে করিয়ে দিলেন সেকথাও। তরুণ ৬ বিজ্ঞানীর দেশত্যাগের কাহিনী নিয়ে তৈরি উদ্বোধনী ছবি ইরানি পরিচালক মোস্তাফা তাঘিজাদের ‘ইয়েলো’ শেষ হওয়ার পর দর্শকরা যেভাবে করতালি দিয়ে অভিনন্দন জানিয়েছেন তা মনে রাখার মতো। এবারের উৎসবে ৫৩ দেশের ১৪৩টি ছবি প্রদর্শিত হচ্ছে। এর মধ্যে বিদেশি ছবি ৯৩টি। ফোকাস দেশ হচ্ছে, বৃটেন। বাংলাদেশের আবু সাঈদের তৈরি ‘একজন কবির মৃত্যু’ ছবিটিও এবারের উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ। এবার উৎসবকে ঘিরে ‘ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার অফ বেঙ্গলি সিনেমা’ নামে একটা নতুন বিভাগ খোলা হয়েছে। ‘বিলের ডাইরি’, ‘বারান্দা’ এবং ‘স্মাগ’ এই তিনটি বাংলা ছবির প্রিমিয়ার হবে এবারের উৎসবে। বাংলাদেশি অভিনেত্রী জয়া আহসান অভিনীত ‘বিসর্জন’ থেকে সোনম কাপুরের ‘নীরজা’সহ রয়েছে আরও বহু ছবি যা দর্শকদের প্রত্যাশা পূরণ করবে।