ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে… এই অভ্যাসগুলোর চর্চা নিয়মিত করা উচিৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য থাকা জরুরি কেনো ? পুনাক এর উদ্যোগে দুস্হ ও অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করা হয়েছে কুলাউড়ার টিলাগাঁও এ সরকারি গাছ বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক লটারি বাইক জিতলো মা’ সে কারণে কপাল পুড়লো মেয়ের ফজরের নামাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় কুকুর দলের আক্রমনে প্রান গেলো ইজাজুলের সাবেক সাংসদ সেলিমা আহমাদ মেরীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামিলীগের মতবিনিময় সভা

বরাদ্দ বাড়ানো হয়েছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে

অনলাইন ডেস্ক :
  • আপডেটের সময় : ০৩:৩৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ জুন ২০১৭
  • / ১৩৩০ টাইম ভিউ

বরাদ্দ বাড়ানো হয়েছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে

গেলো ২০১৬-১৭ অর্থবছরের চেয়ে নতুন প্রস্তাবিত বাজেটে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে বরাদ্দ দ্বিগুণ বাড়ানো হয়েছে। এবার এ খাতে বরাদ্দ ধরা হয়েছে ৩ হাজার ৯৭৪ কোটি টাকা।২০১৬-১৭ অর্থবছরে এ খাতের বরাদ্দ ছিল ৮৩৫ কোটি টাকা। এবার তা ২ হাজার ৯৩৯ কোটি টাকা বেশি। বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, সরকার বিজ্ঞানভিত্তিক উচ্চশিক্ষা ও গবেষণাকে অব্যাহতভাবে উৎসাহ দিতে চায়। আর সেজন্য বিজ্ঞানী, প্রযুক্তিবিদ ও গবেষকদের বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ট্রাস্টের মাধ্যমে ফেলোশিপ প্রদান অব্যাহত রাখা হবে।তিনি বলেন, আইসিটি শিক্ষার সম্প্রসারণে সারাদেশের ২৩ হাজার ৩৩১টি মাধ্যমিক এবং ১৫ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ‘শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব’ও মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম স্থাপন করা হয়েছে।প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়সহ ২০টি মন্ত্রণালয়/বিভাগ ৬৪টি জেলা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় এবং ৭ বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে এরইমধ্যে ই-ফাইলিং চালু হয়েছে।অর্থমন্ত্রী বলেন, বিদ্যমান সাবমেরিন ক্যাবলের ক্যাপাসিটি ৪৪ জিবিপিএস হতে বাড়িয়ে ২শ’জিবিপিএস এ উন্নীত করা হয়েছে। এপ্রিল ২০১৭ পর্যন্ত মোবাইলফোন গ্রাহক সংখ্যা প্রায় ১৩ কোটি ৩১ লাখ এবং ইন্টারনেট গ্রাহক সংখ্যা ৭ কোটিতে দাঁড়িয়েছে।

পোস্ট শেয়ার করুন

বরাদ্দ বাড়ানো হয়েছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে

আপডেটের সময় : ০৩:৩৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ জুন ২০১৭

গেলো ২০১৬-১৭ অর্থবছরের চেয়ে নতুন প্রস্তাবিত বাজেটে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে বরাদ্দ দ্বিগুণ বাড়ানো হয়েছে। এবার এ খাতে বরাদ্দ ধরা হয়েছে ৩ হাজার ৯৭৪ কোটি টাকা।২০১৬-১৭ অর্থবছরে এ খাতের বরাদ্দ ছিল ৮৩৫ কোটি টাকা। এবার তা ২ হাজার ৯৩৯ কোটি টাকা বেশি। বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, সরকার বিজ্ঞানভিত্তিক উচ্চশিক্ষা ও গবেষণাকে অব্যাহতভাবে উৎসাহ দিতে চায়। আর সেজন্য বিজ্ঞানী, প্রযুক্তিবিদ ও গবেষকদের বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ট্রাস্টের মাধ্যমে ফেলোশিপ প্রদান অব্যাহত রাখা হবে।তিনি বলেন, আইসিটি শিক্ষার সম্প্রসারণে সারাদেশের ২৩ হাজার ৩৩১টি মাধ্যমিক এবং ১৫ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ‘শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব’ও মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম স্থাপন করা হয়েছে।প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়সহ ২০টি মন্ত্রণালয়/বিভাগ ৬৪টি জেলা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় এবং ৭ বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে এরইমধ্যে ই-ফাইলিং চালু হয়েছে।অর্থমন্ত্রী বলেন, বিদ্যমান সাবমেরিন ক্যাবলের ক্যাপাসিটি ৪৪ জিবিপিএস হতে বাড়িয়ে ২শ’জিবিপিএস এ উন্নীত করা হয়েছে। এপ্রিল ২০১৭ পর্যন্ত মোবাইলফোন গ্রাহক সংখ্যা প্রায় ১৩ কোটি ৩১ লাখ এবং ইন্টারনেট গ্রাহক সংখ্যা ৭ কোটিতে দাঁড়িয়েছে।