ঢাকা , সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
প্রিয়জনদের মানসিক রোগ যদি আপনজন বুঝতে না পারেন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ যেকোনো প্রচেষ্টা এককভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব নয়: দুদক সচিব শ্রীমঙ্গলে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল সহ মিল্টন কুমার আটক পর্তুগালের অভিবাসন আইনে ব্যাপক পরিবর্তন পর্তুগাল বিএনপি আহবায়ক কমিটির জুমে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয় এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যার ঘটনায় আটক তিনজন , এতে বাংলাদেশী মানুষ জড়িত:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ ইরান দুতাবাসে রাইসির শোক বইয়ে মির্জা ফখরুলের স্বাক্ষর মুটো ফোনের আসক্তি দূর করবেন যেভাবে…

বরমচাল বড়ছড়া রেল ব্রীজ পাহাড়ি ঢলে হুমকির মুখে

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ১১:১২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ জুন ২০১৯
  • / ১০১২ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ  মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল ট্রেন দুর্ঘটনা কবলিত বড়ছড়া ব্রীজটি পাহাড়ী প্রবল ঢলে হুমকির মুখে পড়েছে।

২৮ জুন মুক্রবার পাহাড়ি ঢলে হুমকির কারণে দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। এসময় সিলেট থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামীগামী আন্ত:নগর পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনটি আটকা পড়ে। বরমচাল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ইসহাক চৌধুরী ইমরান, রোহিত, রিয়াজ উদ্দিন, ধীরজিৎ সিংহ, আবু রোম্মন চৌধুরী, দাইয়ান আহমদ, আবু বক্কর জানান, গত বুধবার রাত থেকে বৃষ্টিপাত শুরু হয়, বৃহস্পতিবার রাতে ভারি বর্ষণের ফলে ট্রেন দুর্ঘটনা কবলিত বড়ছড়া দিয়ে প্রবল বেগে পাহাড়ি ঢল নামতে শুরু করে। বড়ছড়া রেল ব্রীজের নিচে দুর্ঘটনা কবলিত ট্রেনের বগি পড়ে থাকায়, পাহাড়ি ঢলে বিঘ্ন সৃষ্টি করে। এতে বড়ছড়া ব্রীজের উজানে পানি বাড়তে থাকে। যার ফলে হুমকির মুখে পড়ে বড়ছড়া রেল ব্রীজ।

স্থানীয় লোকজন জানান, বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকলে যে কোনো সময় স্রোতের তোড়ে ভেসে যেতে পারে বড়ছড়া রেল ব্রীজটি।

বরমচাল স্টেশন মাষ্টার শফিকুল ইসলাম জানান, টানা বৃষ্টির প্রবল স্রোতে বড়ছড়া ব্রীজের নিচ থেকে মাটি সরেছে এমন ধারণা থেকে পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনটি বরমচাল স্টেশনে থামিয়ে দেওয়া হয়েছিলো। ২ ঘন্টা আটকা থাকার পর বিকেল ৪টায় ঝুকি নিয়ে বড়ছড়া ব্রীজটি অতিক্রম করে পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনটি।

বিষয়টি মাস্টার শফিকুল ইসলাম ঢাকা কন্ট্রোল রুমকে জানিয়েছেন বলে জানান।

কুলাউড়ায় কর্তব্যরত স্টেশন মাষ্টার মাজহারুল ইসলাম বলেন, বেশ কিছু স্থানে রেল লাইনের উপর পানি উঠে গেছে। তাছাড়া বড়ছড়া ব্রীজের টেকসইয়ে সন্দেহ হচ্ছে। হতে পারে প্রবল স্রোতে নিচ থেকে মাটি সরেছে। তাই ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখার পর স্বাভাবিক করে দেয়া হয়েছে।

পোস্ট শেয়ার করুন

বরমচাল বড়ছড়া রেল ব্রীজ পাহাড়ি ঢলে হুমকির মুখে

আপডেটের সময় : ১১:১২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ জুন ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ  মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল ট্রেন দুর্ঘটনা কবলিত বড়ছড়া ব্রীজটি পাহাড়ী প্রবল ঢলে হুমকির মুখে পড়েছে।

২৮ জুন মুক্রবার পাহাড়ি ঢলে হুমকির কারণে দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। এসময় সিলেট থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামীগামী আন্ত:নগর পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনটি আটকা পড়ে। বরমচাল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ইসহাক চৌধুরী ইমরান, রোহিত, রিয়াজ উদ্দিন, ধীরজিৎ সিংহ, আবু রোম্মন চৌধুরী, দাইয়ান আহমদ, আবু বক্কর জানান, গত বুধবার রাত থেকে বৃষ্টিপাত শুরু হয়, বৃহস্পতিবার রাতে ভারি বর্ষণের ফলে ট্রেন দুর্ঘটনা কবলিত বড়ছড়া দিয়ে প্রবল বেগে পাহাড়ি ঢল নামতে শুরু করে। বড়ছড়া রেল ব্রীজের নিচে দুর্ঘটনা কবলিত ট্রেনের বগি পড়ে থাকায়, পাহাড়ি ঢলে বিঘ্ন সৃষ্টি করে। এতে বড়ছড়া ব্রীজের উজানে পানি বাড়তে থাকে। যার ফলে হুমকির মুখে পড়ে বড়ছড়া রেল ব্রীজ।

স্থানীয় লোকজন জানান, বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকলে যে কোনো সময় স্রোতের তোড়ে ভেসে যেতে পারে বড়ছড়া রেল ব্রীজটি।

বরমচাল স্টেশন মাষ্টার শফিকুল ইসলাম জানান, টানা বৃষ্টির প্রবল স্রোতে বড়ছড়া ব্রীজের নিচ থেকে মাটি সরেছে এমন ধারণা থেকে পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনটি বরমচাল স্টেশনে থামিয়ে দেওয়া হয়েছিলো। ২ ঘন্টা আটকা থাকার পর বিকেল ৪টায় ঝুকি নিয়ে বড়ছড়া ব্রীজটি অতিক্রম করে পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনটি।

বিষয়টি মাস্টার শফিকুল ইসলাম ঢাকা কন্ট্রোল রুমকে জানিয়েছেন বলে জানান।

কুলাউড়ায় কর্তব্যরত স্টেশন মাষ্টার মাজহারুল ইসলাম বলেন, বেশ কিছু স্থানে রেল লাইনের উপর পানি উঠে গেছে। তাছাড়া বড়ছড়া ব্রীজের টেকসইয়ে সন্দেহ হচ্ছে। হতে পারে প্রবল স্রোতে নিচ থেকে মাটি সরেছে। তাই ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখার পর স্বাভাবিক করে দেয়া হয়েছে।