ঢাকা , বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি

বন্যা মোকাবিলায় প্রস্তুত তিন বাহিনী: সেনাপ্রধান

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ১১:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯
  • / ৩৩৮ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ দেশের বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সেনা, বিমান ও নৌবাহিনী প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। বুধবার সচিবালয়ে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনে তিন বাহিনীর প্রধানের সঙ্গে ডিসিদের আলোচনা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেন, বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হলে সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনী সহায়তা করতে প্রস্তুত রয়েছে বলে সভায় জানানো হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া কিভাবে আরও ভালো করা যায় সে বিষয়ে ডিসিদের (জেলা প্রশাসক) সঙ্গে আলোচনা হয়েছে।

এর আগে, গত রোববার থেকে শুরু হয় পাঁচ দিনব্যাপী জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলন। এবারই প্রথমবারের মতো প্রধান বিচারপতি, স্পিকার ও তিন বাহিনীর প্রধানদের সঙ্গেও আলোচনা হয়েছে ডিসিদের।

এবার বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ সম্পর্কে মোট ৩৩৩টি প্রস্তাব দিয়েছেন ডিসিরা। মন্ত্রী-সচিবদের উপস্থিতিতে এসব প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত হচ্ছে। পাঁচ দিনের এই সম্মেলনে মোট ২৯টি অধিবেশন হচ্ছে। এর মধ্যে ২৪টি কার্য অধিবেশন।

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিন ধরে দেশের বেশির ভাগ নদ-নদীতে বন্যার পানি বাড়ছে। আগামী দু-এক দিনের মধ্যে কুড়িগ্রাম, জামালপুর, গাইবান্ধা, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল ও শেরপুরে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তর পূর্বাভাস দিয়েছে।

ইতোমধ্যে অনেক এলাকার ঘরবাড়ি ও রাস্তাঘাট বন্যার পানিতে ডুবে গেছে। পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন কয়েক লাখ মানুষ। বন্যার ফলে খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি ও আশ্রয়ের সংকটে ভুগছেন পানিবন্দী মানুষ। সারাদিন পানিতে চলাফেরা করায় বানভানিরা পানিবাহিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। বন্যার পানিতে ডুবে কুড়িগ্রামে গত দুদিনে শিশুসহ মোট ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

প্রতিবেশী দেশ ভারত, চীন ও নেপালে আরও বৃষ্টিপাত হলে এবং ব্রহ্মপুত্র ও যমুনার পানি বৃদ্ধি পেলে দেশে বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতি হতে পারে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা.এনামুর রহমান। তিনি জানান, বন্যায় এখন পর্যন্ত ২০ জেলা আক্রান্ত হয়েছে।

পোস্ট শেয়ার করুন

বন্যা মোকাবিলায় প্রস্তুত তিন বাহিনী: সেনাপ্রধান

আপডেটের সময় : ১১:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ দেশের বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সেনা, বিমান ও নৌবাহিনী প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। বুধবার সচিবালয়ে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনে তিন বাহিনীর প্রধানের সঙ্গে ডিসিদের আলোচনা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেন, বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হলে সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনী সহায়তা করতে প্রস্তুত রয়েছে বলে সভায় জানানো হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া কিভাবে আরও ভালো করা যায় সে বিষয়ে ডিসিদের (জেলা প্রশাসক) সঙ্গে আলোচনা হয়েছে।

এর আগে, গত রোববার থেকে শুরু হয় পাঁচ দিনব্যাপী জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলন। এবারই প্রথমবারের মতো প্রধান বিচারপতি, স্পিকার ও তিন বাহিনীর প্রধানদের সঙ্গেও আলোচনা হয়েছে ডিসিদের।

এবার বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ সম্পর্কে মোট ৩৩৩টি প্রস্তাব দিয়েছেন ডিসিরা। মন্ত্রী-সচিবদের উপস্থিতিতে এসব প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত হচ্ছে। পাঁচ দিনের এই সম্মেলনে মোট ২৯টি অধিবেশন হচ্ছে। এর মধ্যে ২৪টি কার্য অধিবেশন।

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিন ধরে দেশের বেশির ভাগ নদ-নদীতে বন্যার পানি বাড়ছে। আগামী দু-এক দিনের মধ্যে কুড়িগ্রাম, জামালপুর, গাইবান্ধা, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল ও শেরপুরে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তর পূর্বাভাস দিয়েছে।

ইতোমধ্যে অনেক এলাকার ঘরবাড়ি ও রাস্তাঘাট বন্যার পানিতে ডুবে গেছে। পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন কয়েক লাখ মানুষ। বন্যার ফলে খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি ও আশ্রয়ের সংকটে ভুগছেন পানিবন্দী মানুষ। সারাদিন পানিতে চলাফেরা করায় বানভানিরা পানিবাহিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। বন্যার পানিতে ডুবে কুড়িগ্রামে গত দুদিনে শিশুসহ মোট ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

প্রতিবেশী দেশ ভারত, চীন ও নেপালে আরও বৃষ্টিপাত হলে এবং ব্রহ্মপুত্র ও যমুনার পানি বৃদ্ধি পেলে দেশে বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতি হতে পারে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা.এনামুর রহমান। তিনি জানান, বন্যায় এখন পর্যন্ত ২০ জেলা আক্রান্ত হয়েছে।