ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেসবুক লাইভে প্রচারের পর অসুস্থ জহুর আলীর পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রবাসীরা

দেশদিগন্ত নিউজঃ
  • আপডেটের সময় : ১১:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ মে ২০২০
  • / ৬৫১ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজঃ মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার হাজীপুর ইউনিয়নের ভুঁইগাঁও গ্রামের সবজি বিক্রেতা জটিলরোগে আক্রান্ত জহুর আলীর পাশে দাঁড়িয়ে আর্থিক সহযোগীতা করছেন দেশিদের পাশা পাশি অনেক প্রবাসীরা।

সম্প্রতি স্থানীয় সাংবাদিক ও দেশদিগন্তর বার্তা সম্পাদক ছয়ফুল আলম সাইফুল তাহার নিজ আইডিতে অসুস্থ জহুর আলী অর্থের অভাবে চিকিৎসা করতে না পারা ও চারটি মেয়ে সন্তান নিয়ে অতিকষ্ঠে দিনাতিপাত করার করুন কাহিনী ফেসবুক লাইভে তোলে ধরেন।

এলাকার দানশীল ব্যক্তি ও দেশী বিদেশীদের কাছে জটিলরোগে আক্রান্ত সবজি বিক্রেতা জহুর আলীর পাশে দাঁড়ানোর আহব্বান জানান। তাহার এ প্রচারের পর থেকে অনেক দেশি-বিদেশীরা মোবাইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করে বিকাশে এবং বাড়িতে এসে অনেকেই নগদ অর্থ প্রদান করে সহযোগীতার হাত বাঁড়িয়েছেন।

আজ বিকাল ৫টায় একই গ্রামের আমেরিকা প্রবাসী মোঃ জমসেদ আলীর ছেলে রুপক চৌধুরী ১০ হাজার টাকা আরেফ চৌধুরী ১ হাজার টাকা এবং সুলতান পুর গ্রামের ইউএই প্রবাসী রেজাউল রহমান, সমাজ সেবক ফজলুল হক, আমেরিকা প্রবাসী আব্দুল মুকিত জুয়েল নিজ নিজ উদ্যোগে প্রথম ধাপে কিছু টাকা দিয়েছেন, আগামীতে আরও সহযোগীতার কথা জানিয়েছেন। ইতিমধ্যে আরও অনেক দেশী-বিদেশী নিজ নিজ উদ্যোগে সহযোগীতা করছেন।এছাড়াও আর অনেকেই সহযোগীতা করার কথা জানিয়েছেন।

জানা যায় সবজি বিক্রেতা মোঃ জহুর আলী একসময় সিলেট শহর দাপিয়ে বেড়াতেন, শহরের মেজরটিলায় সবজি বিক্রি করতেন। সবজি বিক্রি করার পাশাপাশি নিয়মিত নামাজ আদায় করতেন।মাঝে মাঝে তাবলীগে ও সময় লাগাতেন।৪ মেয়ে সন্তান নিয়ে মোটামুটি ভালই দিন চলছিল তার। কিন্তু নিয়তির নির্মম পরিহাস বাদ সাধল এক টিউমার।

গত একবছর থেকে টিউমারে আক্রান্ত হয়ে এখন শয্যাশায়ী। ডাক্তাররা বলেছেন টিউমারটি এখন ক্যান্সারে রুপ নিয়েছে। জরুরি ভিত্তিতে অপারেশন করতে হবে।চিকিৎসা করতে গিয়ে পরিবারের হাতে যা সম্বল ছিল সব শেষ হয়ে গেছে। এখন খাওয়া পরা ও কষ্ট সাধ্য হয়ে গেছে।পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যাক্তি অসুস্থ হওয়ায় পরিবারটি অনেক কষ্টের মধ্যে আছে আবার অপারেশন করতে প্রায় ৪/৫ লাখ টাকার মত লাগবে।

যা উনার পক্ষে যোগাড় করা প্রায় অসম্ভব। জহুর আলী ৪ টি মেয়ের জন্য বাঁচতে চান। সমাজের সকল বিত্তবানদের প্রতি তিনি অনুরোধ জানিয়েছেন সকলে একটুখানি সহায়তা করলে উনি বেঁচে উঠতে পারবেন।পবিত্র রমজান,দূর্যোগময় মুহুর্তে আপনাদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন।আপনার একটু সাহায্য জহুর আলীকে বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখাতে পারে।সম্বলহীন এ মানুষটি আপনাদের উদার হাতের দিকে চেয়ে আছেন।

আজ ১২ মে পর্যন্ত বিভিন্ন মাধ্যমে টাকা জমা হয়েছে ৫৬০০০ হাজার ৭০০ টাকা।এলাকার দানশীল ব্যক্তি ও দেশী বিদেশীদের কাছে জটিলরোগে আক্রান্ত সবজি বিক্রেতা জহুর আলীর পাশে দাঁড়ানোর প্রয়োজন।

জহুর আলীকে সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা পরিবারের নম্বর বিকাশ- 01315674721 । একাউন্ট নম্বর  1083458032985  ব্যাংক এশিয়া মৌলভীবাজার শাখা । এছাড়াও সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন এই নম্বরে  01778861950 জহুর আলী।

পোস্ট শেয়ার করুন

ফেসবুক লাইভে প্রচারের পর অসুস্থ জহুর আলীর পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রবাসীরা

আপডেটের সময় : ১১:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ মে ২০২০

দেশদিগন্ত নিউজঃ মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার হাজীপুর ইউনিয়নের ভুঁইগাঁও গ্রামের সবজি বিক্রেতা জটিলরোগে আক্রান্ত জহুর আলীর পাশে দাঁড়িয়ে আর্থিক সহযোগীতা করছেন দেশিদের পাশা পাশি অনেক প্রবাসীরা।

সম্প্রতি স্থানীয় সাংবাদিক ও দেশদিগন্তর বার্তা সম্পাদক ছয়ফুল আলম সাইফুল তাহার নিজ আইডিতে অসুস্থ জহুর আলী অর্থের অভাবে চিকিৎসা করতে না পারা ও চারটি মেয়ে সন্তান নিয়ে অতিকষ্ঠে দিনাতিপাত করার করুন কাহিনী ফেসবুক লাইভে তোলে ধরেন।

এলাকার দানশীল ব্যক্তি ও দেশী বিদেশীদের কাছে জটিলরোগে আক্রান্ত সবজি বিক্রেতা জহুর আলীর পাশে দাঁড়ানোর আহব্বান জানান। তাহার এ প্রচারের পর থেকে অনেক দেশি-বিদেশীরা মোবাইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করে বিকাশে এবং বাড়িতে এসে অনেকেই নগদ অর্থ প্রদান করে সহযোগীতার হাত বাঁড়িয়েছেন।

আজ বিকাল ৫টায় একই গ্রামের আমেরিকা প্রবাসী মোঃ জমসেদ আলীর ছেলে রুপক চৌধুরী ১০ হাজার টাকা আরেফ চৌধুরী ১ হাজার টাকা এবং সুলতান পুর গ্রামের ইউএই প্রবাসী রেজাউল রহমান, সমাজ সেবক ফজলুল হক, আমেরিকা প্রবাসী আব্দুল মুকিত জুয়েল নিজ নিজ উদ্যোগে প্রথম ধাপে কিছু টাকা দিয়েছেন, আগামীতে আরও সহযোগীতার কথা জানিয়েছেন। ইতিমধ্যে আরও অনেক দেশী-বিদেশী নিজ নিজ উদ্যোগে সহযোগীতা করছেন।এছাড়াও আর অনেকেই সহযোগীতা করার কথা জানিয়েছেন।

জানা যায় সবজি বিক্রেতা মোঃ জহুর আলী একসময় সিলেট শহর দাপিয়ে বেড়াতেন, শহরের মেজরটিলায় সবজি বিক্রি করতেন। সবজি বিক্রি করার পাশাপাশি নিয়মিত নামাজ আদায় করতেন।মাঝে মাঝে তাবলীগে ও সময় লাগাতেন।৪ মেয়ে সন্তান নিয়ে মোটামুটি ভালই দিন চলছিল তার। কিন্তু নিয়তির নির্মম পরিহাস বাদ সাধল এক টিউমার।

গত একবছর থেকে টিউমারে আক্রান্ত হয়ে এখন শয্যাশায়ী। ডাক্তাররা বলেছেন টিউমারটি এখন ক্যান্সারে রুপ নিয়েছে। জরুরি ভিত্তিতে অপারেশন করতে হবে।চিকিৎসা করতে গিয়ে পরিবারের হাতে যা সম্বল ছিল সব শেষ হয়ে গেছে। এখন খাওয়া পরা ও কষ্ট সাধ্য হয়ে গেছে।পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যাক্তি অসুস্থ হওয়ায় পরিবারটি অনেক কষ্টের মধ্যে আছে আবার অপারেশন করতে প্রায় ৪/৫ লাখ টাকার মত লাগবে।

যা উনার পক্ষে যোগাড় করা প্রায় অসম্ভব। জহুর আলী ৪ টি মেয়ের জন্য বাঁচতে চান। সমাজের সকল বিত্তবানদের প্রতি তিনি অনুরোধ জানিয়েছেন সকলে একটুখানি সহায়তা করলে উনি বেঁচে উঠতে পারবেন।পবিত্র রমজান,দূর্যোগময় মুহুর্তে আপনাদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন।আপনার একটু সাহায্য জহুর আলীকে বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখাতে পারে।সম্বলহীন এ মানুষটি আপনাদের উদার হাতের দিকে চেয়ে আছেন।

আজ ১২ মে পর্যন্ত বিভিন্ন মাধ্যমে টাকা জমা হয়েছে ৫৬০০০ হাজার ৭০০ টাকা।এলাকার দানশীল ব্যক্তি ও দেশী বিদেশীদের কাছে জটিলরোগে আক্রান্ত সবজি বিক্রেতা জহুর আলীর পাশে দাঁড়ানোর প্রয়োজন।

জহুর আলীকে সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা পরিবারের নম্বর বিকাশ- 01315674721 । একাউন্ট নম্বর  1083458032985  ব্যাংক এশিয়া মৌলভীবাজার শাখা । এছাড়াও সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন এই নম্বরে  01778861950 জহুর আলী।