ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি ইতালির ভিসেন্সায় সিলেট ডায়নামিক অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত

প্রবাসীর স্ত্রী-ছেলে-মেয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক :
  • আপডেটের সময় : ১২:০৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২০ ডিসেম্বর ২০১৭
  • / ১২৫৮ টাইম ভিউ

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার সুজানগর ইউনিয়নের ভোলাকান্দি গ্রামে একই পরিবারের স্ত্রী, ছেলে ও মেয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিজ ঘর থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।
নিহতরা হলেন- কাতার প্রবাসী আকামত আলীর স্ত্রী মাজেদা বেগম (২৫), মেয়ে লাবনী বেগম (৫) ও ছেলে ফারুক আহমদ (৩)।
নিহত মাজেদার বাবার বাড়ি কুলাউড়া উপজেলার সাদিপুর গ্রামে। ঘটনাটি আত্মহত্যা নাকি পরিকল্পিত হত্যা, এ নিয়ে পুলিশ ও এলাকাবাসীর মধ্যে নানা সন্দেহ দেখা দিয়েছে।
পুলিশ ও প্রতিবেশী সূত্রে জানা গেছে, কাতার প্রবাসী আকামত আলীর স্ত্রী প্রতিদিন নিজ বাড়ির প্রায় ১০০ গজ দূরে আরেকটি ঘর নির্মাণে মিস্ত্রিদের সাহায্য-সহযোগিতা করছিলেন। একইভাবে মঙ্গলবারও মিস্ত্রিদের সাহায্য করছিলেন। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে দিবাংশু নামে মিস্ত্রি মাজেদার ঘরে সিমেন্টে নিতে গিয়ে ঘরের দরজা বন্ধ দেখেন। অনেক ডাকাডাকি করে দীর্ঘক্ষণ সাড়া না পেয়ে দরজার ফাঁক দিয়ে মাজেদাসহ মেয়েকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান এবং লোকজনকে জানান।
খবর পেয়ে ওয়ার্ড মেম্বার মাসুক আহমদ ও আওয়ামী লীগ নেতা মোক্তার আলী পুলিশে খবর দেন। সন্ধ্যা ৬টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মা ও মেয়ের ঝুলন্ত লাশ ও মেঝে থেকে শিশুপুত্রের মৃতদেহ উদ্ধার করেন।
স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার মাসুক আহমদ জানান, তিনি বিকেল ৫টার দিকে খবর পেয়েই আমি ঘটনাস্থলে যাই। তবে কী কারণে ঘটনাটি ঘটেছে- তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।
বড়লেখা থানার এসআই অমিতাভ দাস তালুকদার জানান, মা, মেয়ে ও শিশুপুত্রের লাশ মেঝে থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ তিনটি মর্গে পাঠানো্ হবে। ঘটনাটি আত্মহত্যা নাকি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড- তা এ মুহূর্তে নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

পোস্ট শেয়ার করুন

প্রবাসীর স্ত্রী-ছেলে-মেয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

আপডেটের সময় : ১২:০৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২০ ডিসেম্বর ২০১৭

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার সুজানগর ইউনিয়নের ভোলাকান্দি গ্রামে একই পরিবারের স্ত্রী, ছেলে ও মেয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিজ ঘর থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।
নিহতরা হলেন- কাতার প্রবাসী আকামত আলীর স্ত্রী মাজেদা বেগম (২৫), মেয়ে লাবনী বেগম (৫) ও ছেলে ফারুক আহমদ (৩)।
নিহত মাজেদার বাবার বাড়ি কুলাউড়া উপজেলার সাদিপুর গ্রামে। ঘটনাটি আত্মহত্যা নাকি পরিকল্পিত হত্যা, এ নিয়ে পুলিশ ও এলাকাবাসীর মধ্যে নানা সন্দেহ দেখা দিয়েছে।
পুলিশ ও প্রতিবেশী সূত্রে জানা গেছে, কাতার প্রবাসী আকামত আলীর স্ত্রী প্রতিদিন নিজ বাড়ির প্রায় ১০০ গজ দূরে আরেকটি ঘর নির্মাণে মিস্ত্রিদের সাহায্য-সহযোগিতা করছিলেন। একইভাবে মঙ্গলবারও মিস্ত্রিদের সাহায্য করছিলেন। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে দিবাংশু নামে মিস্ত্রি মাজেদার ঘরে সিমেন্টে নিতে গিয়ে ঘরের দরজা বন্ধ দেখেন। অনেক ডাকাডাকি করে দীর্ঘক্ষণ সাড়া না পেয়ে দরজার ফাঁক দিয়ে মাজেদাসহ মেয়েকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান এবং লোকজনকে জানান।
খবর পেয়ে ওয়ার্ড মেম্বার মাসুক আহমদ ও আওয়ামী লীগ নেতা মোক্তার আলী পুলিশে খবর দেন। সন্ধ্যা ৬টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মা ও মেয়ের ঝুলন্ত লাশ ও মেঝে থেকে শিশুপুত্রের মৃতদেহ উদ্ধার করেন।
স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার মাসুক আহমদ জানান, তিনি বিকেল ৫টার দিকে খবর পেয়েই আমি ঘটনাস্থলে যাই। তবে কী কারণে ঘটনাটি ঘটেছে- তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।
বড়লেখা থানার এসআই অমিতাভ দাস তালুকদার জানান, মা, মেয়ে ও শিশুপুত্রের লাশ মেঝে থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ তিনটি মর্গে পাঠানো্ হবে। ঘটনাটি আত্মহত্যা নাকি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড- তা এ মুহূর্তে নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।