ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি ইতালির ভিসেন্সায় সিলেট ডায়নামিক অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত

পেটের মধ্যে কাঁচি রেখেই সেলাই

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : ১০:৩৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৯
  • / ১০৮৮ টাইম ভিউ

চিকিৎসক ভুল করে পেটের মধ্যে ডাক্তারি ছুরি-কাঁচি রেখেই সেলাই করে ফেলেছিলেন। মাস খানেক পরে এক্স রে করাতে রোগিনীর পেটের ভিতরে ধরা পড়ল অবহেলার এই নজির। ভারতের হায়দরাবাদের একটি হাসপাতালে তিনমাস আগে অস্ত্রোপচারের জন্য ভর্তি হয়েছিলেন ওই মহিলা। চিকিৎসকেরা অস্ত্রোপচারের সময় ডাক্তারির বিশেষ কাঁচি বা ফরসেপ রোগিনীর পেটের ভিতরেই রেখে বেমালুম ভুলে যান। তিন মাস ধরে রোগিনীর পেটেই ছিল ওই ফরসেপ।

হায়দরাবাদের বিখ্যাত নিজাম ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সেসে ৩৩ বছর বয়সী এই মহিলা তিন মাস আগে অস্ত্রোপচারের জন্য ভর্তি হন। হাসপাতাল থেকে ছুটি হয়ে যাওয়ার পরে বাড়িতে ফেরার পর থেকেই তিনি পেটের মারাত্মক যন্ত্রণায় ভুগতে থাকেন।

পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য ফের তাঁকে ওই হাসপাতালেই নিয়ে যাওয়া হয় এবং এক্স রে করানো হয়। এক্স রে রিপোর্ট দেখেই চক্ষু চড়কগাছ তাঁর আত্মীয়দের এবং চিকিৎসকদেরও। ওই রিপোর্টেই দেখা যায় মহিলার পেটের মধ্যে রয়েছে একটি ডাক্তারি কাঁচি। অবিলম্বে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আজ সকালেই ফের অস্ত্রোপচার করে ওই যন্ত্রটি বের করা হয়।

এনআইএমএসের পরিচালক কে মনোহর এনডিটিভিকে বলেন, “রোগী আমাদের প্রথম অগ্রাধিকার। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আমরা রোগীর স্বাস্থ্য সমস্যা মিটিয়ে দিতে ওই উপকরণটি বের করে দিচ্ছি।”

পূর্বের অস্ত্রোপচারটি করেছিলেন সার্জিক্যাল গ্যাস্ট্রোএন্ট্রোলজি বিভাগের একজন শল্য চিকিৎসক। হাসপাতালের তরফে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলেও তিনি বলেন।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানায়, পুলিশের কাছে, দু’জন ডাক্তারের বিরুদ্ধে ওই মহিলার স্বামী অভিযোগ দায়ের করেছেন। ক্রেতা সুরক্ষা আদালতও বিষয়টি দেখছে।

পোস্ট শেয়ার করুন

পেটের মধ্যে কাঁচি রেখেই সেলাই

আপডেটের সময় : ১০:৩৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

চিকিৎসক ভুল করে পেটের মধ্যে ডাক্তারি ছুরি-কাঁচি রেখেই সেলাই করে ফেলেছিলেন। মাস খানেক পরে এক্স রে করাতে রোগিনীর পেটের ভিতরে ধরা পড়ল অবহেলার এই নজির। ভারতের হায়দরাবাদের একটি হাসপাতালে তিনমাস আগে অস্ত্রোপচারের জন্য ভর্তি হয়েছিলেন ওই মহিলা। চিকিৎসকেরা অস্ত্রোপচারের সময় ডাক্তারির বিশেষ কাঁচি বা ফরসেপ রোগিনীর পেটের ভিতরেই রেখে বেমালুম ভুলে যান। তিন মাস ধরে রোগিনীর পেটেই ছিল ওই ফরসেপ।

হায়দরাবাদের বিখ্যাত নিজাম ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সেসে ৩৩ বছর বয়সী এই মহিলা তিন মাস আগে অস্ত্রোপচারের জন্য ভর্তি হন। হাসপাতাল থেকে ছুটি হয়ে যাওয়ার পরে বাড়িতে ফেরার পর থেকেই তিনি পেটের মারাত্মক যন্ত্রণায় ভুগতে থাকেন।

পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য ফের তাঁকে ওই হাসপাতালেই নিয়ে যাওয়া হয় এবং এক্স রে করানো হয়। এক্স রে রিপোর্ট দেখেই চক্ষু চড়কগাছ তাঁর আত্মীয়দের এবং চিকিৎসকদেরও। ওই রিপোর্টেই দেখা যায় মহিলার পেটের মধ্যে রয়েছে একটি ডাক্তারি কাঁচি। অবিলম্বে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আজ সকালেই ফের অস্ত্রোপচার করে ওই যন্ত্রটি বের করা হয়।

এনআইএমএসের পরিচালক কে মনোহর এনডিটিভিকে বলেন, “রোগী আমাদের প্রথম অগ্রাধিকার। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আমরা রোগীর স্বাস্থ্য সমস্যা মিটিয়ে দিতে ওই উপকরণটি বের করে দিচ্ছি।”

পূর্বের অস্ত্রোপচারটি করেছিলেন সার্জিক্যাল গ্যাস্ট্রোএন্ট্রোলজি বিভাগের একজন শল্য চিকিৎসক। হাসপাতালের তরফে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলেও তিনি বলেন।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানায়, পুলিশের কাছে, দু’জন ডাক্তারের বিরুদ্ধে ওই মহিলার স্বামী অভিযোগ দায়ের করেছেন। ক্রেতা সুরক্ষা আদালতও বিষয়টি দেখছে।