ঢাকা , শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পেঁয়াজের কেজি ২০০!

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৭:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯
  • / ৪৩৪ টাইম ভিউ

অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে দেশি পেঁয়াজের দাম ২০০ টাকায় পৌঁছেছে। এটি স্মরণকালের সর্বোচ্চ দাম।

বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর পাইকারি বাজার ঘুরে দেখা যায় দেশি পেঁয়াজ কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ১৯০ থেকে ২০০ টাকা দরে। রাজধানীর কারওয়ান বাজারে দেশি পেঁয়াজ পাইকারি মূল্যে বিক্রয় হচ্ছে ২০০ টাকা দরে।

সরকারের নিয়মিত মনিটরিং না থাকায় ব্যবসায়ীরা ইচ্ছেমত পেঁয়াজের দাম বাড়াচ্ছে বলে অভিযোগ করেন ক্রেতারা। পেঁয়াজের এমন লাগামহীন দামে ক্রেতাদের মাঝে ক্ষোভ দেখা গেছে। পেঁয়াজের বাজার কারা নিয়ন্ত্রণ করছেন সে প্রশ্ন সাধারণ মানুষের।

পাইকারি বাজারে মিসর থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের দাম ১৩৫ থেকে ১৪০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। আর মিয়ানমার থেকে আনা ভালো মানের পেঁয়াজের দাম ছুঁয়েছে ১৯০ টাকা কেজি। আর মিয়ানমার থেকে আনা মাঝারি মানের পেঁয়াজের দর ১৬০ টাকা কেজি। বেশ কয়েকটি বড় ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের পেঁয়াজ আমদানির কথা থাকলেও এখনো তা এসে পৌঁছায়নি বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

এদিকে ক্রেতাদের অভিযোগ, ইচ্ছেমতো দাম রাখছেন বিক্রিতারা। তারা বলছেন, দামের ঊর্ধ্বগতিতে নাভিশ্বাস তাদের।

পোস্ট শেয়ার করুন

পেঁয়াজের কেজি ২০০!

আপডেটের সময় : ০৭:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে দেশি পেঁয়াজের দাম ২০০ টাকায় পৌঁছেছে। এটি স্মরণকালের সর্বোচ্চ দাম।

বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর পাইকারি বাজার ঘুরে দেখা যায় দেশি পেঁয়াজ কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ১৯০ থেকে ২০০ টাকা দরে। রাজধানীর কারওয়ান বাজারে দেশি পেঁয়াজ পাইকারি মূল্যে বিক্রয় হচ্ছে ২০০ টাকা দরে।

সরকারের নিয়মিত মনিটরিং না থাকায় ব্যবসায়ীরা ইচ্ছেমত পেঁয়াজের দাম বাড়াচ্ছে বলে অভিযোগ করেন ক্রেতারা। পেঁয়াজের এমন লাগামহীন দামে ক্রেতাদের মাঝে ক্ষোভ দেখা গেছে। পেঁয়াজের বাজার কারা নিয়ন্ত্রণ করছেন সে প্রশ্ন সাধারণ মানুষের।

পাইকারি বাজারে মিসর থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের দাম ১৩৫ থেকে ১৪০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। আর মিয়ানমার থেকে আনা ভালো মানের পেঁয়াজের দাম ছুঁয়েছে ১৯০ টাকা কেজি। আর মিয়ানমার থেকে আনা মাঝারি মানের পেঁয়াজের দর ১৬০ টাকা কেজি। বেশ কয়েকটি বড় ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের পেঁয়াজ আমদানির কথা থাকলেও এখনো তা এসে পৌঁছায়নি বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

এদিকে ক্রেতাদের অভিযোগ, ইচ্ছেমতো দাম রাখছেন বিক্রিতারা। তারা বলছেন, দামের ঊর্ধ্বগতিতে নাভিশ্বাস তাদের।