ঢাকা , রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
লিসবনে আত্মপ্রকাশ হয় সামাজিক সংগঠন “গোলাপগঞ্জ কমিউনিটি কেয়ারর্স পর্তুগাল “ উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল

পাঁচ বছরে শাহাব উদ্দিনের ব্যাংক ব্যালেন্স বেড়েছে ২১ গুণ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক:
  • আপডেটের সময় : ০৬:৫৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৮
  • / ৩৭২ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা ও জুড়ী) আসনে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান জাতীয় সংসদের হুইপ ও স্থানীয় সাংসদ মো. শাহাব উদ্দিন। গত ২৮ অক্টোবর তিনি রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়পত্র দাখিল করেন। এবার মনোনয়নপত্রের সঙ্গে জমা দেওয়া হলফনামায় পেশা হিসেবে ব্যবসা উল্লেখ করলেও দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হলফনামায় পেশা হিসেবে কৃষি উল্লেখ করেছিলেন। হলফনামার তথ্য বলছে, হুইপ শাহাব উদ্দিনের পেশা ব্যবসা। যোগ্যতা বিএ পাশ। তাঁর নামে কোনো মামলা নেই, অতীতেও ছিল না। তাঁর কোনো দেনা বা ঋণ নেই। কৃষিখাত থেকে বছরে আয় হয় ৫০ হাজার টাকা। তাঁর ওপর নির্ভরশীলদের বছরে চাকরি থেকে আয় ৫ লাখ টাকা। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হলফনামায় দেওয়া তথ্য অনুযায়ী কৃষি থেকে তাঁর বছরে আয় হতো ৩৬ হাজার টাকা। হলফনামার তথ্য অনুযায়ী, অস্থাবর সম্পত্তির মধ্যে হুইপ শাহাব উদ্দিনের কাছে নগদ ২ লাখ টাকা, পাঁচবছর আগে ছিল ২৫ হাজার টাকা। তাঁর নামে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমাকৃত অর্থের পরিমাণ ২২ লাখ ৭১ হাজার ৯’শ টাকা এবং স্ত্রীর নামে ৯৯ হাজার ৬’শ টাকা। পাঁচবছর আগে ছিল ১ লাখ ৮৮ হাজার ৬৮৪ টাকা এবং তাঁর স্ত্রীর কোনো টাকা ছিল না। তাঁর নিজের নামে একটি জিপ আছে, যার মূল্য ৭৪ লাখ টাকা। স্ত্রীর নামে স্বর্ণ, অন্যান্য মূল্যবান ধাতু ও পাথর নির্মিত অলংকার রয়েছে ২০ হাজার টাকার। নিজের নামে (বিবাহসূত্রে প্রাপ্ত) ৪০ হাজার টাকার আসবাবপত্র ও ২০ হাজার টাকা দামের ইলেকট্রনিক সামগ্রী এবং একটি পিস্তল ও একটি বন্দুক রয়েছে। স্থাবর সম্পত্তির মধ্যে হুইপ শাহাব উদ্দিনের পৈত্রিক ও ক্রয়সূত্রে ১২ শতক কৃষি জমি আছে, ঢাকার উত্তরা এলাকায় তাঁর নামে ৩২ লাখ ৩৯ হাজার টাকা মূল্যে অকৃষি জমি এবং যৌথ মালিকানার একটি বাড়ি রয়েছে। হলফনামায় নির্বাচনের আগে দেওয়া তাঁর চারটি প্রতিশ্রুতির কথা উল্লেখ করেছেন। এরমধ্যে জুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নির্মাণ কাজ এবং বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নিতকরণের কাজ শেষ হয়েছে, কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেললাইন পুনঃনির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে, ১২০ কিলোমিটার গ্রামীণ রাস্তা পাকাকরণ কাজ এবং বিভিন্ন গ্রামে প্রায় ৯৭ পারসেন্ট বিদ্যুতায়নের কাজ সমাপ্ত করেছেন বলে দাবি করেছেন।

পোস্ট শেয়ার করুন

পাঁচ বছরে শাহাব উদ্দিনের ব্যাংক ব্যালেন্স বেড়েছে ২১ গুণ

আপডেটের সময় : ০৬:৫৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৮

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা ও জুড়ী) আসনে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান জাতীয় সংসদের হুইপ ও স্থানীয় সাংসদ মো. শাহাব উদ্দিন। গত ২৮ অক্টোবর তিনি রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়পত্র দাখিল করেন। এবার মনোনয়নপত্রের সঙ্গে জমা দেওয়া হলফনামায় পেশা হিসেবে ব্যবসা উল্লেখ করলেও দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হলফনামায় পেশা হিসেবে কৃষি উল্লেখ করেছিলেন। হলফনামার তথ্য বলছে, হুইপ শাহাব উদ্দিনের পেশা ব্যবসা। যোগ্যতা বিএ পাশ। তাঁর নামে কোনো মামলা নেই, অতীতেও ছিল না। তাঁর কোনো দেনা বা ঋণ নেই। কৃষিখাত থেকে বছরে আয় হয় ৫০ হাজার টাকা। তাঁর ওপর নির্ভরশীলদের বছরে চাকরি থেকে আয় ৫ লাখ টাকা। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হলফনামায় দেওয়া তথ্য অনুযায়ী কৃষি থেকে তাঁর বছরে আয় হতো ৩৬ হাজার টাকা। হলফনামার তথ্য অনুযায়ী, অস্থাবর সম্পত্তির মধ্যে হুইপ শাহাব উদ্দিনের কাছে নগদ ২ লাখ টাকা, পাঁচবছর আগে ছিল ২৫ হাজার টাকা। তাঁর নামে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমাকৃত অর্থের পরিমাণ ২২ লাখ ৭১ হাজার ৯’শ টাকা এবং স্ত্রীর নামে ৯৯ হাজার ৬’শ টাকা। পাঁচবছর আগে ছিল ১ লাখ ৮৮ হাজার ৬৮৪ টাকা এবং তাঁর স্ত্রীর কোনো টাকা ছিল না। তাঁর নিজের নামে একটি জিপ আছে, যার মূল্য ৭৪ লাখ টাকা। স্ত্রীর নামে স্বর্ণ, অন্যান্য মূল্যবান ধাতু ও পাথর নির্মিত অলংকার রয়েছে ২০ হাজার টাকার। নিজের নামে (বিবাহসূত্রে প্রাপ্ত) ৪০ হাজার টাকার আসবাবপত্র ও ২০ হাজার টাকা দামের ইলেকট্রনিক সামগ্রী এবং একটি পিস্তল ও একটি বন্দুক রয়েছে। স্থাবর সম্পত্তির মধ্যে হুইপ শাহাব উদ্দিনের পৈত্রিক ও ক্রয়সূত্রে ১২ শতক কৃষি জমি আছে, ঢাকার উত্তরা এলাকায় তাঁর নামে ৩২ লাখ ৩৯ হাজার টাকা মূল্যে অকৃষি জমি এবং যৌথ মালিকানার একটি বাড়ি রয়েছে। হলফনামায় নির্বাচনের আগে দেওয়া তাঁর চারটি প্রতিশ্রুতির কথা উল্লেখ করেছেন। এরমধ্যে জুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নির্মাণ কাজ এবং বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নিতকরণের কাজ শেষ হয়েছে, কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেললাইন পুনঃনির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে, ১২০ কিলোমিটার গ্রামীণ রাস্তা পাকাকরণ কাজ এবং বিভিন্ন গ্রামে প্রায় ৯৭ পারসেন্ট বিদ্যুতায়নের কাজ সমাপ্ত করেছেন বলে দাবি করেছেন।