ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি ইতালির ভিসেন্সায় সিলেট ডায়নামিক অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত

নোয়াখালী-২ আসন নৌকা প্রতীকের সভায় এমপি মোরশেদ আলমকে জুতাপিটা

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৩:২৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ১৪৬ টাইম ভিউ

নোয়াখালী-২ আসনের নৌকার প্রার্থী এমপি মোরশেদ আলমকে মঞ্চে জুতা দিয়ে মেরেছেন তার দলীয় এক কর্মী। ওই কর্মীর নাম আলাউদ্দিন। একসঙ্গে ডাব খেয়ে টাকা না দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে মঞ্চে বসা অবস্থায় এমপি মোরশেদ আলমকে জুতা দিয়ে মারেন তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (১৫ ডিসেম্বর) সেনবাগ উপজেলার কেশারপাড় ইউনিয়নের দমদমা বাজারে।আটক ব্যক্তির নাম আলা উদ্দিন, তিনি উপজেলার কেশারপাড় ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মো. মোস্তফার ছেলে।পরে তাকে ধরে পুলিশে দিলে ওসি তাকে সেনবাগ থানা হেফাজতে নিয়ে আটক রাখেন।

কেশারপাড় ইউনিয়ন পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সভাপতি বেলাল ভূঞার সভাপতিত্বে নির্বাচনী পথসভা সঞ্চালনা করেন আলমগীর হোসেন। এ সময় কল্লোল গ্রুপের এমডি গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়ার বক্তব্য চলাকালে আলাউদ্দিন মঞ্চে বসা থাকা এমপিকে জুতা দিয়ে বাড়ি দেন। দ্বিতীয় বাড়ি দেয়ার সময় উপস্থিত নেতাকর্মীরা তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। এ ব্যাপারে জানতে সেনবাগ থানা অফিসার ইনচার্জকে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এদিকে এ ঘটনার ভিডিও মুহূর্তের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে (ফেসবুক) ছড়িয়ে পড়েছে। ১৯ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, নির্বাচনী সভার সঞ্চালক একজন বক্তার নাম ঘোষণা করে মাইক্রোফোন এগিয়ে দেওয়ার সময় ওই ব্যক্তি জুতা হাতে নিয়ে মঞ্চে বসা এমপি মোরশেদ আলমকে লক্ষ্য করে আঘাতের চেষ্টা করেন। এ সময় আঘাতটি সভার সঞ্চালকের হাতে লাগে। তাৎক্ষণিক নেতা-কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওইদিন বিকেলে নির্বাচনী প্রচারণার অংশ হিসেবে সেনবাগ উপজেলার কেশারপাড় ইউনিয়নে দমাদম বাজারে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর নির্বাচনী সভার আয়োজন করা হয়। দুপুরের পর থেকে আশপাশের এলাকা থেকে নেতা-কর্মীরা মিছিল নিয়ে সভাস্থলে আসতে থাকেন।

সন্ধ্যার আগে মঞ্চে আসেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য মোরশেদ আলম। এর আগ থেকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন ও আওয়ামী লীগ নেতা জীবন চৌধুরীর পরিচালনায় মঞ্চে উপস্থিত নেতারা পর্যায়ক্রমে বক্তব্য দেন।

বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে সঞ্চালক একজনের নাম ঘোষণা করে বক্তব্য দেওয়ার জন্য মাইক্রোফোন এগিয়ে দিতে গেলে মঞ্চের সামনে আলা উদ্দিন ডান হাতে একটি জুতা নিয়ে মোরশেদ আলমকে লক্ষ্য করে আঘাত করেন। তবে জুতাটি সঞ্চালক জীবন চৌধুরীর হাতে লেগে। এ সময় উত্তেজিত নেতা-কর্মীরা ওই যুবককে আটক করে সভাস্থলের একপাশে নিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করেন।

এ বিষয়ে সেনবাগ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবু জাফর বলেন, ‘অভিযুক্ত যুবক আলা উদ্দিনকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। পরবর্তী সময় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে আটক আলা উদ্দিন কে বা কার সমর্থক তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

পোস্ট শেয়ার করুন

নোয়াখালী-২ আসন নৌকা প্রতীকের সভায় এমপি মোরশেদ আলমকে জুতাপিটা

আপডেটের সময় : ০৩:২৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২৩

নোয়াখালী-২ আসনের নৌকার প্রার্থী এমপি মোরশেদ আলমকে মঞ্চে জুতা দিয়ে মেরেছেন তার দলীয় এক কর্মী। ওই কর্মীর নাম আলাউদ্দিন। একসঙ্গে ডাব খেয়ে টাকা না দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে মঞ্চে বসা অবস্থায় এমপি মোরশেদ আলমকে জুতা দিয়ে মারেন তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (১৫ ডিসেম্বর) সেনবাগ উপজেলার কেশারপাড় ইউনিয়নের দমদমা বাজারে।আটক ব্যক্তির নাম আলা উদ্দিন, তিনি উপজেলার কেশারপাড় ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মো. মোস্তফার ছেলে।পরে তাকে ধরে পুলিশে দিলে ওসি তাকে সেনবাগ থানা হেফাজতে নিয়ে আটক রাখেন।

কেশারপাড় ইউনিয়ন পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সভাপতি বেলাল ভূঞার সভাপতিত্বে নির্বাচনী পথসভা সঞ্চালনা করেন আলমগীর হোসেন। এ সময় কল্লোল গ্রুপের এমডি গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়ার বক্তব্য চলাকালে আলাউদ্দিন মঞ্চে বসা থাকা এমপিকে জুতা দিয়ে বাড়ি দেন। দ্বিতীয় বাড়ি দেয়ার সময় উপস্থিত নেতাকর্মীরা তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। এ ব্যাপারে জানতে সেনবাগ থানা অফিসার ইনচার্জকে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এদিকে এ ঘটনার ভিডিও মুহূর্তের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে (ফেসবুক) ছড়িয়ে পড়েছে। ১৯ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, নির্বাচনী সভার সঞ্চালক একজন বক্তার নাম ঘোষণা করে মাইক্রোফোন এগিয়ে দেওয়ার সময় ওই ব্যক্তি জুতা হাতে নিয়ে মঞ্চে বসা এমপি মোরশেদ আলমকে লক্ষ্য করে আঘাতের চেষ্টা করেন। এ সময় আঘাতটি সভার সঞ্চালকের হাতে লাগে। তাৎক্ষণিক নেতা-কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওইদিন বিকেলে নির্বাচনী প্রচারণার অংশ হিসেবে সেনবাগ উপজেলার কেশারপাড় ইউনিয়নে দমাদম বাজারে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর নির্বাচনী সভার আয়োজন করা হয়। দুপুরের পর থেকে আশপাশের এলাকা থেকে নেতা-কর্মীরা মিছিল নিয়ে সভাস্থলে আসতে থাকেন।

সন্ধ্যার আগে মঞ্চে আসেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য মোরশেদ আলম। এর আগ থেকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন ও আওয়ামী লীগ নেতা জীবন চৌধুরীর পরিচালনায় মঞ্চে উপস্থিত নেতারা পর্যায়ক্রমে বক্তব্য দেন।

বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে সঞ্চালক একজনের নাম ঘোষণা করে বক্তব্য দেওয়ার জন্য মাইক্রোফোন এগিয়ে দিতে গেলে মঞ্চের সামনে আলা উদ্দিন ডান হাতে একটি জুতা নিয়ে মোরশেদ আলমকে লক্ষ্য করে আঘাত করেন। তবে জুতাটি সঞ্চালক জীবন চৌধুরীর হাতে লেগে। এ সময় উত্তেজিত নেতা-কর্মীরা ওই যুবককে আটক করে সভাস্থলের একপাশে নিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করেন।

এ বিষয়ে সেনবাগ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবু জাফর বলেন, ‘অভিযুক্ত যুবক আলা উদ্দিনকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। পরবর্তী সময় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে আটক আলা উদ্দিন কে বা কার সমর্থক তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।