ঢাকা , রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নারী নির্যাতন করে ক্ষমতাসীনরা রেহাই পাচ্ছে: সেলিমা রহমান

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক:
  • আপডেটের সময় : ০৩:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৬ জানুয়ারী ২০১৯
  • / ১৩৬১ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: সারাদেশে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা একের পর এক ‘নারী নির্যাতন করে রেহাই পাচ্ছে’ বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান।

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে এক নারীকে গণধর্ষণের প্রতিবাদে শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

সেলিমা রহমান বলেন, ‘অপরাধীদের কাছে বিচার চাওয়ার কিছু নেই। কারণ, যারা অপরাধ করে তারা অপরাধীদের বিচার করে না। ধর্ষণ, যৌন নির্যাতন ও শিশু নির্যাতন থেকে শুরু করে বিভিন্ন ঘটনায় বাংলাদেশের নারী সমাজ বিপদগ্রস্ত ও আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। কিন্তু ক্ষমতাসীনদের উল্লাস থামেনি। সরকারের ভেতর অপরাধবোধ বলতে কিছু নেই।’

পুলিশের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনাদের মা-বোন আছে। আপনাদের বিবেক আছে। মানবতাবোধ আছে। সেই মানবতাবোধ থেকে দেখবেন— একজন সন্ত্রাসীও যেন পালাতে না পারে। সুবর্ণচরে এই নৃশংস ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তাদের আইনের আওতায় আনবেন।’

মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস বলেন, ‘এখানে শুধু প্রতিবাদ করার জন্য এসেছিলাম। কিন্তু এই সরকারের প্রশাসন দাঁড়ানোর সুযোগ দিতে চায়নি। সুবর্ণচরের নির্যাতিত নারীর পক্ষে এখানে দাঁড়িয়েছিলাম। ওই নারী পছন্দের প্রতীকে ভোট দিয়ে মহাপাপ করেছে বলে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। সেই ঘটনায় সাতজন গ্রেফতার হয়েছে। এবার তাদের ফাঁসি চাই।’

তিনি বলেন, ‘একটি ঘটনা ঘটলে সরকার আরেকটি ঘটনা ঘটিয়ে সেটাকে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। সেটা যেন এবার না হয়। এবার যদি ধর্ষকের দৃষ্টান্তমূলক বিচার না হয়, তাহলে যারা ধর্ষিতা তারা নিরাপদে থাকবে না। ধর্ষকরা মহা উৎসবে আরও ধর্ষণের লীলাখেলায় মেতে উঠবে।’

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শামসুন নাহার ও শাহিদা রফিক।

পোস্ট শেয়ার করুন

নারী নির্যাতন করে ক্ষমতাসীনরা রেহাই পাচ্ছে: সেলিমা রহমান

আপডেটের সময় : ০৩:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৬ জানুয়ারী ২০১৯

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: সারাদেশে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা একের পর এক ‘নারী নির্যাতন করে রেহাই পাচ্ছে’ বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান।

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে এক নারীকে গণধর্ষণের প্রতিবাদে শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

সেলিমা রহমান বলেন, ‘অপরাধীদের কাছে বিচার চাওয়ার কিছু নেই। কারণ, যারা অপরাধ করে তারা অপরাধীদের বিচার করে না। ধর্ষণ, যৌন নির্যাতন ও শিশু নির্যাতন থেকে শুরু করে বিভিন্ন ঘটনায় বাংলাদেশের নারী সমাজ বিপদগ্রস্ত ও আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। কিন্তু ক্ষমতাসীনদের উল্লাস থামেনি। সরকারের ভেতর অপরাধবোধ বলতে কিছু নেই।’

পুলিশের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনাদের মা-বোন আছে। আপনাদের বিবেক আছে। মানবতাবোধ আছে। সেই মানবতাবোধ থেকে দেখবেন— একজন সন্ত্রাসীও যেন পালাতে না পারে। সুবর্ণচরে এই নৃশংস ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তাদের আইনের আওতায় আনবেন।’

মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস বলেন, ‘এখানে শুধু প্রতিবাদ করার জন্য এসেছিলাম। কিন্তু এই সরকারের প্রশাসন দাঁড়ানোর সুযোগ দিতে চায়নি। সুবর্ণচরের নির্যাতিত নারীর পক্ষে এখানে দাঁড়িয়েছিলাম। ওই নারী পছন্দের প্রতীকে ভোট দিয়ে মহাপাপ করেছে বলে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। সেই ঘটনায় সাতজন গ্রেফতার হয়েছে। এবার তাদের ফাঁসি চাই।’

তিনি বলেন, ‘একটি ঘটনা ঘটলে সরকার আরেকটি ঘটনা ঘটিয়ে সেটাকে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। সেটা যেন এবার না হয়। এবার যদি ধর্ষকের দৃষ্টান্তমূলক বিচার না হয়, তাহলে যারা ধর্ষিতা তারা নিরাপদে থাকবে না। ধর্ষকরা মহা উৎসবে আরও ধর্ষণের লীলাখেলায় মেতে উঠবে।’

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শামসুন নাহার ও শাহিদা রফিক।