ঢাকা , রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
লিসবনে আত্মপ্রকাশ হয় সামাজিক সংগঠন “গোলাপগঞ্জ কমিউনিটি কেয়ারর্স পর্তুগাল “ উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল

দক্ষিণ এশিয়া থেকে দারিদ্র্য নির্মূলে একসঙ্গে কাজ করুন : প্রধানমন্ত্রী

দেশদিগন্ত :
  • আপডেটের সময় : ০২:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০১৭
  • / ১০১৫ টাইম ভিউ

দারিদ্র্যকে দক্ষিণ এশিয়ার উন্নয়নের প্রধান শত্রু উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই অঞ্চলের সকল দেশকে এ সমস্যা নির্মূলে এক সঙ্গে কাজ করার আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করেছেন।
রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গণভবনে শ্রীলঙ্কার হাইকমিশনার ইয়াসুজা গুনাসেকেরা বিদায় সক্ষাৎকালে তিনি এই আহ্বান জানান।
বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে বলেছেন, ‘দ্রারিদ্র্য দক্ষিণ এশিয়ার উন্নয়নের প্রধান শত্রু। কাজেই এই অঞ্চলের দারিদ্র্য সমূলে উৎপাটন করতে আমাদের এক সঙ্গে কাজ করতে হবে।’
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী এবং শ্রীলঙ্কার দূত দ্বিপক্ষীয় স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিশেষ করে অর্থনৈতিক সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা করেন।
এ সময় তাঁরা দুই দেশের বর্তমান দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক এবং অর্থনৈতিক সহযোগিতার ক্ষেত্র সম্প্রসারণে সন্তোষ প্রকাশ করেন।
শেখ হাসিনা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল বাংলাদেশকে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে গড়ে তোলা।
তিনি বলেন, ‘সে স্বপ্ন বাস্তবায়নে বর্তমান সরকার বাংলাদেশকে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।’
এসময় প্রধানমন্ত্রী বিনিয়োগ আকর্ষণের জন্য তাঁর সরকারের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে বলেন, দেশের উন্নয়নে সরকার ব্যবসায়ীদের আরো বেশি বিনিয়োগে উৎসাহিত করছে।
শেখ হাসিনা বলেন, দক্ষিণ এশিয়া একটি বড় বাজার।
তিনি বলেন, ‘এই অঞ্চলের আরো বেশি অগ্রগতির জন্য আমরা দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বাজারগুলোর দিকে ব্যবসায়ীদের দৃষ্টি দিতে বলবো।’
এ সময় শ্রীলঙ্কার হাইকমিশনার বলেন, বাংলাদেশ একটি তৈরিশিল্পের প্রাণ কেন্দ্র।
দেশের শিল্পায়ন এবং কর্মসংস্থানের জন্য তাঁর সরকারের সারাদেশে ১শ’ বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলার উদ্যোগ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, চীন, ভারত এবং দক্ষিণ কোরিয়ার বিনিয়োগকারীদের শিল্প স্থাপনের জন্য এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে সরকার জায়গা বরাদ্দ করেছে।
এ সময় শ্রীলংকার বিনিয়োগকারীদেরও এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগের আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারাও এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে বড় রকমের বিনিয়োগ করে সরকারের দেয়া সুযোগ-সুুবিধার সুযোগ নিতে পারে।
প্রধানমন্ত্রী এবং শ্রীলংকার হাইকমিশনার উভয়েই পর্যটন খাতে যৌথ সহযোগিতার ওপরও গুরুত্বারোপ করেন।
শেখ হাসিনা এ সময় শ্রীলংকার শিক্ষা ব্যবস্থারও ভূয়সী প্রশংসা করেন।
প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী এবং মুখ্য সচিব ড. কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী এ সময় উপস্থিত ছিলেন।–বাসস

পোস্ট শেয়ার করুন

দক্ষিণ এশিয়া থেকে দারিদ্র্য নির্মূলে একসঙ্গে কাজ করুন : প্রধানমন্ত্রী

আপডেটের সময় : ০২:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০১৭

দারিদ্র্যকে দক্ষিণ এশিয়ার উন্নয়নের প্রধান শত্রু উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই অঞ্চলের সকল দেশকে এ সমস্যা নির্মূলে এক সঙ্গে কাজ করার আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করেছেন।
রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গণভবনে শ্রীলঙ্কার হাইকমিশনার ইয়াসুজা গুনাসেকেরা বিদায় সক্ষাৎকালে তিনি এই আহ্বান জানান।
বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে বলেছেন, ‘দ্রারিদ্র্য দক্ষিণ এশিয়ার উন্নয়নের প্রধান শত্রু। কাজেই এই অঞ্চলের দারিদ্র্য সমূলে উৎপাটন করতে আমাদের এক সঙ্গে কাজ করতে হবে।’
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী এবং শ্রীলঙ্কার দূত দ্বিপক্ষীয় স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিশেষ করে অর্থনৈতিক সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা করেন।
এ সময় তাঁরা দুই দেশের বর্তমান দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক এবং অর্থনৈতিক সহযোগিতার ক্ষেত্র সম্প্রসারণে সন্তোষ প্রকাশ করেন।
শেখ হাসিনা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল বাংলাদেশকে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে গড়ে তোলা।
তিনি বলেন, ‘সে স্বপ্ন বাস্তবায়নে বর্তমান সরকার বাংলাদেশকে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।’
এসময় প্রধানমন্ত্রী বিনিয়োগ আকর্ষণের জন্য তাঁর সরকারের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে বলেন, দেশের উন্নয়নে সরকার ব্যবসায়ীদের আরো বেশি বিনিয়োগে উৎসাহিত করছে।
শেখ হাসিনা বলেন, দক্ষিণ এশিয়া একটি বড় বাজার।
তিনি বলেন, ‘এই অঞ্চলের আরো বেশি অগ্রগতির জন্য আমরা দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বাজারগুলোর দিকে ব্যবসায়ীদের দৃষ্টি দিতে বলবো।’
এ সময় শ্রীলঙ্কার হাইকমিশনার বলেন, বাংলাদেশ একটি তৈরিশিল্পের প্রাণ কেন্দ্র।
দেশের শিল্পায়ন এবং কর্মসংস্থানের জন্য তাঁর সরকারের সারাদেশে ১শ’ বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলার উদ্যোগ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, চীন, ভারত এবং দক্ষিণ কোরিয়ার বিনিয়োগকারীদের শিল্প স্থাপনের জন্য এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে সরকার জায়গা বরাদ্দ করেছে।
এ সময় শ্রীলংকার বিনিয়োগকারীদেরও এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগের আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারাও এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে বড় রকমের বিনিয়োগ করে সরকারের দেয়া সুযোগ-সুুবিধার সুযোগ নিতে পারে।
প্রধানমন্ত্রী এবং শ্রীলংকার হাইকমিশনার উভয়েই পর্যটন খাতে যৌথ সহযোগিতার ওপরও গুরুত্বারোপ করেন।
শেখ হাসিনা এ সময় শ্রীলংকার শিক্ষা ব্যবস্থারও ভূয়সী প্রশংসা করেন।
প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী এবং মুখ্য সচিব ড. কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী এ সময় উপস্থিত ছিলেন।–বাসস