ঢাকা , বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
উচ্ছ্বাস আর আনন্দে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের উদযাপন করেছে পর্তুগাল যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি

ঢাকায় ‘১৭তম অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস’ শুরু

অনলাইন ডেস্ক :
  • আপডেটের সময় : ১১:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৭
  • / ১৬৭৮ টাইম ভিউ

ঢাকায় আইসিটি অস্কার খ্যাত ‘১৭তম অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা-২০১৭’ শুরু হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) যৌথভাবে ৭ থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই আন্তর্জাতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছ।
এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বৃহত্তম সংগঠন এশিয়া প্যাসিফিক আইসিটি অ্যালায়েন্স (অ্যাপিকটা), এই অঞ্চলের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নের পাশাপাশি সম্ভাবনাময় ও সফল উদ্যোগ, সফটওয়্যার ও তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর সেবার স্বীকৃতি দিতে প্রতিবছর অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসের আয়োজন করে থাকে। এবারই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস অনুষ্ঠিত হচ্ছে।
উদ্বোধনী দিনের সকালে অ্যাপিকটা বাংলাদেশের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরপর দুপুরে অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ এর বিচারকদের নিয়ে সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় বিচারকদের সামনে অনুষ্ঠান পরিকল্পনা তুলে ধরেন এশিয়া প্যাসিফিক আইসিটি অ্যালায়েন্স (অ্যাপিকটা) অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা-২০১৭ এর আহ্বায়ক ও বেসিসের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি রাসেল টি আহমেদ। সভায় বেসিস এর সহায়তায় নির্মিত সফটওয়্যারের মাধ্যমে কিভাবে প্রতিযোগাতিয়ায় অংশগ্রহণকারিদের মূল্যায়ন ও নম্বর প্রদান করা হবে তা সবিস্তারে তুলে ধরা হয়।
বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ-বিডার সৌজন্যে  সন্ধ্যা ৭টায় অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ এর ওয়েলকাম রিসেপশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী মো. জুনাইদ আহমেদ পলক, উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী মো. জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ২০১৫ সালে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) অ্যাপিকটার সদস্যপদ লাভ করে। সদস্য হওয়ার পর বাংলাদেশে দু’বার কার্যনির্বাহী কমিটির সভা হয়েছে। ২০১৬ সালে প্রথমবারের মতো অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসে অংশ নিয়ে বাংলাদেশ পুরস্কারও জিতেছে। সদস্যপদ পাওয়ার মাত্র ২ বছরের মধ্যে নবীনতম সদস্য হিসেবে অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস এর এই আয়োজন অ্যাপিকটার ইতিহাসে প্রথম।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ভুটানের তথ্য ও যোগাযোগ মন্ত্রী ডি এন ডুয়েংগল, অ্যাপিকটার চেয়ারম্যান দিলীপা ডি সিলভা এবং বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ-বিডার চেয়ারম্যান কাজী এম আমিনুল ইসলাম।
এ সময় ভুটানের তথ্য ও যোগাযোগ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী  ডি এন ডুয়েংগল বলেন , ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের সূচনা লগ্ন থেকেই বাংলাদেশের অগ্রগতি প্রত্যক্ষ করছে ভুটান। অর্থনৈতিক ও তথ্য প্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশের সাথে কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন তিনি।
অ্যাপিকটার চেয়ারম্যান দিলীপা ডি সিলভা বলেন, অ্যাপিকটার নবীনতম সদস্য হয়েও অসাধারণ অগ্রগতি দেখিয়ে বাংলাদেশ। এ সময়, বিডার চেয়ারম্যান কাজী এম আমিনুল ইসলাম, অনুষ্ঠানে আগত অ্যাপিকটার ১৬ দেশের প্রতিনিধিদের বাংলাদেশে আমন্ত্রণ জানান ও অ্যাপিকটা সদস্যভুক্ত দেশগুলোকে বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান জানান।
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বনমালী ভৌমিক, বাংলাদেশ হাইটেক পার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, বেসিসের সভাপতি মোস্তাফা জব্বার, বেসিসের কার্যনির্বাহী পরিষদ সদস্য, তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা-২০১৭তে আগত বিচারক ও ইকোনমিক কো- অর্ডিনেটররা।
অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা ২০১৭ এর আহ্বায়ক ও বেসিসের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি রাসেল টি আহমেদ আয়োজনের সার্বিক দিকগুলো তুলে ধরে বলেন, আয়োজনকে সফল করতে প্রায় ১০০ জন নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। পাশাপাশি আয়োজনকে উৎসবমুখর করতে বিশেষ পদক্ষেপও নেয়া হয়েছে। আমন্ত্রিত প্রতিযোগীদের নিয়ে বাংলাদেশ নাইট ও হংকং নাইট অনুষ্ঠিত হবে। ১০ ডিসেম্বর বিকেলে ১৭তম অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা ২০১৭ এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) অনুষ্ঠিত হবে।
বাংলাদেশ ছাড়াও অ্যাপিকটার সদস্য দেশগুলো হলো অস্ট্রেলিয়া, ব্রুনেই দারুসসালাম, চীন, চীনা তাইপে, হংকং, ইন্দোনেশিয়া, জাপান, ম্যাকাও, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, পাকিস্তান, সিঙ্গাপুর, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম।

পোস্ট শেয়ার করুন

ঢাকায় ‘১৭তম অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস’ শুরু

আপডেটের সময় : ১১:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৭

ঢাকায় আইসিটি অস্কার খ্যাত ‘১৭তম অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা-২০১৭’ শুরু হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) যৌথভাবে ৭ থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই আন্তর্জাতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছ।
এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বৃহত্তম সংগঠন এশিয়া প্যাসিফিক আইসিটি অ্যালায়েন্স (অ্যাপিকটা), এই অঞ্চলের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নের পাশাপাশি সম্ভাবনাময় ও সফল উদ্যোগ, সফটওয়্যার ও তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর সেবার স্বীকৃতি দিতে প্রতিবছর অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসের আয়োজন করে থাকে। এবারই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস অনুষ্ঠিত হচ্ছে।
উদ্বোধনী দিনের সকালে অ্যাপিকটা বাংলাদেশের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরপর দুপুরে অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ এর বিচারকদের নিয়ে সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় বিচারকদের সামনে অনুষ্ঠান পরিকল্পনা তুলে ধরেন এশিয়া প্যাসিফিক আইসিটি অ্যালায়েন্স (অ্যাপিকটা) অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা-২০১৭ এর আহ্বায়ক ও বেসিসের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি রাসেল টি আহমেদ। সভায় বেসিস এর সহায়তায় নির্মিত সফটওয়্যারের মাধ্যমে কিভাবে প্রতিযোগাতিয়ায় অংশগ্রহণকারিদের মূল্যায়ন ও নম্বর প্রদান করা হবে তা সবিস্তারে তুলে ধরা হয়।
বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ-বিডার সৌজন্যে  সন্ধ্যা ৭টায় অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ এর ওয়েলকাম রিসেপশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী মো. জুনাইদ আহমেদ পলক, উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী মো. জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ২০১৫ সালে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) অ্যাপিকটার সদস্যপদ লাভ করে। সদস্য হওয়ার পর বাংলাদেশে দু’বার কার্যনির্বাহী কমিটির সভা হয়েছে। ২০১৬ সালে প্রথমবারের মতো অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসে অংশ নিয়ে বাংলাদেশ পুরস্কারও জিতেছে। সদস্যপদ পাওয়ার মাত্র ২ বছরের মধ্যে নবীনতম সদস্য হিসেবে অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস এর এই আয়োজন অ্যাপিকটার ইতিহাসে প্রথম।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ভুটানের তথ্য ও যোগাযোগ মন্ত্রী ডি এন ডুয়েংগল, অ্যাপিকটার চেয়ারম্যান দিলীপা ডি সিলভা এবং বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ-বিডার চেয়ারম্যান কাজী এম আমিনুল ইসলাম।
এ সময় ভুটানের তথ্য ও যোগাযোগ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী  ডি এন ডুয়েংগল বলেন , ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের সূচনা লগ্ন থেকেই বাংলাদেশের অগ্রগতি প্রত্যক্ষ করছে ভুটান। অর্থনৈতিক ও তথ্য প্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশের সাথে কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন তিনি।
অ্যাপিকটার চেয়ারম্যান দিলীপা ডি সিলভা বলেন, অ্যাপিকটার নবীনতম সদস্য হয়েও অসাধারণ অগ্রগতি দেখিয়ে বাংলাদেশ। এ সময়, বিডার চেয়ারম্যান কাজী এম আমিনুল ইসলাম, অনুষ্ঠানে আগত অ্যাপিকটার ১৬ দেশের প্রতিনিধিদের বাংলাদেশে আমন্ত্রণ জানান ও অ্যাপিকটা সদস্যভুক্ত দেশগুলোকে বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান জানান।
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বনমালী ভৌমিক, বাংলাদেশ হাইটেক পার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, বেসিসের সভাপতি মোস্তাফা জব্বার, বেসিসের কার্যনির্বাহী পরিষদ সদস্য, তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা-২০১৭তে আগত বিচারক ও ইকোনমিক কো- অর্ডিনেটররা।
অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা ২০১৭ এর আহ্বায়ক ও বেসিসের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি রাসেল টি আহমেদ আয়োজনের সার্বিক দিকগুলো তুলে ধরে বলেন, আয়োজনকে সফল করতে প্রায় ১০০ জন নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। পাশাপাশি আয়োজনকে উৎসবমুখর করতে বিশেষ পদক্ষেপও নেয়া হয়েছে। আমন্ত্রিত প্রতিযোগীদের নিয়ে বাংলাদেশ নাইট ও হংকং নাইট অনুষ্ঠিত হবে। ১০ ডিসেম্বর বিকেলে ১৭তম অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা ২০১৭ এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) অনুষ্ঠিত হবে।
বাংলাদেশ ছাড়াও অ্যাপিকটার সদস্য দেশগুলো হলো অস্ট্রেলিয়া, ব্রুনেই দারুসসালাম, চীন, চীনা তাইপে, হংকং, ইন্দোনেশিয়া, জাপান, ম্যাকাও, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, পাকিস্তান, সিঙ্গাপুর, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম।