ঢাকা , রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডিইউপি’র সমর্থন নিয়ে সরকার গঠনের ঘোষণা দিলেন মে

অনলাইন ডেস্ক :
  • আপডেটের সময় : ০২:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ জুন ২০১৭
  • / ১২৯৬ টাইম ভিউ

ডিইউপি’র সমর্থন নিয়ে সরকার গঠনের ঘোষণা দিলেন মে

সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েও ডেমোক্র্যাট ইউনিয়নিস্ট পার্টি-ডিইউপি’র সমর্থন নিয়ে সরকার গঠনের ঘোষণা দিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে।শুক্রবার রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের সরকারি বাসভবন বাকিংহাম প্যালেসে তার সঙ্গে দেখা করার পর তিনি এ ঘোষণা দেন।

থেরেসা মে বলেন, নির্বাচনে সবচে’ বেশি আসন ও সবচে’ বেশি ভোট পাওয়া তার দলই ‘বৈধভাবে’ সরকার গঠন করতে পারে। ডিইউপিসহ সবার সঙ্গে একযোগে কাজ করে ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া এগিয়ে নেয়া হবে।তিনি বলেন, আসুন সবাই একযোগে কাজ করি। ডিইউপি সমর্থিত এ সরকার যুক্তরাজ্যকে ‘সংশয়মুক্ত’ ভবিষ্যৎ দিতে পারবে।হাউস অব কমন্সের ৬৫০ আসনের মধ্যে ঘোষিত ফল অনুযায়ী, থেরেসা মের দল কনজারভেটিভ পার্টি ৩১৮টি, লেবার পার্টি ২৬১টি, স্কটিশ ন্যাশনালিস্ট পার্টি ৩৫টি, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি ১২টি, ডিইউপি ১০টি ও অন্যান্য দল ১৩টি আসন পেয়েছে।সরকার গঠনে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য ৬৫০ আসনের হাউস অব কমনসে কনজারভেটিভ পার্টির আরো ৮টি আসন দরকার। ডিইউপি’র সমর্থন পাওয়ায় আরো ১০টি আসন বেড়েছে দলটির।

পোস্ট শেয়ার করুন

ডিইউপি’র সমর্থন নিয়ে সরকার গঠনের ঘোষণা দিলেন মে

আপডেটের সময় : ০২:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ জুন ২০১৭

সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েও ডেমোক্র্যাট ইউনিয়নিস্ট পার্টি-ডিইউপি’র সমর্থন নিয়ে সরকার গঠনের ঘোষণা দিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে।শুক্রবার রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের সরকারি বাসভবন বাকিংহাম প্যালেসে তার সঙ্গে দেখা করার পর তিনি এ ঘোষণা দেন।

থেরেসা মে বলেন, নির্বাচনে সবচে’ বেশি আসন ও সবচে’ বেশি ভোট পাওয়া তার দলই ‘বৈধভাবে’ সরকার গঠন করতে পারে। ডিইউপিসহ সবার সঙ্গে একযোগে কাজ করে ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া এগিয়ে নেয়া হবে।তিনি বলেন, আসুন সবাই একযোগে কাজ করি। ডিইউপি সমর্থিত এ সরকার যুক্তরাজ্যকে ‘সংশয়মুক্ত’ ভবিষ্যৎ দিতে পারবে।হাউস অব কমন্সের ৬৫০ আসনের মধ্যে ঘোষিত ফল অনুযায়ী, থেরেসা মের দল কনজারভেটিভ পার্টি ৩১৮টি, লেবার পার্টি ২৬১টি, স্কটিশ ন্যাশনালিস্ট পার্টি ৩৫টি, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি ১২টি, ডিইউপি ১০টি ও অন্যান্য দল ১৩টি আসন পেয়েছে।সরকার গঠনে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য ৬৫০ আসনের হাউস অব কমনসে কনজারভেটিভ পার্টির আরো ৮টি আসন দরকার। ডিইউপি’র সমর্থন পাওয়ায় আরো ১০টি আসন বেড়েছে দলটির।