ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
আপডেট :
যথাযথ গাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে পরিবেশে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর পালন করেছে ভেনিস প্রবাসীরা ভেনিসে বৃহত্তর সিলেট সমিতির আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত এক অসুস্থ প্রজন্ম কে সাথি করে এগুচ্ছি আমরা রিডানডেন্ট ক্লোথিং আর মজুর মামার ‘বিশ্বকাপ’ ইউরোপের সবচেয়ে বড় ঈদুল ফিতরের নামাজ পর্তুগালে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য আয়োজনে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন ঈদের কাপড় কিনার জন্য মা’য়ের উপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা লিসবনে বন্ধু মহলের আয়োজনে বিশাল ইফতার ও দোয়া মাহফিল মান অভিমান ভুলে সবাই একই প্লাটফর্মে,সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল বিএনপির নবগঠিত আহবায়ক কমিটি ইতালির ভিসেন্সায় সিলেট ডায়নামিক অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত

জেতার জন্যই নৌকা সৃষ্টি হয়েছে: ফারুক

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ১১:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২০
  • / ৬৩৫ টাইম ভিউ

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: নৌকা স্বাধীনতা যুদ্ধ করেছে। নৌকা স্বাধীনতা এনে দিয়েছে, মানুষকে মুক্ত করেছে। বাঙ্গালির বিজয়ের ইতিহাস নৌকার নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা আছে। হেরে যেতে নয়, জেতার জন্যই নৌকা সৃষ্টি হয়েছে। আসন্ন ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নৌকার জয়লাভ সম্পর্কে এভাবে আশাবাদ করেন ঢাকা-১৭ আসন এর সংসদ সদস্য ও বরেণ্য অভিনেতা মুক্তিযোদ্ধা আকবর হোসেন পাঠান ফারুক।

তিনি বলেন, নৌকা মানুষের মুক্তির প্রতিক। নৌকাতেই মানুষ স্বপ্ন দেখে এবং নৌকার মাঝেই সাধারণ মানুষের সব আশা-আকাঙ্খা নিহত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নৌকা মানুষেকে অর্থনৈতিক মুক্তি এনে দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে দুর্নীতির বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করেছে। তাই এই নৌকাতেই মানুষ ভোট দিয়ে তাদের স্বপ্ন পূরণের গতি তরান্বিত করবে। সর্বস্তরের মানুষ যেমন ঢাকার স্বপ্ন দেখে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা অনেক আগেই তেমন ঢাকার ছবি একেছেন। তাই নৌকা ছাড়া অন্য কোনো প্রতিকের চিন্তাও করেনা ঢাকাবাসি।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে অভাবনীয় উন্নয়ন করে বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করতে চলেছেন। তাতে অনেক মানুষের হিংসা হচ্ছে। তাদের এটা ভালো লাগছে না। কিন্তু জনগণের তো ভালো লাগছে। তাই কিছু মানুষের হিংসায় আমাদের কিছু যায়-আসেনা। আওয়ামী লীগ জনগণের জন্য রাজনীতি করে। জনগণের যা কিছু ভালো লাগে সেগুলো করে।

তিনি আরো বলেন, ঢাকা সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর সাথে বিএনপির প্রর্থীর কোনো তুলনা চলে না। বিএনপির দক্ষিণের প্রার্থীকে কেউ চেনে না। তার নিজস্ব কোনো পরিচয় এবং যোগ্যতা বা অভিজ্ঞতা কিছুই নেই। আর উত্তরের প্রার্থী আন্তর্জাতিকভাবে দুর্নীতিগ্রস্থ এবং অনভিজ্ঞ তাদেরকে মানুষ মেয়র বানাতে যাবে কেনো। আওয়ামী লীগের প্রার্থী ডায়ানামিক, অভিজ্ঞ এবং সৎ। তাই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ঢাকাবাসি বঙ্গবন্ধুর নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগের প্রর্থীদের নগরবাসির সেবা করার সুযোগ করে দেবে।

পোস্ট শেয়ার করুন

জেতার জন্যই নৌকা সৃষ্টি হয়েছে: ফারুক

আপডেটের সময় : ১১:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২০

দেশদিগন্ত নিউজ ডেস্ক: নৌকা স্বাধীনতা যুদ্ধ করেছে। নৌকা স্বাধীনতা এনে দিয়েছে, মানুষকে মুক্ত করেছে। বাঙ্গালির বিজয়ের ইতিহাস নৌকার নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা আছে। হেরে যেতে নয়, জেতার জন্যই নৌকা সৃষ্টি হয়েছে। আসন্ন ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নৌকার জয়লাভ সম্পর্কে এভাবে আশাবাদ করেন ঢাকা-১৭ আসন এর সংসদ সদস্য ও বরেণ্য অভিনেতা মুক্তিযোদ্ধা আকবর হোসেন পাঠান ফারুক।

তিনি বলেন, নৌকা মানুষের মুক্তির প্রতিক। নৌকাতেই মানুষ স্বপ্ন দেখে এবং নৌকার মাঝেই সাধারণ মানুষের সব আশা-আকাঙ্খা নিহত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নৌকা মানুষেকে অর্থনৈতিক মুক্তি এনে দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে দুর্নীতির বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করেছে। তাই এই নৌকাতেই মানুষ ভোট দিয়ে তাদের স্বপ্ন পূরণের গতি তরান্বিত করবে। সর্বস্তরের মানুষ যেমন ঢাকার স্বপ্ন দেখে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা অনেক আগেই তেমন ঢাকার ছবি একেছেন। তাই নৌকা ছাড়া অন্য কোনো প্রতিকের চিন্তাও করেনা ঢাকাবাসি।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে অভাবনীয় উন্নয়ন করে বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করতে চলেছেন। তাতে অনেক মানুষের হিংসা হচ্ছে। তাদের এটা ভালো লাগছে না। কিন্তু জনগণের তো ভালো লাগছে। তাই কিছু মানুষের হিংসায় আমাদের কিছু যায়-আসেনা। আওয়ামী লীগ জনগণের জন্য রাজনীতি করে। জনগণের যা কিছু ভালো লাগে সেগুলো করে।

তিনি আরো বলেন, ঢাকা সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর সাথে বিএনপির প্রর্থীর কোনো তুলনা চলে না। বিএনপির দক্ষিণের প্রার্থীকে কেউ চেনে না। তার নিজস্ব কোনো পরিচয় এবং যোগ্যতা বা অভিজ্ঞতা কিছুই নেই। আর উত্তরের প্রার্থী আন্তর্জাতিকভাবে দুর্নীতিগ্রস্থ এবং অনভিজ্ঞ তাদেরকে মানুষ মেয়র বানাতে যাবে কেনো। আওয়ামী লীগের প্রার্থী ডায়ানামিক, অভিজ্ঞ এবং সৎ। তাই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ঢাকাবাসি বঙ্গবন্ধুর নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগের প্রর্থীদের নগরবাসির সেবা করার সুযোগ করে দেবে।